scorecardresearch

১০ বছর নিষিদ্ধ পাক ক্রিকেটার নাসির জামশেদ

পাকিস্তানের ব্যাটসম্যান নাসির জামশেদকে ১০ বছরের জন্য ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করল পিসিবি (পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড)। ২০১৬-১৭ মরসুমে পিএসএল (পাকিস্তান সুপার লিগ) চলাকালীন স্পট-ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে অভিযুক্ত হলেন বাঁ-হাতি ওপেনিং ব্যাটসম্যান।

১০ বছর নিষিদ্ধ পাক ক্রিকেটার নাসির জামশেদ
১০ বছর নিষিদ্ধ পাক ক্রিকেটার নাসির জামশেদ। (ফাইল ছবি)

পাকিস্তানের ব্যাটসম্যান নাসির জামশেদকে ১০ বছরের জন্য ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করল পিসিবি (পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড)। ২০১৬-১৭ মরসুমে পিএসএল (পাকিস্তান সুপার লিগ) চলাকালীন স্পট-ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে অভিযুক্ত হলেন বাঁ-হাতি ওপেনিং ব্যাটসম্যান।

জামশেদের বিষয়টা খতিয়ে দেখার জন্য একটি স্বাধীন দুর্নীতি দমন ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছিল। তাদের রিপোর্ট বলছে যে, পিসিবি-র দুর্নীতি দমন কোডের পাঁচটি ধারা লঙ্ঘন করেছেন তিনি। তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল শুক্রবার অর্থাৎ আজ এই রায় শুনিয়েছে। ১০ বছরের জন্য কোনও রকমের ক্রিকেটই খেলতে পারবেন না জামশেদ। এমনকি আজীবন পাকিস্তানের ক্রীড়া প্রশাসনেও তিনি আসতে পারবেন না।

পিসিবি-র আইনজীবী তাফাজুল রিজভি এদিন লাহোরে পিসিবি-র সদরদফতরে বললেন, “কিছু কিছু মামলা জিতেও আনন্দিত হওয়া যায় না। এটা সেরকমই। স্পট-ফিক্সিংয়ের জন্য একজন ক্রিকেটার নিজের কেরিয়ারটাই শেষ করে ফেলল।” রিজভির কথায় স্পষ্ট যে, জামশেদ ছিলেন ফিক্সিংয়ের হোতা। বুকিদের কথা মতো তিনিই খেলোয়াড়দের নিয়োগ করতেন।

আরও পড়ুন: ইন্দো-পাক ম্যাচে ফিক্সিংয়ের ছায়া, আকমলকে পিসিবি-র সমন

এই নিয়ে শেষ দু’বছরে জামশেদ দ্বিতীয়বার নির্বাসিত হলেন ক্রিকেট থেকে। ২০১৭-র ডিসেম্বরে পিএসএল-এর স্পট-ফিক্সিং ইস্যুতে পিসিবি-র দুর্নীতি দমন শাখা তদন্ত করছিল। তখন অসহযোগিতা করেন জামশেদ। এর জেরেই এক বছর নির্বাসনে পাঠানো হয়েছিল তাঁকে। ২০১৭-র ফেব্রুয়ারিতে তিনি গ্রেফতারও হন ম্যাচ গড়াপেটা করে।

পিসিবি যে তিনজন ক্রিকেটারের তদন্ত করছিল তাঁর মধ্যে একজন ছিলেন এই জামশেদ। চলতি বছর এপ্রিলেই জামশেদের নিষেধাজ্ঞা উঠে গিয়েছিল। এরপর তাঁর বিরুদ্ধে সাতটি ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছিল পিসিবি-র দুর্নীতি দমন শাখা। তিনি অভিযোগ অস্বীকার করাতেই এই ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়। প্রাক্তন বিচারক ফজল-এ-মিরান চৌহান, প্রাক্তন ক্রিকেটার আকিব জাভেদ ও সুপ্রিম কোর্টের উকিল শাহজাইব মাসুদকে নিয়ে স্বাধীন ট্রাইব্যুনাল গঠিত হয়। এই  সময়ের মধ্যে শরজিল খান, খালিদ লতিফ, মহম্মদ ইরফান, শাহজাইব হাসান ও মহম্মদ নাওয়াজ এই স্পট-ফিক্সিংয়ে মুখ পুড়িয়ে নির্বাসনে গিয়েছেন।

জামশেদ দেশের জার্সিতে ৪৮টি ওয়ান-ডে, ১৮টি টি-২০ ও দুটি টেস্ট খেলেছেন। পঞ্চাশ ওভারের ফর্ম্যাটে সাফল্য পান এই ওপেনার। ৩১.৫১-এর গড়ে ১৪১৮ রান করেছেন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Pakistan cricketer nasir jamshed banned for ten years for spot fixing