scorecardresearch

বড় খবর

ধৈর্য্যের বাঁধ ভাঙল প্রাক্তনদের! ক্লাব-বিনিয়োগকারী ইস্যুতে বিষ্ফোরক চিঠি লাল-হলুদে

ইস্টবেঙ্গলে এবার চিঠি গেল প্রাক্তনদের তৈরি কমিটির। দ্রুত দল গঠনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

ধৈর্য্যের বাঁধ ভাঙল প্রাক্তনদের! ক্লাব-বিনিয়োগকারী ইস্যুতে বিষ্ফোরক চিঠি লাল-হলুদে

পুরোনো সেই ডামাডোল নতুন অবতারে হাজির হয়েছে ইস্টবেঙ্গলে। বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে ইস্টবেঙ্গলের চুক্তি মীমাংসা না হওয়ায় ইস্টবেঙ্গলের দল গঠন থমকে। আর কয়েক সপ্তাহ পরেই কলকাতা লিগ, ডুরান্ড কাপ। তার আগে সমর্থকদের দুশ্চিন্তার অন্ত নেই।

শেয়ার সহ অন্যান্য ইস্যুতে ক্লাবের তরফে এখনও এগ্রিমেন্টে সই করা হয়নি। যদিও বলা হচ্ছে, চলতি সপ্তাহেই পুরো বিষয়টি চূড়ান্ত হয়ে যাবে। তবে ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের অবস্থা অনেকটা ঘরপোড়া গরুর মত। স্রেফ আশ্বাসবাণীতে চিঁড়ে ভিজছে না।

সমর্থকদের মতই এবার সেই বিলম্বিত ঘটনাপ্রবাহে বিরক্ত প্রাক্তনদের তৈরি কমিটি। সোমবার ক্লাব প্রাঙ্গণে প্রাক্তনদের তৈরি কমিটির কয়েকজন নিজেদের মধ্যে বৈঠক করেন। তারপরেই ক্লাবকে চিঠি দিতে বাধ্য হন তাঁরা।

আরও পড়ুন: চুক্তিপত্র চূড়ান্ত না হলে দল গঠনও পিছবে! ইস্টবেঙ্গলে ফের হাজির ডামাডোল আর সংশয়

ক্লাবের সম্পাদককে উদ্দেশ্যে করে লেখা সেই চিঠির বয়ান,
“আমরা প্রাক্তন খেলোয়াড়রা বেশ কয়েকদিন নিজেদের মধ্যে একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি এবং সেই আলোচনা থেকে একটি বিষয়ে উপনীত হয়েছি যেটা আপনাদের বলতে চাই। আমরা দেখেছি গত মাসের ২৫ তারিখ নবান্নতে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে আসন্ন আইএসএল খেলার জন্য ইস্টবেঙ্গল ক্লাব এবং ইমামি গ্রুপের মধ্যে একটি সমঝোতা তৈরি হয়। আর সত্যি বলতে কী, দুরদর্শনের পর্দায় সেদিনের সেই বৈঠক দেখা মাত্র আমাদের প্রাক্তন খেলোয়াড়দের মধ্যে আশার আলো তৈরি হয়েছিল। আমরা ভেবেছিলাম, এতদিন আগে থেকেই যখন এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে, তখন দুই বছরের অন্ধকার দিনগুলি পিছনে ফেলে নতুন আলোর পথে ফিরব আমরা।”

“কিন্তু সেদিনের থেকে আজ প্রায় ২৪-২৫ দিন অতিবাহিত হয়ে গেল, কোথায় সেই নতুন আলোর ঠিকানা? বিভিন্ন মাধ্যম থেকে যা খবর পেলাম, তাতে না চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে, না প্লেয়ার সই হয়েছে… এককথায় সদর্থক কিছুই হয়নি। এমতাবস্থায় আমরা চাই ক্লাব এবং ইনভেস্টর যৌথ উদ্যোগে এবছর ইস্টবেঙ্গল তার পুরোনো ঐতিহ্যকে ফিরিয়ে আনুক।”

ক্লাবকে পাঠানো বিষ্ফোরক সেই চিঠি প্রাক্তনীদের

“গত ৯ জুন থেকে ট্রান্সফার উইন্ডো খুলেছে। যেখানে আইএসএলের সমস্ত ক্লাব সেরা খেলোয়াড়দের সই করাতে ব্যস্ত, সেখানে ইস্টবেঙ্গল ক্লাব একদমই নিশ্চুপ। এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি, তাতে আইএসএল খেলার উপযুক্ত মানের খেলোয়াড় পাওয়া এককথায় অসম্ভব। তাহলে এবারেও কি গত দু বছরের পুনরাবৃত্তি?”

আরও পড়ুন: খালিদ জামিলের ইস্টবেঙ্গলের সুপার স্ট্রাইকার! ঝড় তুলতে ফের আসছেন কলকাতায়

“আমরা জানি, আমাদের সঙ্গে ক্লাবের কোটি কোটি সমর্থকরাও আমাদের মতই খুব চিন্তিত। আপনারা তখনই টিম নামান, যখন আইএসএল এর জন্য উপযুক্ত টিম তৈরি করতে পারবেন। আর সেটা যদি না পারেন, তাহলে লোকদেখানো টিম নামিয়ে ক্লাবের ইতিহাসকে কালিমালিপ্ত করবেন না। তাহলে কলকাতা লিগ, ডুরান্ড, শিল্ড এগুলোতে খেলুন। প্রসঙ্গত এখানে উল্লেখ্য যে, এই বছর ক্লাবের অনুরোধে আমরা প্রাক্তনরা ক্লাবের অনুরোধে আইলিগ এবং সন্তোষ ট্রফি দেখে কিছু সম্ভবনাময় খেলোয়াড়দের বাছাই করে ক্লাবকে খেলোয়াড়দের তালিকা তুলে দিয়েছিলাম। সেই ব্যাপারেও আমরা জানতে চাই, তার কী হল!”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: East bengal ex footballers committee emami investor agreement