scorecardresearch

বিরাটকে বাদ দাও, আরসিবিকে বিস্ফোরক পরামর্শ গম্ভীরের

এলিমিনেটর ম্যাচে সকলকে চমকে দিয়ে দেবদূত পাডিক্কলের সঙ্গে ওপেন করতে নেমেছিলেন বিরাট কোহলি নিজে। একাদশে ফিঞ্চ থাকা সত্ত্বেও কোহলির এমন নিজে ওপেন করার পরীক্ষা অবশ্য একদম ব্যর্থ হয়।

বিরাটকে বাদ দাও, আরসিবিকে বিস্ফোরক পরামর্শ গম্ভীরের

সাফল্যের জন্য আরসিবি-র উচিত কোহলিকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া। সানরাইজার্সের কাছে হেরে এলিমিনেটরের প্রথম ম্যাচেই ছিটকে গিয়েছে আরসিবি। সেই হারের কয়েকঘন্টার মধ্যেই বিস্ফোরণ ঘটালেন গৌতম গম্ভীর।

ইএসপিএন ক্রিকইনফো-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গম্ভীর সাফ জানিয়ে দিলেন, “আট বছর অনেক লম্বা সময়। ধোনি, রোহিত, কোহলির কথা আমরা বলি। তবে সবাই এক নয়। ধোনি তিনবার দলকে চ্যাম্পিয়ন করেছে। রোহিত চারবার কাপ জিতেছে। এই কারণেই ওরা দীর্ঘ সময় ধরে নেতৃত্ব দিচ্ছে। অশ্বিনকে আবার দেখা যাক। দুবার নেতৃত্বে সুযোগ পেয়েও কিছু করতে পারেনি। সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। রোহিত ও যদি সাফল্য না দিতে পারত, আমি নিশ্চিত ওকেও বাদ দেওয়া হত। এক এক ব্যক্তির জন্য বিভিন্ন নিয়ম হওয়া ঠিক নয়।”

আরো পড়ুন: অকারণে আউট দেওয়া হল ওয়ার্নারকে, কোহলিদের বিরুদ্ধে তুঙ্গে উঠল বিতর্ক

গোটা দল নয়। আরসিবির পরাজয়ের দায়ভার কোহলিকেই নিতে হবে। এমনটাই মনে করছেন গম্ভীর। তিনি বলেছেন, “একদম উপর থেকে এই হারের দায় নিতে হবে। কোনো সাপোর্ট স্টাফ, ম্যানেজমেন্ট নয় নেতাকেই দোষ নিতে হবে। কারণ তুমি-ই ক্যাপ্টেন। দলের সাফল্য যখন কৃতিত্ব নাও, হারের দায়-ও বর্তায় বই কি!”

দিল্লির কাছে হারের পরেও প্লে অফে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল ব্যাঙ্গালোর। সেই সময় কোহলি জানিয়েছিলেন, ভালো ব্রান্ডের ক্রিকেট খেলার জন্যই তাঁরা প্লে অফে খেলার যোগ্য। কোহলির সেই মন্তব্য ধরেই এবার আক্রমণ শানালেন দু-বার আইপিএল জেতা গম্ভীর, “আরসিবির আসলে প্লে অফে খেলার যোগ্যতাই ছিল না। শেষ চার-পাঁচ ম্যাচ দেখলেই বোঝা যাবে। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে সুপার ওভারেও যেমন ওরা খুব ভাগ্যবান যে নভদীপ দুরন্ত বোলিং করেছিল। ব্যাট হোক বা বল- কোনো বিভাগেই ওরা সেরকমভাবে খেলতে পারেনি। কোহলি নিজে অনেক পরিণত। জাতীয় দল হোক বা অন্য কোনো টিম- যে দলেই খেলেছে সেই দলেই নেতৃত্বের দায়িত্ব পেয়েছে। তবে সাফল্যটাই দিনের শেষে শেষ কথা। খেলার নিয়মই এমন।”

এলিমিনেটর ম্যাচে সকলকে চমকে দিয়ে দেবদূত পাডিক্কলের সঙ্গে ওপেন করতে নেমেছিলেন বিরাট কোহলি নিজে। একাদশে ফিঞ্চ থাকা সত্ত্বেও কোহলির এমন নিজে ওপেন করার পরীক্ষা অবশ্য একদম ব্যর্থ হয়। মাত্র ৬ রান করে আউট হয়ে যান কোহলি। গম্ভীর এই হঠকারী সিদ্ধান্ত নিয়েও প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন, “যদি ও সারা টুর্নামেন্ট জুড়েই ওপেন করত তাহলে এই সিদ্ধান্ত নিয়ে বলার কিছু ছিল না। যদি বিরাট ওপেনই করতে চায়, তাহলে মিডল অর্ডারে অন্য একজনকে প্রথম একাদশে রাখতে পারত। পরিকল্পনা অনুযায়ী নিলামে দল বাছা হয়ে থাকে। শেষমেশ সেই বিরাট, এবিতেই বিষয়টা শেষ হয়ে যায়।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ipl 2020 gautam gambhir slams virat kohli for failure as captain in rcb