scorecardresearch

বড় খবর

কোহলিকে শো-কজ করতে মরিয়া ছিলেন সৌরভ! দাদা-বিরাট বিতর্কে নয়া মোড়

বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে আচমকাই সমস্যা বেড়ে গিয়েছে বিরাট কোহলি। আপাতত তিন ফরম্যাটেই নেতৃত্বে নেই কোহলি।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বনাম বিরাট কোহলি ইস্যুতে নয়া মোড়। সংবাদসংস্থা সূত্রের খবর, দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শুরুর আগে ডিসেম্বরে বিতর্কিত প্রেস কনফারেন্সের পরে কোহলিকে শো-কজ নোটিশ ধরাতে চেয়েছিলেন স্বয়ং বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে রওনা হওয়ার আগে কোহলি বিতর্কিতভাবে আক্রমণ করে বসেন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। কোহলি সরাসরি বলে দেন, টি২০ নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়ার আগে বোর্ডের তরফে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার কোনও প্রস্তাবই আসেনি। সেই সঙ্গে বিষ্ফোরক ভঙ্গিতে কোহলি আরও বলেন, একদিনের ক্রিকেটে তাঁকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার আগে বোর্ডের তরফে তাঁর সঙ্গে সেভাবে যোগাযোগ রক্ষা করা হয়নি।

আরও পড়ুন: কোহলির সরতেই টেস্ট নেতা হওয়ার দৌড়ে এই দুই সুপারস্টার! কী সিদ্ধান্ত নেবে BCCI

যে বক্তব্য আবার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বক্তব্যের বিপরীত। কোহলির আগেই সৌরভ ওয়ানডে নেতৃত্ব বদলের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে জানিয়েছিলেন, কোহলিকে অনুরোধ করা সত্ত্বেও টি২০-র নেতৃত্ব ছেড়ে দেন তারকা। আর সাদা বলের ক্রিকেটে দুই অধিনায়ক বোর্ড চায়নি, তাই ওয়ানডেতেও রোহিত শর্মাকে অধিনায়ক করা হয়েছে।

প্রকাশ্যে সাংবাদিক সম্মেলনে তাঁর বক্তব্য খন্ডন মোটেই ভালভাবে মেনে নেননি সৌরভ। যেভাবে বোর্ড এবং সৌরভের ব্যক্তিগত ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছিল সংশ্লিষ্ট ঘটনায়, তাতে মারাত্মক ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন বোর্ড সভাপতি। তারপরেই নাকি সৌরভ সরাসরি বিরাট কোহলিকে শো কজ নোটিশ দর্শাতে উদ্যোগী হয়েছিলেন। ভারতীয় ক্রিকেটে এমন ঘটনা কার্যত অভূতপূর্ব। সেই শো কজ নোটিশের ড্রাফট-ও তৈরি হয়ে গিয়েছিল। এমনটাই খবর।

আরও পড়ুন: ড্রেসিংরুমে আগেই নেতৃত্ব ত্যাগের ঘোষণা! সতীর্থদের কাছে বিশেষ অনুরোধও ছিল কোহলির

কোহলির মন্তব্যে মারাত্মক আহত হওয়ার পরে সৌরভ বোর্ড মেম্বারদের সঙ্গে একপ্রস্থ আলোচনাও সারেন। যদিও শেষ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শুরুর আগে বোর্ডের তরফে সেই নোটিশ আর পাঠানো হয়নি কোহলিকে। ইন্ডিয়া এহেড নিউজ-কে বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, “বোর্ড প্রেসিডেন্ট কোহলিকে শো কজ নোটিশ ধরানোর বিষয় কার্যত ঠিক করে ফেলেছিল।”

প্রসঙ্গত, কোহলি আইপিএল শুরুর আগেই জাতীয় দলের টি২০ নেতৃত্ব ছাড়ার কথা ঘোষণা করে দেন। তারপরে কোহলির অনিচ্ছা সত্ত্বেও ওয়ানডের নেতৃত্ব থেকে বোর্ডের সরিয়ে দেওয়া, বেনজির বিতর্কের জন্ম দিয়ে যায় ক্রিকেট মহলে। বোর্ড সভাপতি সৌরভের সঙ্গে কোহলির সম্পর্কের শীতলতা প্রকাশ্যে চলে আসে।

এরপরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট সিরিজ হারের পরেই কোহলি টেস্টের অধিনায়কত্বও ছেড়ে দেন। সেই সিদ্ধান্ত সরকারিভাবে জানানোর আগে কোহলি বোর্ড সচিব জয় শাহ-কে ফোন করেন। যদিও সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে নাকি কোনওরকম আলোচনা করার প্রয়োজন বোধ করেননি তিনি।

কোহলি টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়ার পরে সৌরভ অবশ্য প্রশংসা বরাদ্দ রেখেছেন মহাতারকার জন্য। কোহলির সরে দাঁড়ানোর পরে সৌরভ টুইট করে জানিয়েছেন, “বিরাটের অধিনায়কত্বে টিম ইন্ডিয়া তিন ফরম্যাটেই দ্রুত গতিতে এগিয়েছে। ওঁর সিদ্ধান্ত পুরোটাই ব্যক্তিগত। বোর্ড এই সিদ্ধান্তকে পুরোপুরি শ্রদ্ধা জানায়। জাতীয় দলকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার জন্য কোহলি দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য থাকবেন। একজন গ্রেট প্লেয়ার, দারুণ করেছ।”

টেস্টে ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক কোহলি। তারপরেই ৬০ টেস্টে ২৭ জয় নিয়ে এই তালিকায় দ্বিতীয় ধোনি। ২১ জয় নিয়ে সফলতমদের তালিকায় তৃতীয় সৌরভ।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bcci president sourav ganguly wanted to issue show cause notice to virat kohli according to reports