scorecardresearch

বড় খবর

টাকার অঙ্কে সমস্ত রেকর্ড তছনছ IPL-এর! গালে টোল ফেলে মুখ খুললেন এবার প্রীতিও

৪৪ হাজার কোটি টাকায় আইপিএলের মিডিয়া স্বত্ত্ব বিক্রি করেছে বিসিসিআই। তা দেখেই চওড়া হাসি প্রীতি জিন্টার।

টাকার অঙ্কে সমস্ত রেকর্ড তছনছ IPL-এর! গালে টোল ফেলে মুখ খুললেন এবার প্রীতিও

সোমবার অতীতের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দেওয়া নিশ্চিত করে ফেলেছে আইপিএল। ২০২৩-২০২৭ উইন্ডোর জন্য মেগা টুর্নামেন্টের মিডিয়া রাইটস বিক্রি হয়েছে ৪৪ হাজার কোটি টাকায়। আর আইপিএলের এই অবিশ্বাস্য উত্তরণ দেখে চমকৃত কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মালকিন প্রীতি জিন্টাও।

আইপিএলের শুরু থেকেই রয়েছেন বলিউডের নামি অভিনেত্রী। পাঞ্জাব কিংসের মালিক হিসাবে টুর্নামেন্টের চড়াই উতরাই প্রত্যক্ষ করেছেন। তবে খারাপ সময়েও আইপিএলের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি থেমে থাকেনি।

আগামী পাঁচ বছরের জন্য আইপিএলের ডিজিটাল এবং টিভি রাইটস বিক্রি হয়েছে ৪৪ হাজার কোটিতে। এখনও গ্রুপ-সি এবং ডি প্যাকেজ বিক্রি নির্ধারিত হয়নি। সবমিলিয়ে, আইপিএলের পুরো মিডিয়া রাইটসের অঙ্ক যে ৫০ হাজার কোটি পেরিয়ে যাবে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

আরও পড়ুন: IPL-এর গর্বে বেফাঁস মন্তব্য সৌরভের! ছিঃ ছিঃ করে উঠল ক্রিকেট মহল

আইপিএল বিশাল অঙ্কের মিডিয়া রাইটস হস্তগত করে পিছনে ফেলে দিয়েছে দুনিয়াজোড়া একাধিক বিখ্যাত ক্রীড়া লিগকে- ইপিএল, এনবিএ, এমএলবি। প্রত্যেক ম্যাচ থেকে প্রাপ্ত আয়ের নিরিখে আইপিএলের আগে একমাত্র রয়েছে এনএফএল। আর লভ্যাংশের এমন বিপুল অঙ্ক দেখে চরম উৎফুল্ল স্বয়ং প্রীতি জিন্টাও। জানিয়ে দিলেন, ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’-র এই কীর্তিতে তিনি উচ্ছ্বসিত।

প্রীতি জিন্টার টুইট, “আইপিএল মিডিয়া রাইটসের বিষয়ে বিসিসিআইয়ের ঘোষণার অপেক্ষায় রয়েছি। কী দুরন্ত একটা ক্রীড়া সম্পদই না হয়ে উঠেছে আইপিএল। হাজার হাজার লোকের কর্মসংস্থান ঘটছে, বিশ্ব জুড়ে কোটি কোটি মানুষকে বিনোদন জোগাচ্ছে। অসামান্য উত্তরণে বাকি সমস্ত লিগকেও পিছনে ফেলে দিচ্ছে। এটা পুরোপুরি ভারতের তৈরি।”

জুনে ইলারা ক্যাপিটালসের রিপোর্ট অনুযায়ী, আগামী দশ বছরে আইপিএলের দর্শক সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে বার্ষিক ১৪ শতাংশ হারে। সবমিলিয়ে টাকার অঙ্কে বাকি সমস্ত লিগ সত্যি বামন হয়ে গিয়েছে!

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Preity zinta eleated as bcci sells record breaking ipl media rights