ইস্টবেঙ্গলে ফ্লপ চিমা ফের ISL-এ! দু-বছরের বিরাট চুক্তিতে সই চ্যাম্পিয়ন দলে

ইস্টবেঙ্গলের জার্সিতে সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেনি। তবে চিমা এখন জামশেদপুরের ভরসার অস্ত্র।

ইস্টবেঙ্গলে ফ্লপ চিমা ফের ISL-এ! দু-বছরের বিরাট চুক্তিতে সই চ্যাম্পিয়ন দলে

ইস্টবেঙ্গলে মানোলো দিয়াজের কোচিংয়ে ডাহা ফ্লপ। তবে দ্বিতীয় ট্রান্সফার উইন্ডোতে জামশেদপুরের জার্সিতে নজরকাড়া পারফর্মার হিসাবে নিজেকে মেলে ধরেছিলেন। সেই ড্যানিয়েল চিমা চুকুর সঙ্গেই আরও দু-বছরের চুক্তি বর্ধিত করল রেড মিনার্সরা।

ইস্টবেঙ্গলের হয়ে আইএসএল-এ নাম লেখানো চিমা আগামী দু-বছর খেলবেন জামশেদপুরের হয়েই। জামশেদপুর গত আইএসএলে লিগ উইনার্স শিল্ড জিতেছিল। সেই জয়ের অন্যতম নায়ক চিমা। জামশেদপুরের হয়ে ১১ ম্যাচে তাঁর নামের পাশে ৭ গোল। একটা এসিস্ট। চিমার দুর্ধর্ষ ফর্মের ওপরে ভরসা করেই জামশেদপুর টানা সাতটা ম্যাচ জিতেছিল। ক্লাবের ইতিহাসে অন্যতম দ্রুততম গোলের মালিকও হন চিমা। প্রায় প্রত্যেক ম্যাচেই গোল করে যান তারকা।

তার আগে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে ১০ ম্যাচ খেলে সেভাবে নজর কাড়তে পারেননি। ওড়িশা এফসির বিরুদ্ধে কেবলমাত্র জোড়া গোল করেছিলেন। যদিও সেই ম্যাচ হারতে হয় লাল-হলুদকে।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গলকে ‘না’ বলে বেঙ্গালুরুতেই কেন সই! রবিবারই মুখ খুলে আসল কারণ জানালেন সন্দেশ

জামশেদপুরের হয়ে সই করে চিমা জানিয়ে দেন, “ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি বাড়াতে পারাটা আমার কাছে বেশ সম্মানের। গত বছর বায়ো বাবলে থেকে খেলতে হয়েছিল আমাদের। এবার সমর্থকদের সামনে খেলতে পারব, ভেবেই আলাদা আনন্দ হচ্ছে। জামশেদপুরে সই করাটা অনেকটা ঘরে ফেরার মত অনুভূতি। ক্লাবের প্লেয়ার, সাপোর্ট স্টাফ, পরিকাঠামো সবই দুর্ধর্ষ। এখন জয়ের মানসিকতা ধরে রাখাই চ্যালেঞ্জ। বাকি প্লেয়ারদের সঙ্গে প্রি-সিজনে যোগ দেওয়ার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।”

চিমার ফুটবল কেরিয়ার শুরু ফেসটাক স্পোর্টসের হয়ে। তারপরে লোনে খেলতে চলে যান বুসদর ইউনাইটেডের হয়ে। এরপরে নরওয়ের দল লিনে একবছর খেলার পরে মলদে এফকে-তে সই করেন তিনি। আর মলদেকে প্রথমবার লিগ জিততে দারুণভাবে সাহায্য করেন। ২০১১-য় ২৪ ম্যাচে পাঁচ গোল করেন তারকা। ইউরোপা লিগে স্টুটগার্টের বিপক্ষে ক্লাবের ২-০ জয়ে দুরন্ত গোল করার কীর্তিও রয়েছে তাঁর।

আরও পড়ুন: ডগলাস, ক্রিশ্চিয়ানোর মতই ইস্টবেঙ্গলে সুপারস্টার হবেন এই ব্রাজিলীয়! আশায় বুক বাঁধছে লাল-হলুদ জনতা

ইউরোপীয় ফুটবলে খেলার অগাধ অভিজ্ঞতা নিয়েই ভারতে পা রাখছেন তারকা স্ট্রাইকার। নরওয়ের হেভিওয়েট ক্লাব মলদে এফকের হয়ে প্রথম পর্বে খেলেন ২০১০-২০১৫। সেই সময়ে ক্লাবকে তিনবার (২০১১, ২০১৩, ২০১৪) চ্যাম্পিয়ন করেছেন সেদেশের লিগে। ৩০ বছরের তারকা মলদে এফকে’র জার্সিতে লিগের টপ স্কোরারও হয়েছিলেন। ২০১১-২০১৪য় মলদে-র কোচ ছিলেন ম্যান ইউতে কিছুদিন আগেও কোচিং করানো ওলে জায়ার সোলজায়ার। তাঁর কোচিংয়েই তুখোড় ফর্মে খেলেছেন নরওয়ের লিগে।

খেলেছেন চীনা সুপার লিগের জায়ান্ট সাংহাই জেনজিনয়ের হয়ে। সেখান থেকে চিমা সই করেন পোল্যান্ডের নামি ক্লাব লেগিয়া ওয়ারশ-তে। তারপরে ফের একবার পুরোনো ক্লাব মলদে-তে ফিরে যান ২০১৮-য়। সেই মরশুমে ১৭ ম্যাচে ৬ গোলও করেন। এরপরে ২০১৯ মরশুম শেষ পর্যন্ত লোনে খেলতে চলে যান চিনের লাভা স্প্রিংয়ের হয়ে। ২০২০-তে চিনা ক্লাব তাইঝৌ ইউয়ান্ডার সঙ্গে দু বছরের চুক্তি করেন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Isl east bengal flop daniel chima chukwu extends his stay at jamshedpur fc

Next Story
কৃষ্ণ-সুনীল জুটিতে কি ঝড় উঠবে ISL-এ! শেষমেষ মুখ খুললেন ক্যাপ্টেন ছেত্রী