বড় খবর

আপনি না চাইলেও স্মার্টফোনে ইনস্টল হয়ে যাবে আরোগ্য সেতু অ্যাপ

বেশ কিছু স্ট্যাটাস দেখা যাবে এই অ্যাপে। যা দেখে আপনি বুঝতে পারবেন বিপদ আপনার থেকে কতটা দূরে।

ভারত সরকার প্রত্যেক দেশবাসীকে আরোগ্য সেতু অ্যাপটি স্মার্টফোনে রাখার জন্য অনুরোধ করেছে। কয়েক লক্ষ মানুষ এই অ্যাপ ডাউনলোড করলেও এখনো বেশ কিছু ভারতবাসী এই অ্যাপটি তাদের ফোনে ইন্সটল করেননি। সম্প্রতি নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী যাদের ফোনে আরোগ্য সেতু অ্যাপ ইন্সটল করা থাকবে না তাদের অজান্তেই স্মার্টফোনে এই অ্যাপ ইন্সটল হয়ে যাবে।

মিনটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে ভারত সরকার স্মার্টফোন নির্মাতাদের সঙ্গে এই অ্যাপ ইন্সটলের জন্য আলোচনা করেছে। আপনি চান বা না চান আপনার ফোনে অটোমেটিকলি আরোগ্য সেতু অ্যাপ চলে আসবে। এর জন্য কোন আলাদা অপশন থাকবে না। অবশ্য এই রিপোর্ট বহু আগে সরকার স্মার্টফোন নির্মাতাদের কাছে পৌঁছে দিলেও সেই নির্দেশিকা অনুসরণ করা সম্ভব হয়নি। কারণ করোনাভাইরাস এর জেরে স্মার্টফোন নির্মাণ স্থগিত ছিল।

আরও পড়ুন:আরোগ্য সেতু অ্যাপ ডাউনলোড বাধ্যতামূলক, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের স্পষ্ট নির্দেশ

এ বিষয়ে কেন্দ্র কোনও সরকারি ঘোষণা করেনি। পাশাপাশি জোম্যাটো ডেলিভারি বয়দের ফোনে আরোগ্য সেতু অ্যাপ ডাউনলোড করার এবং তাদের লগইন থাকার নির্দেশ দিয়েছে। একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের মোবাইল ফোনে আরো ঘোষিত অ্যাপ ডাউনলোড করার নির্দেশ দিয়েছে মোদি সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের পাশাপাশি আউটসোর্স কর্মীদের মোবাইলেও এই অ্যাপ থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:‘আরোগ্য সেতু’তে এখন কোভিড পজেটিভের সম্ভাবনার কথা জানা যাবে, জেনে নিন কীভাবে

প্রসঙ্গত, কোন ব্যক্তির কমিটমেন্ট আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কতটা তার ইঙ্গিত আরোগ্য সেতু অ্যাপের মাধ্যমে পাওয়া যায়। সম্প্রতি বেশকিছু নতুন আপডেট নিয়ে এসেছে। যাতে করোনার সম্ভাবনা ঠিক কতটা সে বিষয়ে নোটিফিকেশন পাওয়া যাবে। সেফ অথবা লো রিস্ক অথবা মডারেটের মত বেশ কিছু স্ট্যাটাস দেখা যাবে এই অ্যাপে। যা দেখে আপনি বুঝতে পারবেন বিপদ আপনার থেকে কতটা দূরে।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and Technology news here. You can also read all the Technology news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: If you dont download aarogya setu app on your phone it will be installed by default report

Next Story
‘পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ঙ্কর জায়গা’, যেখানে মানুষের কোনো চিহ্ন নেই
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com