scorecardresearch

বড় খবর

মৃত্যুতে অবসান সব শত্রুতার! মাঙ্কিগেট কেলেঙ্কারি সরিয়ে সাইমন্ডসের প্রয়াণে ‘কান্না’ ভাজ্জিরও

ক্রিকেট বিশ্বে কুখ্যাত মাঙ্কিগেট কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন হরভজন-সাইমন্ডস। প্রয়াত তারকাকে শেষ শ্রদ্ধা জানালেন ভাজ্জি।

মৃত্যুতে অবসান সব শত্রুতার! মাঙ্কিগেট কেলেঙ্কারি সরিয়ে সাইমন্ডসের প্রয়াণে ‘কান্না’ ভাজ্জিরও

শনিবার রাতের দিকে ভয়ঙ্কর পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ান তারকা অলরাউন্ডার এন্ড্রু সাইমন্ডসের। মাত্র ৪৬ বছর বয়সে পাড়ি দিলেন না দেখার দেশে। সুপারস্টারকে হারিয়ে শোকে মুহ্যমান ক্রিকেট দুনিয়া।

কুইন্সল্যান্ড পুলিশের তরফে বলা হয়েছে, গাড়ি চালানোর সময় রাস্তার বাইরে গড়িয়ে যায় গাড়ি। দ্রুতগতিতে চলা গাড়ি দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার পরে আর সেরে উঠতে পারনেনি। ভয়াবহ দুঃসংবাদ ভেসে আসতেই ক্রিকেট মহলের তরফে একের পর এক শোকবার্তা ভেসে আসে।

আরও পড়ুন: প্রয়াত সাইমন্ডস! ক্রিকেট বিশ্বকে কাঁদিয়ে ভয়ঙ্কর দুঃসংবাদ দিল অস্ট্রেলিয়া

ক্রিকেট কেরিয়ারে সাইমন্ডসের সঙ্গে কুখ্যাত মাঙ্কিগেট কাণ্ডে জড়ানো হরভজনও নিজের শোকবার্তা পাঠিয়েছেন। টুইটারে ভাজ্জি লিখলেন, “সাইমন্ডসের আকস্মিক প্রয়াণের খবরে শকড। খুব তাড়াতাড়ি চলে গেলে। সাইমন্ডসের পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা রইল। আত্মার প্রতি প্রার্থনা করছি।”

ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরের সময় হরভজনের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন সাইমন্ডস। তারপরেই ক্রিকেট বিশ্বে আলোড়ন ফেলে দেওয়া বর্ণবিদ্বেষের ঘটনা খবরের কাগজের শিরোনাম হয়ে যায়। সেই কেলেঙ্কারি এখনও ক্রিকেট দুনিয়ায় ‘মাঙ্কিগেট’ হিসাবে কুখ্যাত। সেই ঘটনা ভারত-অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট সম্পর্কেও প্রভাব ফেলেছিল।

সেই ঘটনার পরে হরভজনকে আইসিসির তরফে তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ করা হয়। ম্যাচ রেফারি মাইক প্রোক্টর জানিয়েছিলেন, “কোনও সন্দেহই নেই হরভজনের বর্ণবিদ্বেষমূলক মন্তব্যের নিশানা ছিল সাইমন্ডসের দিকে।” আইসিসি এবং ম্যাচ রেফারির সেই রায়ে ক্ষুব্ধ হয়ে ভারত অস্ট্রেলিয়া সফর বাতিল করার হুমকিও দেয়। যে ঘটনার প্রেক্ষিতে পাল্টা শুনানি হয় এডিলেড ফেডারেল কোর্টে। দুই দলের সিনিয়র তারকারা পাশাপাশি বসে দীর্ঘক্ষণ এই ঘটনা নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা সারেন।

আরও পড়ুন: পাল্টা ডিগবাজি শ্রেয়সের! বিষ্ফোরক মন্তব্য করেও ফিরিয়ে নিলেন KKR নেতা

তারপরে হরভজনের ওপর আরোপিত তিন ম্যাচ সাসপেনশন তুলে নেওয়া হয়। বদলে ম্যাচ ফি-র ৫০ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়। বর্ণবিদ্বেষ ঘটনায় তিনি যে অভিযুক্ত হন, তা জানিয়ে দেওয়া হয়।

এই বৈরিতার ঢেউ পেরিয়ে দুজনে অবশ্য বন্ধু হয়ে যান আইপিএল মঞ্চে। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে সতীর্থ হিসাবে খেলে দুজনের বন্ধুত্ব হয়ে যায়। পরে হরভজন গোটা ঘটনায় মিডিয়ার ভুমিকা নিয়র প্ৰশ্ন তোলেন।

স্পোর্টসক্রীড়ায় হরভজন এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, “মুম্বই যখন নিলামে সাইমন্ডসকে কেনে, আমার মাথায় প্ৰথম চিন্তাই ছিল, কেন ওঁরা ওঁকে কিনল? কীভাবে আমি ওঁর সঙ্গে সময় কাটাব? তবে আমি যখন ড্রেসিংরুমে ঢুকি এন্ড্রু সম্পূর্ণ অন্য মানুষ ছিলেন। ভেবেছিলাম ও হয়ত রেগে থাকবে। মনে হয় ওঁর মনেও আমার মত চিন্তা এসেছিল।”

আরও পড়ুন: ম্যাককালামের বিদায়! এই পাঁচ তারকা KKR-এর পরবর্তী কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে

“এখনও একটা ঘটনার কথা মনে পড়ছে। যখন আমরা চন্ডীগড়ে ছিলাম। একটা ম্যাচে জেতার পরে আমরা আমার এক বন্ধুর বাড়িতে যাই। সেখানে আমরা প্ৰথমবার পরস্পরকে আলিঙ্গন করে দুজনেই ক্ষমা চেয়ে নিই অন্যের কাছে। আমরা চেয়েছিলাম, বন্ধুত্বপূর্ণ উপায়ে গোটা পর্বে ইতি ঘটুক। দুজনেই আসলে দুঃখিত ছিলাম। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে আমার অনেক সতীর্থ গোটা ঘটনার ছবি তুলে রেখেছিল।”

“রাতে আমরা একসঙ্গে খেতাম, বসতাম, গল্প করতাম। আমার এবং সাইমন্ডসের ঘটনা মিডিয়ায় অতিরঞ্জিত করে দেখানো হয়েছিল। যখন আমরা পরস্পরের সঙ্গে দেখা হয়েছিল, মনেই হয়নি দুজনের সম্পর্ক এতটা খারাপ ছিল।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Andrew symonds death harbhajan singh posts heartfelt messages for monkey gate scandal