বড় খবর

আরসিবি নেতৃত্বও ছাড়ছেন কোহলি! সামনে এল বোর্ড কর্তার বিস্ফোরক বক্তব্য

আইপিএলে কোহলি ক্যাপ্টেন হিসাবে একদমই ব্যর্থ। ২০১৩ সালে আরসিবি নেতা হওয়ার পরে একবারও দলকে চ্যাম্পিয়ন করতে পারেননি।

জাতীয় টি২০ দলের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর মত চাঞ্চল্যকর ঘোষণা করার পরেই কোহলির কানের পাশে নতুন করে কোরাস শুরু হয়ে গেল, আরসিবি-র নেতৃত্ব কবে ছাড়ছেন! বলা হচ্ছে, জাতীয় দলের মতই আইপিএলে নেতৃত্বের বোঝা কম নয়! কোহলি নিজেই ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্টের কথা উল্লেখ করেছেন নিজের বিদায়ী বার্তায়। তাহলে আরসিবি নয় কেন। আইপিএলে নেতৃত্ব দেওয়ার প্রেসারও তো কম নয়!

জানা যাচ্ছে, চলতি সংস্করণে আরসিবিকে আইপিএল জেতাতে না পারলে সেখান থেকেও প্রস্থান করবেন তিনি। বোর্ডের এক আধিকারিক সংবাদসংস্থাকে বলে দিয়েছেন, “এটা কীরকম ঘোষণা! ও কি নিজের ওয়ার্কলোড সমস্যা মিটিয়ে ফেলল? কোথাও একটা পড়ছিলাম, অতিমারির পর ভারত মাত্র আটটা টি২০ খেলেছে। এর থেকে বেশি আইপিএলের ম্যাচে নামতে হয়! তাছাড়া আইপিএলে নেতৃত্ব মোটেও সহজ নয়। প্রত্যেক সংস্করণেই হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হচ্ছে। জয়ের এই তীব্র চাহিদা ব্যাখ্যাতীত। তাহলে কি আরসিবি নেতৃত্ব থেকেই কোহলি সরছেন? জাতীয় টেস্ট, ওয়ানডে এবং আইপিএলে আরসিবির নেতৃত্ব দিয়ে ওয়ার্কলোড সমস্যা মেটাতে পারবে না ও।”

আরও পড়ুন: পারলে ওয়ানডের নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেখাও! সৌরভের বোর্ডকেই যেন সরাসরি চ্যালেঞ্জ কোহলির

এমনকি এক প্রখ্যাত ধারাভাষ্যকার কোহলির খবর প্রকাশ্যে আসার পরেই টুইট করেন, “ভেবেছিলাম কোহলি আরসিবি নেতৃত্বও ছেড়ে দেবে।”

ব্যাটসম্যান হিসেবে সাফল্য আকাশছোঁয়া। একের পর এক রেকর্ড ভেঙেছেন, গড়েছেন। তবে সেই কীর্তি দিয়ে নেতৃত্বের দাবিদার কী করে হবেন! নেতা হিসেবে সাফল্য কোথায়! এমন প্রশ্নই করছে ক্রিকেট মহল। টি২০ বিশ্বকাপের একমাস আগেই নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণার টাইমিংও যথার্থ হল কিনা, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে।

আরও পড়ুন: রোহিতকে সরাতে বলেন কোহলি! কুৎসিত আবদারে ক্ষিপ্ত বোর্ডও, প্রকাশ্যে বিস্ফোরক রিপোর্ট

যদি ভারতকে টি২০ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন করে ছাড়তে পারেন, সেক্ষেত্রে নায়কের মর্যাদা পাবেন কোহলি। তবে টুর্নামেন্টে ব্যর্থ হলেই গোটা দেশ কোহলির অপসারণ দাবি করে চিল চিৎকার জুড়ে দিত। সেই আশঙ্কাতেই নাকি কোহলির আগাম ঘোষণা। তবে আইপিএলের ঠিক আগে জাতীয় দলের নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণায় আরসিবি সিংহাসনও যে টলমল হয়ে পড়ল, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

আইপিএলে কোহলি ক্যাপ্টেন হিসাবে একদমই ব্যর্থ। ২০১৩ সালে আরসিবি নেতা হওয়ার পরে একবারও দলকে চ্যাম্পিয়ন করতে পারেননি। মাত্র একবার ফাইনালে তুলেছিলেন দলকে। গত বছরই আরসিবি ২০১৬ সালের পর প্রথমবার প্লে অফে যোগ্যতা অর্জন করেছিল। তবে গত বছরেই আবার কোহলির ব্যাঙ্গালোর পাঁচটা পরপর হার হজমও করে। ২০১৭ এবং ২০১৯-এ কোহলির দল লিগ তালিকায় একদম শেষে ফিনিশ করে। ২০১৮-য় আরসিবি ষষ্ঠ হয়।

আরও পড়ুন: কোহলি মূল্যবান সম্পদ! নেতৃত্ব ছাড়ার বিরাট ঘোষণায় টুপি খোলা কুর্নিশ সৌরভের

২০১৬-য় ব্লকবাস্টার মরশুমে কোহলি ৯৭৩ রান করেছিল। তারপরে ৫০০ প্লাস রান কোহলির ব্যাটে দেখা গিয়েছে মাত্র একবার, ২০১৮-য়। চলতি আইপিএলে কোহলির গড় মাত্র ৩৩। হাফসেঞ্চুরি মাত্র একটা।

কোহলির নেতৃত্বের অন্যতম বড় সমালোচনা অবশ্যই দেশকে একবারও আইসিসি খেতাব না জেতাতে পারায়।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Ipl 2021 virat kohli likely to quit rcb captaincy if he fails to win title

Next Story
কোহলি সরতেই হট ফেভারিট বুমরা, জাতীয় দলে পেতে পারেন গুরুদায়িত্ব
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com