scorecardresearch

বড় খবর

গুগল স্বীকার করল UIDAI হেল্পলাইন নম্বর ‘ভুলবশত’ কোড করা হয়েছে

এই ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে গুগল জানিয়েছে, এর ফলে কোনো গ্রাহকের অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে বেআইনিভাবে অনুপ্রবেশ করা হয় নি। বিবৃতিতে গুগল আরও জানিয়েছে, আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই তারা নতুন সেট আপ উইজার্ড OEM-দের কাছে পাঠাতে চলেছে।

শেষমেশ সমস্যার সমাধান করা গেছে। ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অব ইন্ডিয়া (UIDAI)-র যে ‘হেল্পলাইন’ নম্বরটি রহস্যময়ভাবে আপনার অ্যান্ড্রয়েড বা অ্যাপেল ফোনের কনট্যাক্ট লিস্টে বিরাজ করছিল কাল, তার জন্য দায়ী ২০১৪ সালের গুগলের একটি সেট আপ উইজার্ড, যাতে ভুলবশত আপৎকালীন ১১২ নম্বর এবং UIDAI নম্বরটি কোড করা হয়ে যায়। এই স্বীকারোক্তির কয়েক ঘণ্টা আগেই আধার কর্তৃপক্ষ জানান, কোনও সেলফোন প্রস্তুতকারক সংস্থা বা টেলিকম কোম্পানিকে এই হেল্পলাইন নম্বর যোগ করার জন্য চাপ সৃষ্টি করা হয় নি।

গুগলের তরফ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “আমাদের অভ্যন্তরীণ সমীক্ষায় আমরা জানতে পেরেছি যে ২০১৪ সালের UIDAI হেল্পলাইন নম্বর এবং ১১২ আপৎকালীন হেল্পলাইন নম্বরটি অনবধানতা বশত ভারতে ব্যবহারের জন্য যে অ্যান্ড্রয়েড সেট আপ উইজার্ড অরিজিনাল ইকুইপমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার বা OEM-দের দেওয়া হয়েছিল তাতে কোড করে দেওয়া হয়। এবং যেহেতু এই নম্বরগুলো গ্রাহকের কন্ট্যাক্ট লিস্টের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যায়, কোনো নতুন ডিভাইস নিলেও সেটিতে নম্বরগুলো আপনাআপনি স্টোর হয়ে যায়।”

আরও পড়ুন: ফোনে হেল্পলাইন নম্বর? কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়, জানাল আধার

এই ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে গুগল জানিয়েছে, এর ফলে কোনো গ্রাহকের অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে বেআইনিভাবে অনুপ্রবেশ করা হয় নি। বিবৃতিতে গুগল আরও জানিয়েছে, আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই তারা নতুন সেট আপ উইজার্ড OEM-দের কাছে পাঠাতে চলেছে, যার ফলে বর্তমান সমস্যার সমাধান আসন্ন।

মজার কথা হলো, যে কজন OEM-এর সঙ্গে আমরা কথা বলেছি, তারা কেউই বলতে পারে নি কীভাবে ওই নম্বর সবার অলক্ষ্যে গ্রাহকদের ফোনে প্রবেশ করেছে। এক অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস প্রস্তুতকারক সংস্থা স্পষ্ট জানাল, তারা কোনো ডিভাইসে কোনো নম্বর বসায় নি। Indianexpress.com দুটি নতুন অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস পরীক্ষা করেছে, যাদের মধ্যে একটি এখনো ভারতে আসেই নি। দুটিতেই UIDAI নম্বর এবং আপৎকালীন নম্বরটি বর্তমান। অবশ্য আমাদের পরীক্ষা করা সব ডিভাইসে ওই নম্বর ছিল না।

গুগলের বিবৃতি সত্ত্বেও যে প্রশ্নটা থেকেই যাচ্ছে, তা হলো, অ্যাপেল ফোনে তবে এই নম্বর কোথা এলো? সম্ভাব্য কারণ, অ্যাপেল গ্রাহকদের অধিকাংশই নিজেদের ফোন যুক্ত করেছেন তাঁদের জি মেইল অ্যাকাউন্টের সঙ্গে, যেগুলি অতীতে কখনো হয়ত অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের সঙ্গে যুক্ত ছিল।

গুগল কন্ট্যাক্ট লিস্টে সামান্য একটা সার্চ দিয়েই আমরা পেলাম UIDAI এর ইমেইল, যদিও ওই গুগল অ্যাকাউন্ট থেকে কোনোদিনই help@uidai.gov.in এই আই ডি-তে কোনো মেইল পাঠানো হয় নি। দেখা গেল, ওই আই ডি এপ্রিল ২০১৪ থেকে লিস্টে রয়েছে, যা গুগলের ব্যাখ্যার সঙ্গে মিলে যাচ্ছে।

UIDAI-এর তরফে এক টুইট বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্টের ভিত্তিতে জানা যাচ্ছে যে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে UIDAI-এর পুরনো এবং অকার্যকর টোল ফ্রি নম্বর 1800-300-1947 স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্ত হয়ে আছে। UIDAI কোনও প্রস্তুতকারী সংস্থা বা সার্ভিস প্রোভাইডরকে এ ধরনের কোনও সুবিধা যুক্ত করার কথা বলেনি।”

আমরা UIDAI হেল্পলাইন নম্বরটি একটি করে iPhone 8 এবং iPhone X এর কন্ট্যাক্ট লিস্টে পাই, কিন্তু কিছু অন্যান্য ডিভাইস, যেমন iPhone 7, Mi A1 ইত্যাদিতে পাই নি।

এরও আগে একাধিক গ্রাহক টুইটারে নিজেদের কন্ট্যাক্ট লিস্টে তাঁদের অনুমতি ছাড়াই UIDAI নম্বরের উপস্থিতি নিয়ে শোরগোল তুলেেছিলেন। রইল তার কিছু নমুনা। জবাবে UIDAI-এর টুইটও রইল।


যাঁদের ফোনে এখনো ওই নম্বরটি রয়েছে তাঁরা ডিলিট করে দিতে পারেন। মনে রাখবেন, এটি অফিসিয়াল হেল্পলাইন নম্বর নয়, যেটি এখনো 1947-ই রয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Technology news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Google says uidai number coded by mistake