‘ইউ উইল নেভার ওয়াক অ্যালোন’, শুভেচ্ছায় ভাসল ইউরোপ জয়ীরা

অসাধারণ বললেও কম বলা হয়। মাদ্রিদের ওয়ান্ডো মেট্রোপলিটানো স্টেডিয়াম ঐতিহাসিক রাতের স্বাক্ষী থাকল লিভারপুল। যুরগেন ক্লপের শিষ্য়রা ২-০ গোলে টটেনহ্যামকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেতাব ছিনিয়ে নিল।

By: Madrid  Updated: June 2, 2019, 01:00:36 PM

অসাধারণ বললেও কম বলা হয়। মাদ্রিদের ওয়ান্ডো মেট্রোপলিটানো স্টেডিয়াম ঐতিহাসিক রাতের স্বাক্ষী থাকল লিভারপুল। যুরগেন ক্লপের শিষ্য়রা ২-০ গোলে টটেনহ্যামকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেতাব ছিনিয়ে নিল। এই নিয়ে ছ’বার ইউরোপের সেরা দলের শিরোপা জুটল তাদের মাথায় ।২০০৪-০৫ মরসুমে শেষবার এই ট্রফি জিতেছিল লিভারপুল।


গতবার কাঁধের চোটের জন্য ফাইনালের মাঝপথেই চোখের জলে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল লিভারপুলের মিশরীয় স্টার মহম্মদ সালাহকে। রিয়াল মাদ্রিদের কাছে খেতাব হারানোর যন্ত্রণা তিনি ভুলে গেলেন এবার। তাঁর পেনাল্টিতে করা গোলেই লিভারপুল ম্যাচের ২ মিনিটের মধ্যে এগিয়েছিল। মিশরের প্রথম ফুটবলার হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের গোল করলেন সালাহ। এক মিনিট ৪৮ সেকেন্ডের মাথায় তাঁর করা এই গোলটিই টুর্নামেন্টের ফাইনালে দ্বিতীয় দ্রুততম গোল হিসেবে ইতিহাস লিখল। ২০০৫-এ লিভারপুলের বিরুদ্ধে  ৫১ সেকেন্ডের মাথায় এসি মিলানের পাওলো মালদিনি গোল করেছিলেন। সেটিই দ্রুততম হিসেবে রয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন: ধর্ষণের অভিযোগ উঠল নেইমারের বিরুদ্ধে, বাবা বলছেন সাজানো ঘটনা

ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজার তিন মিনিট আগে দিভেক ওরিগির গোলে লিভারপুল স্কোরলাইন ২-০ করে দেয়। জোয়েল মাতিপের পাস ডি-বক্সে র বাঁ-দিকে পেয়ে নিচু করা শটে বেলজিয়ামের ফরোয়ার্ড গোলের ঠিকানা লিখে দেন। ফের ১৪ বছর পর ফের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেতাব জেতে। লিভারপুলের এই জয়ের পর টুইটারে ভেসে গিয়েছে শুভেচ্ছাবার্তায়।

দেখে নিন শেষ ১০ বারের চ্যাম্পিয়নদের: ২০১৮-১৯ লিভারপুল২০১৭-১৮, রিয়াল মাদ্রিদ, ২০১৬-১৭: রিয়াল মাদ্রিদ, ২০১৫-১৬ রিয়াল মাদ্রিদ, ২০১৪-১৫ বার্সেলোনা, ২০১৩-১৪: রিয়াল মাদ্রিদ, ২০১২-১৩ বায়ার্ন মিউনিখ, ২০১১-১২: চেলসি ২০১০-১১: বার্সেলোনা, ২০০৯-১০ ইন্টার মিলান

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Sports News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Football fraternity lauds liverpools european conquest108434

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং