আগামী বছরে নতুন আইপিএল! বিশ্বকাপের মাঝেই গোপনে বড় সিদ্ধান্ত ফাঁস

আগেও ২০১১ সালে ১০ দলের লিগ করার উদ্যোগ নিয়েছিল আইপিএলের গর্ভনিং কাউন্সিল। কোচি টাস্কার্স এবং পুণে সুপারজায়ান্টসকে নেওয়া হয়েছিল সেবার।

By: Updated: Jul 14, 2019, 6:03:53 PM

বদলে যাচ্ছে আইপিএল। আর আটদলীয় টুর্নামেন্ট নয়। বরং আগামী আইপিএলে দেখা যাবে দশ দলের টুর্নামেন্ট। সর্বভারতীয় একাধিক প্রচারমাধ্যম সূত্রে খবর এমনটাই। ২০২০ সালেই দেখা যাবে নতুন দুই দল। ফ্র্যাঞ্চাইজি দল হওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি নিচ্ছে আদানি গ্রুপ (আহমেদাবাদ), আরপি গোয়েঙ্কা গ্রুপ (পুণে) এবং টাটা গ্রুপ (ঝাড়খণ্ড ও রাঁচি)। এছাড়াও একাধিক কর্পোরেট কোম্পানি আইপিএলে দল নামাতে আগ্রহী।

অবশ্য় এবারেও প্রথম নয়। আগেও ২০১১ সালে ১০ দলের লিগ করার উদ্যোগ নিয়েছিল আইপিএলের গর্ভনিং কাউন্সিল। কোচি টাস্কার্স এবং পুণে সুপারজায়ান্টসকে নেওয়া হয়েছিল সেবার। যদিও বিতর্কে জড়িয়ে আইপিএল থেকে সরে যায় দুই ফ্র্য়াঞ্চাইজি-ই। তারপরে ফের একবার একই উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। জানা যাচ্ছে, ইতিমধ্যেই লন্ডনে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক এবং কার্যকরী কমিটির সদস্যদের একপ্রস্থ বৈঠক হয়েছে। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, ক্রিকেটের সবথেকে গ্ল্যামারাস টুর্নামেন্টে আরও দুই দলের অন্তর্ভূক্তি ঘটলে তাতে লাভবানই হবে লিগ।

আরও পড়ুন বিশ্বকাপ ফাইনালে এগিয়ে কোন দল, জানিয়ে দিলেন কোহলি

বোর্ডের সিইও রাহুল জহুরি টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে সেই বৈঠকের বিষয়ে কনফার্ম করেছেন। যদিও তিনি বিস্তারিত জানাতে অস্বীকার করেছেন। তবে বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, পুরো পরিকল্পনা তৈরি। আপাতত উপযুক্ত টেন্ডার ডেকে প্রক্রিয়াকরণ চালু করতে হবে। আগামী বছরে ১০ দলের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ হওয়া একপ্রকার পাকা।

আরও জানানো হয়েছে, ২০১০ সালে আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজি স্বত্ত্বাধিকার পেতে উদ্যোগী হয়েছিলেন। সেবারে হয়নি। তবে এবারে তিনি সেই শহরের জন্যই বিড জমা দিচ্ছেন। পাশাপাশি আইএসএল-এ দল কেনার পরে আইপিএলেও দল কিনতে চাইছেন সঞ্জীব গোয়েঙ্কা গ্রুপ। যদিও আগেও তাঁদের আইপিএল সংসারে দেখা গিয়েছে।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Sports News in Bangla by following us on Twitter and Facebook


Title: IPL to be of team teams from next edition onwards: আগামী বছরে নতুন আইপিএল! বিশ্বকাপের মাঝেই গোপনে বড় সিদ্ধান্ত ফাঁস

Advertisement