পুরস্কার মূল্যে IPL-এর ধারেকাছেই নেই PSL! টাকার অঙ্কেই বাজিমাত BCCI-এর

টাকার অঙ্কে অনেক এগিয়ে আইপিএল। বিশ্বের বাকি লিগগুলো থেকে কার্যত ধরাছোঁয়ার বাইরে ভারতের জনপ্রিয় ক্রিকেট লিগ।

আইপিএল এবং পাকিস্তান সুপার লিগ বিশ্বের জনপ্রিয়তম দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ। তবে পুরস্কার মূল্য যদি বিচার্য হয়, তাহলে আইপিএল বিশ্বের বাকি লিগগুলোর থেকে কয়েক যোজন এগিয়ে।আইপিএল নিলামে গত মাসেই সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজি ৫০০ কোটির বেশি টাকা খরচ করেছে।

ফেব্রুয়ারির ২৭ তারিখ আবার পিএসএলের যবনিকাপাত ঘটেছে। শাহিন শাহ আফ্রিদির নেতৃত্বাধীন লাহোর কালানদার্স পিএসএল খেতাব জিতে নিয়েছে। আর এই সংস্করণের ট্রফি জয়ের জন্য লাহোর কালানদার্স পুরস্কার বাবদ পেয়েছে ৮০ মিলিয়ন পাকিস্তান মুদ্রা (ভারতীয় অঙ্কে যা ৩.৪০ কোটি টাকা)।

আরও পড়ুন: অবিক্রিত রায়না কি IPL এর এই দলে! জোরালো দাবিতে তোলপাড়

ঘটনাচক্রে, গত সংস্করণের আইপিএল জয়ের জন্য সিএসকে পুরস্কার বাবদ পেয়েছিল ২০ কোটি টাকা। এর অর্থ আইপিএল জয়ী দলের পুরস্কার মূল্য পাকিস্তান সুপার লিগের পাঁচগুণেরও বেশি।

টাকার অঙ্কে ভারতের লিগের থেকে অনেক পিছিয়ে থাকলেও, পাকিস্তান সুপার লিগ অবশ্য ভাল অঙ্কের মুনাফা করে চলেছে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে পাক বোর্ডের চেয়ারম্যান রামিজ রাজা জানিয়েছেন, “কোনও সন্দেহ নেই পাকিস্তান সুপার লিগ দারুণ সাফল্য পেয়েছে। আর এর অন্যতম কারণ হল লাহোর এবং করাচিতে ভালো দর্শক সমাগম হওয়া। নিজের গোটা ক্রিকেট কেরিয়ারে এরকম উদ্দীপনা নিয়ে প্রবল উৎসাহী ক্রিকেট জনগন চোখে পড়েনি, বিশেষ করে লাহোরে।”

আরও পড়ুন: কেউ কেনেনি নিলামে! অবিক্রিত রায়নার বৈপ্লবিক আর্জি সৌরভের বোর্ডের কাছে, দেখুন ভিডিও

“পাকিস্তান সুপার লিগের মুনাফা ৭ গুণ বেড়েছে আগের থেকে। প্রত্যেক ফ্র্যাঞ্চাইজি ৯০০ মিলিয়ন পাক মুদ্রা লাভ করতে পেরেছে। পরের সংস্করণে সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজির হোম গ্রাউন্ডে খেলা নিয়ে যেতে পারব আশা করি।”

ব্যক্তিগত পুরস্কার মূল্য তুলনায় পিএসএল যথেষ্ট ভালো। টুর্নামেন্টের সেরা বোলার, ব্যাটসম্যান, ফিল্ডার, উঠতি তারকারা প্রত্যেকে পান ১০ লক্ষ করে টাকা। আইপিএলে ক্যাটাগরির সংখ্যা অনেক বেশি, পার্পল ক্যাপ, অরেঞ্জ ক্যাপ, মোস্ট ভ্যালুয়েবল ক্রিকেটার, এমার্জিং ক্রিকেটার, মোস্ট সিক্সেস এওয়ার্ড, পাওয়ার প্লে এওয়ার্ড বিজয়ীরা প্রত্যেকে পান ১০ লক্ষ টাকা।

ব্যক্তিগত পুরস্কার মূল্যে আইপিএলের সমান হওয়ার চেষ্টা করলেও আইপিএলে তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানাধিকারী দলও প্রাইজ মানি পায়। গত মরশুমেই যেমন আরসিবি এবং দিল্লি ক্যাপিটালস দুই দলই পেয়েছে ৮.৭৫ কোটি টাকা। পিএসএলে কিন্তু চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দল বাদে বাকি কোনো দলকে পুরস্কৃত করা হয় না। ঘটনাচক্রে, ব্যক্তিগত পুরস্কার মূল্য মোট মিলিয়ে আরসিবি এবং দিল্লি যা পুরস্কার (১৭.৫ কোটি) পেয়েছে তা পিএসএলের মোট পুরস্কার মূল্যের (৭.৫ কোটি) থেকেও আড়াই গুণ বেশি।

এদিকে, আইপিএলের আসর বসতে চলেছে মার্চের ২৬ তারিখ থেকে। ফাইনাল হবে ২৯ মে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ipl vs psl which tournament has bigger prize money t20 franchise league

Next Story
অবিক্রিত রায়না কি IPL এর এই দলে! জোরালো দাবিতে তোলপাড়