বড় খবর

বিদেশেও এবার ধোনির বাগানের সবজি! কোটি কোটি ডলার ঢুকবে মহাতারকার পকেটে

রাঁচির রিং রোডের পাশে সিম্বো গ্রামে ধোনির ফার্ম হাউস। ধোনির ফার্ম হাউসে যে কৃষিজাত সবজি চাষ করা হয় তা হল- স্ট্রবেরি, বাঁধাকপি, টম্যাটো, ব্রকোলি, মটরশুঁটি, পেঁপে।

ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন। এবার পুরোদস্তুর নিজের অন্যান্য প্যাশন ফলো করছেন তিনি। তারই প্রাথমিক ধাপ হিসাবে ধোনি ‘কৃষক’ হয়ে উঠেছেন। জৈব চাষে মন দিয়েছেন। পাশাপাশি ডেয়ারি এবং কদকনাথ মুরগিও প্রতিপালন করছেন। এই খবর পুরোনো।

নতুন ঘটনা হল, ইন্ডিয়া টুডে-র এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ধোনির চাষজাত দ্রব্য এবার পৌঁছে যাবে বিদেশেও। দুবাইয়ে এবার ধোনির ফার্মহাউসের সবজি পাওয়া যাবে। ঝাড়খণ্ডের রাজ্য কৃষি দফতর খোদ মহাতারকা ক্রিকেটারের কৃষিজাত পণ্য দুবাইয়ে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিয়েছে।

আরো পড়ুন: বর্ষবরণের রাতে রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়ে চমকালেন রোহিতরা, বিল ফাঁস করলেন সমর্থক

সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে যে এজেন্সির মাধ্যমে এই পণ্য বণ্টন করা হবে, তাও নির্ধারিত হয়ে গিয়েছে। শুধু আরব আমিরশাহি কিংবা দুবাইতেই নয় গালফ ভুক্ত অন্যান্য দেশেও এই পণ্য সরবরাহ করবে সংশ্লিষ্ট এজেন্সি।

আর এত বড় ব্যবসায়িক সাফল্যের জন্য ব্র্যান্ড ধোনি অনেকটাই দায়ী। ব্র্যান্ড ধোনি শুধুমাত্র দেশেও নয়, বিদেশেও সমানভাবে আকর্ষণীয়। এখনো ধোনি শুধুমাত্র বিজ্ঞাপণ এবং এন্ডোর্সমেন্ট থেকে কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেন। তাঁর ফার্মহাউসের সবজির বিক্রির ক্ষেত্রেও এই ব্র্যান্ড ধোনি।

রাঁচির রিং রোডের পাশে সিম্বো গ্রামে ধোনির ফার্ম হাউস। ধোনির ফার্ম হাউসে যে কৃষিজাত সবজি চাষ করা হয় তা হল- স্ট্রবেরি, বাঁধাকপি, টম্যাটো, ব্রকোলি, মটরশুঁটি, পেঁপে এবং হক। ১০ বিঘার বেশি জমি নিয়ে এই ফার্মহাউস। পুরো ফার্মহাউস অবশ্য অনেকটাই বড় প্রায় ৪৩ বিঘা। এমনকি রাঁচিতেই ধোনির বাগানের বাঁধাকপি, টম্যাটো এবং মটরশুঁটির মারাত্মক চাহিদা রয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Vegetables from ms dhonis farmhouse to be available in dubai 277238i

Next Story
বর্ষবরণের রাতে রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়ে চমকালেন রোহিতরা, বিল ফাঁস করলেন সমর্থক
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com