বড় খবর

অচেনা ইস্টবেঙ্গল আর আত্মবিশ্বাসী মোহনবাগান! ঐতিহাসিক ডার্বিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

কোভিড অতিমারী। ডার্বির ইতিহাসে এই প্রথমবার ভাইরাসের সংক্রমণের আশঙ্কায় দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলা হবে। প্রিয় সমর্থকদের উদ্দেশে লিভারপুল কিংবদন্তির বার্তা দিয়েছেন ইস্টবেঙ্গল কোচ রবি ফাউলার।

করোনা, কিংবদন্তি মারাদোনার মৃত্য ৪৮ ঘন্টা আগে। এসব কিছু পিছনে ফেলে গোয়ার ব্যাম্বোলিন স্টেডিয়ামে শুক্রবার সন্ধেয় মুখোমুখি হচ্ছে এটিকে মোহনবাগান এবং ইস্টবেঙ্গল। দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামেই নতুন চেহারার দুই দল নামছে একে অন্যের বিরুদ্ধে।
এটিকে এবং মোহনবাগান গত মরশুমে যেখানে ফিনিশ করেছিল, সেখান থেকেই দুই দল একসঙ্গে যাত্রা শুরু করেছে প্রথম ম্যাচে জয় দিয়ে, কেরালা ব্লাস্টার্সকে হারিয়ে। এটিকেএমবি-র ফুটবলার সহ কোচিং স্টাফ পরিচিত হলেও, ইস্টবেঙ্গল আবার একদমই অচেনা। কোচিংয়ে লিভারপুল এবং ইংলিশ লেজেন্ড রবি ফাউলার। ফাউলারের কেরিয়ারে ডার্বির ঘনঘটা। সে লিভারপুল বনাম এভার্টনের মার্সেইসে সাইড ডার্বিতে গোল করা হোক বা ম্যাঞ্চেস্টার ডার্বিতে ম্যান সিটির হয়ে একের পর এক গোল করে যাওয়া। ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড বনাম লিডস ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে পেনিনেস ডার্বিতে গোল রয়েছে লাল হলুদের ব্রিটিশ কোচের।
ফাউলারের এই ডার্বি অভিজ্ঞতাই হাবাসের মত সফলতম আইএএএল কোচের বিরুদ্ধে ভরসা যোগাচ্ছে ইস্ট সমর্থকদের মনে।
ফাউলার যেমন ম্যাচের আগেই বলে দিয়েছেন, “ডার্বি বড় ম্যাচ। সমর্থকদের কাছে ডার্বির মাহাত্ম্যই আলাদা। সেই সঙ্গে ফুটবলারদের কাছে ডার্বি মানেই অনেক কিছু। তবে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হল এসব বিষয় মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে খেলার জন্য প্রস্তুত হওয়া। এই ধরনের ম্যাচে আবেগ গ্রাস করে। তাই সহজেই কেউ ট্যাকল করে ফেলে। সব বিষয়েই বাড়তি উৎসাহ দেখায় সবাই। তাই মগজ দিয়ে ফুটবলটা খেলতে হবে।”
ফাউলার ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন, স্কটিশ ডিফেন্ডার ড্যানি ফক্স দলের অধিনায়ক হবেন। ডেপুটি হচ্ছেন নরউইচ সিটির প্রাক্তন ডিফেন্ডার আন্থনি পিলকিংটন। ফক্স এবং স্কট নেভিলকে নিয়ে গড়া ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্স বেশ শক্তপোক্ত। মাঝমাঠে থাকবেন পিলকিংটন এবং এরণ আমাদি হলোওয়ে। দেশিদের মধ্যে প্রথম একাদশে শিকে ছিড়তে চলেছে লিংডো, মহম্মদ রফিকের। আপফ্রন্টে থাকবে জেজে বলবন্ত জুটি।
নিজেদের সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে ভালমতো ওয়াকিবহাল ফাউলার, “শুরুর ম্যাচ টাই আমাদের কাছে ভীষণ কঠিন হতে চলেছে। প্রস্তুতি অনুযায়ী আমরা সব দলের থেকেই পিছিয়ে। খেলার দিক থেকেও একই অবস্থা। এটিকেএমবি ইতিমধ্যেই এই টুর্নামেন্টে খেলে ফেলেছে। সেই হিসাবে আমরা একদমই নতুন। তবে কেউই জানে না, আমরা কেমন দল, কীভাবে খেলি। এখন এটা আমাদের দায়িত্ব মাঠে নেমে প্রথম ম্যাচেই ছাপ ফেলা। এটা আমরা করতেই পারি। কারণ দলের স্পিরিট তুঙ্গে। প্রত্যেকেই মানসিকভাবে দারুণ জায়গায় রয়েছে। শুরুর জন্য এখন আমাদের তর সইছে না।”
এটিকেএমবি প্রথম ম্যাচে জয়ের পর অনেক আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলতে নামবে। আপফ্রন্টে এডু গার্সিয়া, ডেভিড উইলিয়ামস জুটি, ডিফেন্সে সন্দেশ জিংঘান, তিরির জন্যই ডার্বিতে ফেভারিট এটিকেএমবি। মহারণের আগে সুপারস্টার স্ট্রাইকার রয় কৃষ্ণ জানিয়ে দিয়েছেন, “ইস্টবেঙ্গলের ডিফেন্সের বিরুদ্ধে কখনো খেলিনি, এটাই আমার পক্ষে যাবে। কারণ ওদের পুরোপুরি জানলেও মানসিকভাবে চাপ নিয়ে ফেলতাম।” কৃষ্ণ-র সঙ্গে জুটি বাঁধতে মরিয়া ডেভিড উইলিয়ামসও। তিনি সাফ বলেছেনে, “গতবারের মত এবারেও আমাদের জুটি আশা করি ক্লিক করে যাবে। তিন পয়েন্টের জন্য আমরা ঝাঁপাব।”
মরণ বাঁচন ম্যাচে হাবাসের দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে আগেই ছিটকে গিয়েছেন মাইকেল সুসাইরাজের মতো তারকা। তার অভাব হাবাস কীভাবে সামাল দেন, সেটাই দেখার।
ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Isl 2020 unknown east bengal to face confident atk mohun bagan in a historical derby

Next Story
আমাদের কেউ সেভাবে চেনে না, মাঠেই দেখা হবে! হুঙ্কার ডার্বি মাস্টারের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com