scorecardresearch

বড় খবর

IPL-এর আলোতেও বড্ড অন্ধকার! দৈনিক ১০০ টাকায় রঞ্জি খেলছেন পন্থের রাজ্যের ক্রিকেটাররা

গত ১২ মাস ধরেই উত্তরাখণ্ডের হয়ে রঞ্জি খেলা তারকাদের দৈনিক ১০০ টাকা দেওয়া হচ্ছে।

IPL-এর আলোতেও বড্ড অন্ধকার! দৈনিক ১০০ টাকায় রঞ্জি খেলছেন পন্থের রাজ্যের ক্রিকেটাররা

রঞ্জিতে লজ্জার ইতিহাস গড়ে মুম্বইয়ের কাছে ৭২৫ রানে হার হজম করতে হয়েছে উত্তরাখন্ডকে। তবে এই হারের থেকেও বড়সড় লজ্জা লুকিয়ে রয়েছে অন্যত্র। জানা যাচ্ছে উত্তরাখণ্ডের ক্রিকেট দলের সকলকে দৈনিক ১০০ টাকা করে ভাতা দেওয়া হচ্ছে, যা সরকারি আইন অনুযায়ী একজন প্রশিক্ষিত শ্রমিকের দৈনিক উপার্জনের ৮ ভাগেরও কম। শুধু তাই নয়, বকেয়া বেতনের দাবি জানিয়েছিলেন দলের এক সিনিয়র ক্রিকেটার। তাঁকে টিম ম্যানেজার সরাসরি জোম্যাটো-সুইগি থেকে খাবার অর্ডার করতে বলে দেন। ঋষভ পন্থের মত সুপারস্টার যে রাজ্য থেকে উঠে এসেছেন, সেই রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার এমন ঘটনা চমকে দেওয়ার মত।

এমনকি ভয়ঙ্কর তথ্য জানা যাচ্ছে নিউজ-৯’এর রিপোর্ট থেকে। প্রত্যেক উত্তরাখণ্ডের ক্রিকেটারদের ডিএ ১৫০০ টাকা। কখনও সখনও সেই অঙ্ক নেমে দাঁড়ায় ১০০০ টাকায়। বিশেষ কোনও ক্ষেত্রে সেই অঙ্ক আবার বেড়ে দাঁড়ায় ২০০০ টাকায়। তবে শেষ এক বছর ধরে ক্রিকেটারদের দৈনিক ১০০ টাকায় খেলতে হচ্ছে।

আরও পড়ুন: মাঠেই কার্তিককে চূড়ান্ত অপমান হার্দিকের! দেখে ফুঁসে উঠলেন নেহরাও, দেখুন ভিডিও

নিউজ-৯’এর কাছে উত্তরাখণ্ড ক্রিকেট সংস্থার অডিট রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে চাঞ্চল্যকর ভাবে বলা হচ্ছে, টুর্নামেন্ট এবং ট্রায়াল ক্যাম্পের খরচ ধরে ক্রিকেটারদের দৈনিক খাবার এবং কেটারিংয়ের জন্য খরচের হিসাব দেখানো হয়েছে ১ কোটি ৭৪ লক্ষ ৭৩৪৬ টাকা। ক্রিকেটারদের দৈনিক ভাতা হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে ৪৯ লক্ষ ৫৮ হাজার ৭৫০ টাকা। স্রেফ কলার খরচ ধরা হয়েছে ৩৫ লক্ষ টাকা। জলের বোতলের হিসেব দেখানো হয়েছে ২২ লক্ষ টাকা।

এত টাকা আদায় করা সত্ত্বেও ক্রিকেটারদের বকেয়া মেটানো হয়নি। সিনিয়র এক ক্রিকেটার বকেয়া টাকার কথা বলা হলে তাঁকে বলা হয়, “আরে ভাই, একই প্রশ্ন কেন বারবার করো? টাকা পেয়ে যাবে। ততক্ষণ তোমরা সুইগি/জোম্যাটো থেকে খাবার অর্ডার করে নাও।”

আরও পড়ুন: ধোনি নন, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতের প্ৰথম টি২০ ক্যাপ্টেন ছিলেন এই মহাতারকা

বলা হচ্ছে, এই পুরো ঘটনাই হল হিমশৈলের চূড়ামাত্র। রাজ্য ক্রিকেট সংস্থায় নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ আগেই উঠেছিল। এবার সেই দুর্নীতির সঙ্গেই উঠছে মানসিক-শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগও।

মুম্বইয়ের কাছে রেকর্ড রানে হারের পরেই তাই ক্রিকেট লজ্জা নয়, বরং ক্রিকেট প্রশাসনে দুর্নীতির ঘটনা বেআব্রু হয়ে গিয়েছে সর্বসমক্ষে। এমন অবস্থায় ক্রিকেটাররা যে নিজেদের সেরাটা দিতে পারবেন না, এ আর আশ্চর্য কীসের!

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ranji trophy 2022 uttarakhand cricketers being paid 100 rs daily defeat against mumbai