বড় খবর
রবিবারই শুরু মহারণ! কেমন হচ্ছে IPL-এর আট ফ্র্যাঞ্চাইজির সেরা একাদশ, জানুন

সৌরভ না ধোনি, সেরার সেরা ক্যাপ্টেন কে! মুখ খুলে মুকুট পরালেন শেওয়াগ

সৌরভ এবং ধোনি-দুজনেই ভারতের অন্যতম সফল নেতা। একের পর এক কীর্তি গড়েছেন জাতীয় দলের ক্যাপ্টেন হিসাবে। দুজনের মধ্যে সেরা বেছে নিলেন শেওয়াগ।

ভারতীয় ক্রিকেটে সর্বকালের সেরা অধিনায়ক কে? এই নিয়ে চিরন্তন আলোচনা চলছেই। পতৌদি থেকে কপিল দেব, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় থেকে মহেন্দ্র সিং ধোনি, হালের বিরাট কোহলিও নেতা হিসেবে নতুন নতুন শৃঙ্গে নিয়ে গিয়েছেন দেশকে। বীরেন্দ্র শেওয়াগ এবার বেছে নিলেন তাঁর চোখে সেরা ক্যাপ্টেনের নাম। তিনি দুজন নেতার অধীনেই ফুল ফুটিয়েছেন জাতীয় দলে- সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং মহেন্দ্র সিং ধোনি।

সৌরভ এবং ধোনি- দুজনেই ভারতীয় ক্রিকেটকে সাফল্যের শীর্ষে নিয়ে গিয়েছেন। সৌরভ যেমন ২০০৩-এ জাতীয় দলকে বিশ্বকাপ জয়ের দোরগোড়ায় নিয়ে গিয়েছিলেন। ফাইনালে তুলেছেন দলকে। তেমন ধোনি আবার দেশকে তিনটে আইসিসি খেতাব জিতিয়েছেন। দুই ফরম্যাটে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন করেছেন। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের স্বাদও দিয়েছেন ভারতকে।

আরও পড়ুন: ব্যাট হাতে তান্ডব শার্দুলের! ভাঙলেন বোথামের ঐতিহাসিক রেকর্ডও, তুলকালাম ড্রেসিংরুম

সাফল্যের নিরিখে ধোনি সৌরভের থেকে এগিয়ে থাকলেও, শেওয়াগের চোখে অবশ্য সেরা সৌরভই। আরজে রৌনকের ইউটিউব শো ‘১৩ জবাব নাহি’-তে শেওয়াগ বলে দিয়েছেন, “ক্যাপ্টেন হিসাবে দুজনেই গ্রেট। তবে আমার মতে দুজনের মধ্যে এগিয়ে সৌরভই। কারণ সৌরভ একদম জিরো থেকে শুরু করে নতুন ক্রিকেটার তুলে এনে পুরো ইউনিটই নতুন করে সাজিয়েছিল। বিদেশেই যে টেস্ট জিততে পারি আমরা, সেটা সৌরভই দেখিয়েছিল। আমরা সৌরভের ক্যাপ্টেনশিপে বিদেশে কিছু টেস্ট যেমন ড্র করি, তেমন অনেক ম্যাচ জিতেছি।”

এরপরে শেওয়াগের আরও সংযোজন, “সৌরভের গড়ে দেওয়া দলটাই পেয়েছিল ধোনি। সেই অর্থে ও কিছুটা ভাগ্যবানও বটে। তাই দুজনেই গ্রেট। তবে এগিয়ে সৌরভ।”

আরও পড়ুন: ইংল্যান্ড ওপেনারের কুকীর্তি দেখেই খাপ্পা কোহলি, সরাসরি অভিযোগ আম্পায়ারকে, দেখুন ভিডিও

নজফগড়ের নবাব বাইশগজে ছক্কার ঝড় তুলতেন নিয়মিত। কেরিয়ারের অধিকাংশ সেঞ্চুরি করেছেন ছক্কা হাঁকিয়ে। একবার ১৯৯ রানে অপরাজিত থাকা অবস্থায় শেওয়াগ সিঙ্গল নিতে অস্বীকার করেছিলেন। সেই বিষয়েও শেওয়াগ আলোকপাত করেছেন।

পুরো ঘটনা খোলসা করে বিধ্বংসী ওপেনার জানিয়েছেন, “এটা বহু পুরোনো ঘটনা। ২০০৮-এ আমরা শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়েছিলাম। এখনও মনে রয়েছে মুথাইয়া মুরলিধরণ বোলিং করছিল। নন স্ট্রাইকিং এন্ডে ছিল ইশান্ত শর্মা। আমি সিঙ্গল নিলেই ইশান্ত শর্মাকে মুরলি আউট করে দিত। তাই ইশান্তকে বাঁচানোর জন্যই সিঙ্গল নিতে চাইনি। তবে মুরলিধরণ ক্লোজ ফিল্ডিং সাজিয়েছিল। সৌভাগ্যক্রমে ওভারের শেষ বলে ফিল্ডারদের মধ্যে গ্যাপে বল ঠেলে রান নিতে পেরেছিলাম। ইশান্ত বেশিক্ষণ খেলতে পারেনি। আমিও পরের ওভারে আউট হয়ে যাই।”

সেই চ্যাট শো-এ শেওয়াগ আরও জানালেন, তাঁর প্রিয় মাঠ চন্ডীগড়ের মোহালি। “মোহালি আমার পছন্দের ভেন্যু। ওখানে সবসময়েই খেলতে পছন্দ করতাম। মাঠে নামলেই যেন অনুভব করতাম, বড় রান অপেক্ষা করে আছে। তাছাড়া ড্রেসিংরুমে বড়বড় সোফা রয়েছে। আউট হয়ে গেলে ওখানে রিল্যাক্স করা যেত। ভারতের বাইরে মেলবোর্ন আমার খুব পছন্দের। ওখানকার খাবার আমার ফেভারিট। মোহালির মতই ওখানে অনুভব করতাম বড় রান করতে পারব।” বলেছেন ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা ওপেনার।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Virender sehwag picks sourav ganguly as his favorite in comparison with ms dhoni as skipper

Next Story
ব্যাট হাতে তান্ডব শার্দুলের! ভাঙলেন বোথামের ঐতিহাসিক রেকর্ডও, তুলকালাম ড্রেসিংরুম
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com