বড় খবর

মোদীর বিজেপিতে এবার ধোনি! বিশ্বকাপের মাঝে জন্মদিনেই বড় খবর

ICC Cricket World Cup 2019: বাইশ গজে ধোনি-ধামাকা অস্তমিত। গুজব খুব শীঘ্রই অবসর নিতে পারেন তিনি। তবে এসব কিছুই জল্পনার কথা।

ms dhoni with pm narendra modi
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সস্ত্রীক ধোনি (টুইটার)

সামনেই ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনে এবার কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে অভিনব পরিকল্পনা করতে চলেছে। কিংবদন্তি ক্রিকেটার যেদিন ৩৭ পেরিয়ে ৩৮-এ পা দিলেন সেদিনই তাঁকে নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়ে গেল। ক্রিকেট মাঠে নয়, এবার মহেন্দ্র সিং ধোনিকে দেখা যাবে রাজনীতির আঙিনায়। সর্বভারতীয় এক প্রচারমাধ্যম সূত্রে খবর, ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা নির্বাচনের ম্যাসকট হিসেবে ধোনিকে রাজনীতির ময়দানে নামানোর পরিকল্পনা রয়েছে ভাজপা-র।

বাইশ গজে ধোনি-ধামাকা অস্তমিত। গুজব খুব শীঘ্রই অবসর নিতে পারেন তিনি। তবে এসব কিছুই জল্পনার কথা। সরকারিভাবে ক্রিকেটকে বিদায় না জানানোয় ধোনি সরাসরি রাজনীতিতে যোগ দেবেন না, একথা বলাই বাহুল্য। তবে, ধোনি বিধানসভা ভোটে না দাঁড়ালেও, বিজেপি চাইছে, ধোনি তাঁদের হয়ে নির্বাচনে সক্রিয়ভাবে প্রচার করুন। ধোনি-মাহাত্ম্যেই ঝাড়খণ্ডের জেএমএম, আরজেডি কিংবা কংগ্রেসকে পিছনে ফেলতে মরিয়া বিজেপি।

আরও পড়ুন ধোনিকে বাঁচাতে ‘মাঠে’ সুন্দরী, ক্ষোভ উগরে দিলেন প্রকাশ্য়েই

এমনিতে, ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা নির্বাচন ডিসেম্বরে হওয়ার কথা। তবে মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানার সঙ্গে একসঙ্গে অক্টোবরেও এগিয়ে আনা হতে পারে ঝাড়খণ্ডের নির্বাচন। বিশ্বকাপের পরেই ধোনি অবসর নিতে পারেন, এমন সম্ভবনা রয়েছে। তাই বিজেপি-র নেতৃত্ব ধোনির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন বিশ্বকাপের মাঝেই। এমনটাই খবর, সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে। যদিও ধোনি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলতে নামার আগে সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন, এখনই অবসরের কোনও পরিকল্পনা নেই, তবুও হাল ছাড়ছেন না বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব।

বিজেপির এক শীর্ষ নেতা সেই সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ধোনি ক্রিকেট ছাড়ার পরে রাজনীতিতে আসার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন। তবে ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়ানোর পরেই রাজনীতিতে আসবেন তিনি। ধোনি নিজেই জানাবেন, তিনি কবে রাজনীতিতে যোগ দেবেন। ধোনির বিজেপি-যোগের ক্ষেত্রে বলা হচ্ছে, জাতীয়তাবাদী দল হিসেবে তিনি বিজেপিকেই পছন্দ করেন।

ঝাড়খণ্ডের বিজেপি নেতৃত্ব ধোনিকে নির্বাচনের প্রচারে পাওয়ার বিষয়ে আশাবাদী। তাঁদের আশা, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পরে ধোনি-ই নির্বাচনে তাঁদের তুরুপের তাস হতে চলেছেন। প্রসঙ্গত, গত বছরের ৫ আগস্ট বিজেপির সর্বভারতীয় প্রেসিডেন্ট অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গয়াল, সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক সরোজ সরোজ পাণ্ডে, দিল্লি রাজ্য সংস্থার সভাপতি মনোজ তিওয়ারি ধোনির বাড়িতে সম্পর্ক অভিযানে গিয়েছিলেন।

Web Title: Icc cricket world cup 2019 ms dhoni reportedly to do election campaign for bjp in jharkhand

Next Story
হিটম্যানের সেঞ্চুরিতে বিশ্বকাপে বিশ্বরেকর্ড, সিংহাসন খোয়াতে পারেন শচীনRohit Sharma breaks record for most centuries in a World Cup
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com