বিশ্বকাপ ফাইনালের টিকিট প্রত্যাখ্যান, স্ত্রী নাতাশার বিব্রতকর ঘটনা সামনে আনলেন গম্ভীর

২০১১-য় ভারতের ওয়ার্ল্ড কাপ জয়ের পিছনে অন্যতম স্থপতি ছিলেন গৌতম গম্ভীর। ফাইনালে তিনি ৯৭ রানের দুরন্ত ইনিংস উপহার দিয়েছিলেন।

২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল তর্কাতীতভাবে ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম স্মরণীয় মুহূর্ত। ধোনির নেতৃত্বে ভারতীয় দল ২৮ বছরের বিশ্বকাপ খরা কাটিয়ে ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। ঘরের মাঠে সেই প্ৰথমবার কোনও দল বিশ্বকাপ জেতার কৃতিত্ব অর্জন করে।

ভারতীয় ব্যাটিংয়ে তিন নম্বরে নামা গৌতম গম্ভীর গোটা টুর্নামেন্টে দুর্ধর্ষ ফর্মে খেলে যান। চারটে হাফসেঞ্চুরি হাঁকান তিনি। এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনাল এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনালে ফিফটি প্লাস স্কোর করে দলের ঐতিহাসিক জয়ের অন্যতম স্থপতি হয়ে উঠেছিলেন।

আরও পড়ুন: ধোনির পাশে সবসময় থাকব! অতীতের বিতর্ক মুছে ফেলতে বিরাট-বার্তা গম্ভীরের, দেখুন ভিডিও

সম্প্রতি এক চ্যাট শো-য়ে গম্ভীর জানান, বিশ্বকাপ ফাইনালে তাঁর স্ত্রী নাতাশা ওয়াংখেড়ের ফাইনালের টিকিট পাননি। ফাইনালের পরে গোটা দেশের সেলিব্রেশনে কার্যত হতবাক হয়ে যান তিনি। “মোহালিতে সেমিফাইনালে পাকিস্তান ম্যাচে জেতার পরে আমরা মুম্বইয়ে পৌঁছই। আমি ওঁকে (স্ত্রী) জিজ্ঞাসা করি, ‘তুমি কি ফাইনালে আসতে চাও?’ ওঁর জবাব ছিল- ভাবতে দাও আমাকে। তারপরে আমাকে জানায়- এটা কি সেরকম গুরুত্বপূর্ণ? অন্যান্য ম্যাচের মতই তো এটা।”

“ও বলে যায়- কে আবার মুম্বইয়ে যাওয়ার ঝক্কি নেবে! আমার ভাই-বোনেরা যাচ্ছে। ফাইনাল দেখতে ওঁর ভাই-বোনেরা এসেছিল। পরে গোটা দেশ যখন সেলিব্রেশনে মেতেছিল, তখন ওঁর সম্বিৎ ফেরে।” জানান গম্ভীর।

আরও পড়ুন: ব্যক্তিগত ঝামেলা ছিল না! কোহলির সঙ্গে IPL-এর কুখ্যাত ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন গম্ভীর

দিল্লির বিখ্যাত বাঁ হাতি আরও জানান, “নাতাশা ভারতের জয়ের পরে জিজ্ঞাসা করে, আরে গোটা দেশ কেন সেলিব্রেট করছে! আমি ওঁকে জানাই, ২৮ বছর পরে আমরা ওয়ার্ল্ড কাপ পেয়েছি। এখনও সেই পুরোনো প্রসঙ্গ উঠলে নাতাশা সেই অফার প্রত্যাখ্যান করায় বিব্রত বোধ করে।”

ফাইনালে গম্ভীরের দুরন্ত ৯৭ রান ওয়ানডের ইতিহাসে কোনও ভারতীয়র করা অন্যতম শ্রেষ্ঠ ইনিংস। শ্রীলঙ্কার ২৭৫ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ভারত শুরুতেই শেওয়াগ-শচীনকে হারিয়ে ৩১-২ হয়ে গিয়েছিল। সেখান থেকে কোহলির সঙ্গে দলকে উদ্ধার করেন গম্ভীর।

দুজনের পার্টনারশিপের পরে শেষমেশ ধোনির সেই ঐতিহাসিক ইনিংস। গম্ভীর মাত্র ৩ রানের জন্য শতরান হাতছাড়া করলেও ভারত ৬ উইকেটে সেরার সেরা জয় ছিনিয়ে নেয়।

বিশ্বকাপের কয়েক মাস পরেই বান্ধবী নাতাশাকে বিয়ে করে ফেলেন গম্ভীর। দম্পতির দুই সন্তান রয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Gautam gambhir wife refused 2011 world cup final ticket

Next Story
আমাকে বাদ দিতে পার! টানা ব্যর্থতায় প্রীতির পাঞ্জাবে বেনজির আর্জি জানান ম্যাক্সওয়েল