IPL 2019: মঈনের হাতে বেধড়ক মার খেয়ে কেন কান্না, মুখ খুললেন কুলদীপ

ইডেনে আরসিবি-র মইন আলি কুলদীপ যাদবের এক ওভার থেকে ২৭ রান নিয়েছিলেন। সেই ম্যাচে চার ওভারে কুলদীপ দেন ৫৯ রান।

By: New Delhi  Updated: May 17, 2019, 02:46:55 PM

আইপিএল শেষ। এবার মিশন বিশ্বকাপ। তবে আইপিএল-এর হ্যাং ওভার এখনও কাটছে না। বিভিন্ন আলোচনায় উঠে আসছে আইপিএল প্রসঙ্গ। কুলদীপের সৌজন্যে ফের একবার শিরোনামে ক্রোড়পতি ক্রিকেট লিগ। কিছুদিন আগেই ধোনির বিরুদ্ধে মন্তব্য করে ক্ষমা চাইতে হয়েছিল তারকা ক্রিকেটারকে। আর সেই রেশ কাটতে না কাটতেই কুলদীপ ব্যাখ্যা দিলেন মঈন আলির ব্যাটে বেধড়ক প্রহার হজম করে কেন কেঁদে ফেলেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন

ভারতীয় ক্রিকেটারকে এবার কোচ করল বাংলাদেশ বোর্ড, বিশ্বকাপের আগে নয়া চমক

আরসিবি বনাম কেকেআর ম্যাচে সংহারক মূর্তিতে ধরা দিয়েছিলেন মঈন আলি। ওপেন করতে নেমে একের পর এক বোলারদের ছাতু করছিলেন। সেই সময়েই কুলদীপ যাদবের এক ওভারে ২৭ রান নিয়েছিলেন মঈন আলি। নিজের ৪ ওভারের কোটায় কুলদীপ খরচ করেছিলেন মোট ৫৯ রান। তবে মঈনের সেই ওভারের পরেই কুলদীপকে দেখা গিয়েছিল কান্নায় ভেঙে পড়তে।

তরুণ স্পিনারকে অবশ্য শান্ত করে এগিয়ে এসেছিলেন সতীর্থরা। বৃহস্পতিবার জাতীয় এক টেলিভিশন চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে কুলদীপ সেই কান্নার কারণ জানাতে গিয়ে বলেন, “ওই সময়ে আমি নেতিবাচক হয়ে যাইনি, তবে ইতিবাচকও ছিলাম না। ওই ওভারে আমাকে যখন প্রচণ্ড মারা হয়, তখন হতাশ হয়ে পড়েছিলাম। আমি মঈনকে আউট করার পরিকল্পনা করেছিলাম। তবে পরিকল্পনা অনুযায়ী বল করতে পারিনি। ওই ওভারের জন্যই ম্যাচটা আমাদের হাত থেকে ফস্কে যায়। সেই কারণেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলাম।”

গোটা আইপিএলেই কুলদীপ ভাল খেলতে পারেননি। অতীতের ছায়া মনে হয়েছে তাঁকে। বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে কুলদীপের ওই একটা ওভারেই ম্যাচ কেকেআরের হাত থেকে বেরিয়ে যায়। কেকেআর প্লে অফে উঠতে ব্যর্থ হওয়ার পরে কুলদীপ কেকেআর সমর্থকদের কাছে ভিলেন হয়ে যান।

যদিও অনেক প্রাক্তন ক্রিকেটারই বিশ্বকাপে কুলদীপে আস্থা রাখতে বলেছেন। তরুণ চায়নাম্যান বোলার বিশ্বকাপে তাঁর উপরে আস্থার প্রতিদান দিতে পারেন কিনা, সেটাই দেখার।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Sports News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Kuldeep yadav reveals reason why he wept after humiliation in the hands of moeen ali

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং