scorecardresearch

বড় খবর

গম্ভীর আমার বোলিংয়ে অস্বস্তিতে থাকত, বলে দিচ্ছেন মহম্মদ ইরফান

গম্ভীর থেকে বিরাট কোহলি- তাঁর বোলিংয়ে অস্বস্তি পড়ত ভারতীয় ব্যাটিংয়ের রথী মহারথীরা। পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকারের সময় এমনটাই জানিয়েছেন পাকিস্তানি পেসার মহম্মদ ইরফান।

Muhammad Irfan and Gautam Gambhir
গৌতম গম্ভীর ও মহম্মদ ইরফান (টুইটার)

গম্ভীরের কেরিয়ারে ইতি টেনেছেন তিনি-ই। এমনই জানিয়ে দিলেন পাকিস্তানের পেসার মহম্মদ ইরফান। এক সাক্ষাৎকারে দীর্ঘদেহী পাক পেসার বললেন, গম্ভীর কখনই আমার বিপক্ষে ব্যাটিং করতে স্বচ্ছন্দ ছিল না। পাকিস্তানের সঙ্গে গম্ভীরের টুইট যুদ্ধ নতুন কিছু নয়। কখনও মিঁয়াদাদ, কখনও আবার শাহিদ আফ্রিদিকে নিয়ম করে খোঁচা দেন টুইটারে। পাকিস্তানে সফররত শ্রীলঙ্কা দলের উপরে নিরাপত্তা বাড়াবাড়ি নিয়েও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি জাতীয় দলের বাঁ হাতি প্রাক্তন তারকা ওপেনার।

এবার গম্ভীরকে খোঁচা দিলেন মহম্মদ ইরফান। পাকিস্তানের সামা টিভিতে সাক্ষাৎকারে ২০১২ সালের দ্বিপাক্ষিক সিরিজের কথা মনে করিয়ে দিয়ে ইরফান জানিয়েছেন, “ভারতের বিপক্ষে যখন খেলতাম, ওঁরা মোটেও আমার বোলিংয়ে স্বস্তিতে থাকত না। ২০১২ সালে কোনও কোনও ভারতীয় ক্রিকেটার আমাকে এমনও বলেছিল, আমার উচ্চতার জন্য বলের পেস রিড করতে সমস্যায় পড়ত ওরা।”

 

আরও পড়ুন শ্রীলঙ্কা দলকে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে দিয়েছে পাকিস্তান, খোঁচা দিলেন গৌতম গম্ভীর

এরপরেই ৭ ফুট ১ ইঞ্চির পেসার গম্ভীরের প্রসঙ্গে বলেছেন, “গম্ভীর মোটেই আমাকে ম্যাচে অথবা নেট অনুশীলনে খেলতে পছন্দ করত না। আমার অনেক সময়েই মনে হয়েছে, ও আমার চোখে সরাসরি চোখও রাখত না। মনে আছে, ২০১২ সালের সীমিত ওভারের সিরিজে ওঁকে আমি চারবার আউট করেছিলাম। আমির বিপক্ষে ও সবসময়ে আতঙ্কে থাকত।”

ঘটনা হচ্ছে, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজের পরে গম্ভীর কেবলমাত্র একটি সিরিজে নির্বাচিত হয়েছিল। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার পরে সাদা বলের ক্রিকেটে আর ডাক মেলেনি দিল্লির তারকা ব্য়াটসম্যানের। আহমেদাবাদে গম্ভীর নিজের শেষ টি২০ খেলেছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে।

 

আরও পড়ুন ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের প্রতিবাদ আফ্রিদির, পাল্টা দিলেন গম্ভীর

অবশ্য় শুধু গম্ভীরই নন, বিরাট কোহলিও নাকি ইরফানকে খেলতে সমস্যায় পড়েছেন। এমনটা জানিয়েছেন পাক পেসার। সাক্ষাৎকারে বিরাটের প্রসঙ্গে ইরফান বলেছেন, “বিরাট আমাকে জানিয়েছিল, ওর ধারণা ছিল আমি ১৩০-১৩৫ এর আশেপাশে বোলিং করি। তবে নিজের পেস বাড়িয়েছিলাম আমি। ১৪৫ কিমি গতিতে আমাকে খেলতে সমস্যায় পড়েছিল বিরাট। একবার ও আমার একটা গুড লেংথ বল পুল করতে গিয়ে মিস করেছিল।”

সেই ম্যাচে বিরাট কোহলিকে নাকি পুল মারতে বারণ করেছিলেন স্বয়ং যুবরাজ। ইরফান জানাচ্ছেন, “যুবরাজ ক্রিজের অন্যপ্রান্তে ব্যাটিং করছিল। পাঞ্জাবীতে যুবরাজ বলেছিল, পুল করার পরিবর্তে যেন আমাকে কাট মারে। তবে যুবরাজের কথা না শুনেই তৃতীয় বলে পুল মারতে গিয়ে উইকেটের পিছনে ক্যাচ তুলেছিল বিরাট। যুবরাজ সেই সময় বলেছিল, এখন বাড়ি যাও।”

Read the full article in ENGLISH

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: I ended gautam gambhir career muhammad irfan