scorecardresearch

বড় খবর

IND v AUS: লজ্জার হারে সিরিজ শুরু কোহলিদের, ব্যাটে-বলে দুরমুশ করে জয় অজিদের

দল নির্বাচন নিয়ে এবার ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন কোহলি। বেনজিরভাবে তিন ওপেনারকে প্রথম একাদশে খেলানোর পাশাপাশিই বোলিংয়ে নভদীপ সাইনিকে বাদ দিয়েছিলেন।

KL Rahul and Shikhar Dhawan
ব্যাটে রান পেলেন ধাওয়ান-রাহুল (বিসিসিআই টুইটার)
লজ্জার হার শুরুর ম্যাচেই। শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর অস্ট্রেলিয়া যে এক নয়, তা প্রথম ম্যাচেই কোহলিদের বুঝিয়ে দিলেন ওয়ার্নার-ফিঞ্চরা। কার্যত দুরমুশ করে ভারতকে হারাল অজিরা। তা-ও আবার ১০ উইকেটে। ব্যাটে-বলে আধিপত্য দেখিয়েই কোহলিদের বধ করলেন স্মিথরা।

টার্গেট ছিল মাত্র ২৫৬। সেই টার্গেট যে অস্ট্রেলিয়া কোনও উইকেট না হারিয়েই তুলে দেবে, তা ভাবাল যায়নি। আড়াইশোর সামান্য বেশি টার্গেট অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার ফিঞ্চ ও ওয়ার্নার ওপেনিং জুটিতেই তুলে দিলেন। তা-ও আবার ৩৭.৪ ওভারে। দুই অজি ওপেনারই শতরান করলেন। ওয়ার্নার ১২৮ ও ফিঞ্চ ১১০ রানে ওয়াংখেড়েতে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে অস্ট্রেলিয়া টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন। ভারতের একাদশে ফেরানো হয় রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান এবং কেএল রাহুলকে। চাহাল ও নভদীপ সাইনি প্রথম একাদশে সুযোগ পাননি। অস্ট্রেলিয়া অন্য়দিকে, মার্নাস লাবুশানে প্রত্যাশা মতোই এদিন অস্ট্রেলিয়ার প্রথম একাদশে সুযোগ পেয়েছেন। অভিষেক ম্যাচে খেলতে নামলেন তিনি।

কোহলির দল নির্বাচনই ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছিল। তিনজন ওপেনারকেই এদিন প্রথম একাদশে খেলিয়ে দেন ক্যাপ্টেন। কেএল রাহুল ও ধাওয়ান রান পেলেও, চার নম্বরে নেমে যেতে হয়েছিল বিরাটকে। নিজের ব্যাটিং পজিশন ছেড়ে রান পাননি বিরাটও। অ্যাডাম জাম্পার কাছে কট অ্যান্ড বোল্ডের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয় তাঁকে।

তিন ওপেনার খেলানোয় মিডল অর্ডারে কেদার কিংবা মণীশ যাদবকে প্রথম একাদশ থেকে বাদ পড়তে হয়েছে। শিট অ্যাঙ্করের ভূমিকা নিয়ে ইনিংস টানার কাজে কেউ না থাকায় মাঝের ওভারে ভারতের উইকেট পতন অব্য়াহত থাকে।

ধাওয়ান শুরুতে নড়বড়ে থাকলেও শেষ পর্যন্ত খেলা ধরে নেন লোকেশ রাহুলের সঙ্গে। ১২১ রান যোগ করে যান দু-জনে। হাফসেঞ্চুরির আগে লোকেশ রাহুলকে ফেরান অ্যাস্টন অ্যাগার। রাহুল ফিরে যাওয়ার পরে বেশিক্ষণ টেকেননি ধাওয়ানও। ৯১ বলে ৭৪ রান করে কামিন্সের বলে আগারের হাতে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন ধাওয়ান। তাঁর ইনিংস সাজানো ৯টা বাউন্ডারি ও ১টা ওভার বাউন্ডারিতে।

এরপর অবশ্য ভারত কোনও পার্টনারশিপই ঠিকমতো গড়ে তুলতে পারেনি। পন্থ এদিনই ব্যর্থ। তাঁর অবদান মাত্র ২৮। জাদেজার সঙ্গে পন্থ ৪৯ রানের পার্টনারশিপ আশা জাগিয়েও বেশিদূর এগোতে পারল না। বিরাট কোহলি আউট হয়ে যাওয়ার পরে কার্যত নতজানু হয়ে আত্মসমর্পণ করতে হয় ভারতীয় ব্যাটিংকে। শেষদিকে কুলদীপ-শামি ২৬ রান স্কোরবোর্ডে যোগ না করলে ভারত আড়াইশোর গণ্ডি পেরোত কিনা, সন্দেহ।

সবমিলিয়ে টি২০ বিশ্বকাপের আগে ভারতকে অস্ট্রেলিয়া ওয়ার্নিং দিয়ে গেল বছরের শুরুতেই। তা-ও আবার প্রথম ম্যাচে।

আরও পড়ুন দল নির্বাচনেই গলদ! কোহলির ভুলের মাশুল গুনল ভারতীয় ব্যাটিং

আরও পড়ুন ব্যাটে চরম ব্যর্থ! মাঠের বাইরেও বেনজিরভাবে ‘আক্রান্ত’ বিরাট

আরও পড়ুন গর্ভবতী হওয়ার পরে প্রত্যাবর্তন সানিয়ার! মন কাড়লেন আবার

Read live updates in ENGLISH

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: India vs australia 1st odi mumbai match report