scorecardresearch

বড় খবর

হাবাসের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইস্টবেঙ্গল কোচের! শতবর্ষের আবহেই চমক ময়দানে

চলতি বছরেই গার্সিয়ার পরিবর্তে এটিকে-তে ফিটনেস কোচ হিসেবে যোগ দিয়েছেন মিগুয়েল মার্তিনেজ গঞ্জালেজ। পুণে সিটি এফসিতে গতবছর দায়িত্বে থাকা ট্রেনারের কাছেই প্রথমবার মারিও রিভেরার নাম শোনেন হাবাস।

হাবাসের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইস্টবেঙ্গল কোচের! শতবর্ষের আবহেই চমক ময়দানে
ইস্টবেঙ্গলের অনুশীলনে সহকারী মারিও রিভেরার সঙ্গে আলেয়ান্দ্রো মেনেন্ডেজ, (ডানদিকে) এটিকে কোচ হাবাস (ফেসবুক এবং ইন্ডিয়ান সুপার লিগ)

ধুম ধাম করে শতবর্ষের বণার্ঢ্য উদযাপনের ফিতে কাটা সম্পন্ন। ঐতিহাসিক সন্ধিক্ষণে ইস্টবেঙ্গল। এর মধ্যেই খবর, ইস্টবেঙ্গলের সহকারী কোচকে প্রস্তাব দিল অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা। সহকারী অবশ্য নন, প্রাক্তন হয়ে গিয়েছেন কয়েকমাস আগেই। সেই মারিও রিভেরাকেই স্বয়ং প্রস্তাব দিয়েছিলেন স্বয়ং অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাস। তাঁর ডেপুটি হয়ে ফুটবলারদের তত্ত্বাবধান করার জন্য।

সেই প্রস্তাব অবশ্য নাকচ করে দিয়েছেন আলেয়ান্দ্রো মেনেন্ডেজের প্রাক্তন সহকারী। ভারতে কোচিংয়ের পাঠ চুকিয়ে বর্তমানে স্পেনেই রয়েছেন। সেখানেই ছুটি কাটাচ্ছেন তিনি। মাদ্রিদ থেকে তিনি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে জানালেন, “ইস্টবেঙ্গলের পরে আমাকে প্রস্তাব দিয়েছিল অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা। অ্যান্টোনিও নিজে আমাকে অফার করেছিলেন।” হাবাসের সঙ্গে কীভাবে মারিও-র সাক্ষাৎ, সেটাও বেশ আকর্ষণীয়। আইএসএল চ্যাম্পিয়ন কোচের সঙ্গে পূর্বপরিচয় ছিল না মারিও-র।

আরও পড়ুন শতবর্ষের আমন্ত্রণে সাড়া দিলেন না অভিমানী কিংবদন্তি! শুরুর দিনেই তাল কাটল

শতবর্ষে নতুন অতিথি! আসিয়ান জয়ের নায়ককে বরণ করবে ইস্টবেঙ্গল

কাঁধে ইঞ্জেকশন নিয়ে ইস্টবেঙ্গলকে ‘ঐতিহাসিক উপহার’! শতবর্ষে ক্লাবই ভুলল সেই নায়ককে

চলতি বছরেই গার্সিয়ার পরিবর্তে এটিকে-তে ফিটনেস কোচ হিসেবে যোগ দিয়েছেন মিগুয়েল মার্তিনেজ গঞ্জালেজ। পুণে সিটি এফসিতে গতবছর দায়িত্বে থাকা ট্রেনারের কাছেই প্রথমবার মারিও রিভেরার নাম শোনেন হাবাস। তিনিই সহকারী হিসেবে মারিও-র নাম হাবাসের কাছে প্রস্তাব করেন। সেই অনুরোধ ফেলতে পারেননি দোর্দণ্ডপ্রতাপ কোচ।

মাদ্রিদে গিয়ে হাবাস নিজেই মারিওকে ফোন করেছিলেন। সেখানেই প্রাক্তন ইস্টবেঙ্গল কোচের বাড়িতে যান স্প্যানিশ মায়েস্ত্রো। সরাসরি সাক্ষাৎ-এ সহকারী হওয়ার প্রস্তাব আসে আলেয়ান্দ্রোর ডেপুটির কাছে। কিছুদিন সময় চেয়ে নিয়ে পরে এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন মারিও রিভেরা। কেন, এটিকে-র সংসারে গেলেন না! মারিও নিজে অবশ্য পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর কারণকেই তুলে ধরছেন। তিনি জানালেন, “২০১৬ থেকে টানা কোচিং করাতে ব্য়স্ত ছিলাম। স্প্যানিশ ক্লাব লেইওয়া এবং ব্রুনেইয়ের যুব দলের দায়িত্ব সামলানোর পরে ইস্টবেঙ্গলে যাই। পরিবারকে সময় দিতে পারছিলাম না। তাই এটিকে-র প্রস্তাবে রাজি হইনি। আপাতত কিছুদিন পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাবো। তারপরে নিজের ভবিষ্যতের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব।”

ইস্টবেঙ্গলে তিনি অতীত হয়ে গিয়েছেন। তাঁর পরিবর্তে লাল-হলুদ সংসারে নতুন সহকারী এখন জোসেফ ফেরে কোকো। তবে এখনও লাল-হলুদ জনতা তাঁর হৃদয়ে। তিনিই বলছিলেন, “শুনেছি সাড়ম্বরে ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষ পালন করা হচ্ছে। ক্লাব তো বটেই সমর্থকদেরও ভীষণ মিস করি। সবাইকে আমার শুভেচ্ছা জানাবেন।”

আপাতত অখন্ড বিশ্রাম। তারপরে ফের মুখে বাঁশি বাজিয়ে ময়দানে নেমে পড়তে চান আলেয়ান্দ্রো মেনেন্ডেজের একসময়ের সহকারী। আর কোচিং জীবনের প্রত্যাবর্তনে অগ্রাধিকার অবশ্যই ভারত!

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Alejandro menendezs former deputy at east bengal offered by atks head coach antonio lopez habas