scorecardresearch

সৌরভের নেতৃত্বে অতিমারীতেও কোটি কোটি আয়! বিশ্বে আরো একবার ধনীতম BCCI

করোনা পরিস্থিতি যখন কিছুটা উন্নত ছিল, তখন দেশের মাঠে সফলভাবে ইংল্যান্ড সিরিজও আয়োজন করেছে বিসিসিআই। সীমিত ওভারের ফরম্যাটে তো সীমিত সংখ্যক দর্শক নিয়েই খেলা হল।

সৌরভের নেতৃত্বে অতিমারীতেও কোটি কোটি আয়! বিশ্বে আরো একবার ধনীতম BCCI

বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট। গোটা বিশ্বেই ব্যাট-বলের যুদ্ধ ক্রমশ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। ফুটবল, ব্যাডমিন্টন, বেসবল, হকি, টেনিসের মাঝেও ক্রিকেট নিজের স্বতন্ত্র জায়গা তৈরি করতে সমর্থ হয়েছে।

বৈশ্বিক ভাবে ক্রিকেট খেলা পরিচালনা করে আইসিসি। প্রত্যেক ক্রিকেট খেলিয়ে দেশের আবার নিজস্ব জাতীয় ক্রিকেট বোর্ড ক্রিকেট খেলা নিয়ন্ত্রণ করে। নিজের দেশে ঘরোয়া ক্রিকেট আয়োজন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ, মহিলাদের ক্রিকেট, স্পন্সরশিপ, বড় টুর্নামেন্ট আয়োজন করে আইসিসির কাছ থেকে অর্থ আদায়, টিকিট বিক্রির টাকা- সবমিলিয়ে ক্রিকেটে অর্থের অভাব নেই।

আরো পড়ুন: সারার সঙ্গে সম্পর্ক কী, অবশেষে খোলসা করলেন KKR-এর গিল

বিশ্বের সব দেশের ক্রিকেট বোর্ডই নিজেদের আয়ের প্রেক্ষিতেই জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে বার্ষিক চুক্তি করে থাকে। আর প্রত্যেক বছরের ব্যালেন্স শিট মিলিয়েই দেখা যায় কোন বোর্ড কত অর্থ উপার্জন করেছে।

তবে করোনা অতিমারী ক্রিকেট অর্থনীতিতে ব্যাপক সমস্যার জন্ম দিয়েছে। একের পর এক বড় টুর্নামেন্ট বাতিল, দ্বিপাক্ষিক সিরিজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অর্থ উপার্জন করতে গিয়ে বিশ্বের ধনীতম ক্রিকেট বোর্ড রীতিমত হিমশিম খেয়েছে।

তবে অতিমারীতেও বিসিসিআই লাভের মুখ দেখেছে। বিশ্বের বাকি সব দেশের তুলনায় অর্থ উপার্জনে এখনো শীর্ষে। এই অতিমারীর মধ্যেও। গত বছর অতিমারীর কারণে ভারত একাধিক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে না পারলেও, আমিরশাহিতে আইপিএল আয়োজন করে বিশাল লাভের মুখ দেখেছে। আইপিএল স্পনসরশিপ এবং সম্প্রচার স্বত্ত্ব বাবদ বিশাল অর্থ পেয়ে থাকে বিসিসিআই। তাই বিদেশে কোনো দর্শক ছাড়াও আইপিএল আয়োজন করলেও সমস্যা হয়নি বিসিসিআইয়ের। লাভের অংক ঠিক ঘরে তুলেছে বোর্ড।

এছাড়াও করোনা পরিস্থিতি যখন কিছুটা উন্নত ছিল, তখন দেশের মাঠে সফলভাবে ইংল্যান্ড সিরিজও আয়োজন করেছে বিসিসিআই। সীমিত ওভারের ফরম্যাটে তো সীমিত সংখ্যক দর্শক নিয়েই খেলা হল। যদিও টেস্টে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলা হয়।

গত আর্থিক বছরে (২০২০/২১) কোন দেশের ক্রিকেট বোর্ড কত টাকা উপার্জন করল, দেখে নেওয়া যাক-
বিসিসিআই: ৩৭৩০ কোটি টাকা
ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া: ২৮৪৩ কোটি টাকা
ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড: ২১৩৫ কোটি টাকা
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড: ৮১১ কোটি টাকা
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড: ৮০২ কোটি টাকা
দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট বোর্ড: ৪৮৫ কোটি টাকা
নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড: ২১০ কোটি টাকা
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড: ১১৬ কোটি টাকা
জিম্বাবোয়ে ক্রিকেট বোর্ড: ১১৩ কোটি টাকা
শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড: ১০০ কোটি টাকা

প্রসঙ্গত, চলতি বছরে আইপিএল মাঝপথে ভেস্তে গিয়েছে বায়ো বাবলে সংক্রমণ হওয়ার কারণে। সেই সময়ে বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় স্বয়ং জানিয়েছিলেন, চলতি বছরে আইপিএল আয়োজন করতে না পারলে ৪০০০ কোটির বেশি টাকা ক্ষতি হবে বোর্ডের। তবে সমর্থকদের আশ্বস্ত করে শনিবারই বোর্ডের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের উইন্ডোতে বাকি আইপিএল আয়োজিত হবে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bcci earns 3730 crores in covid ravaged world highest among cricket playing nations