বড় খবর

পশুপ্রেম একেই বলে! ৩০ টাকার ভুরিভোজের মুরগি এখন বিশ্বজিতের আত্মীয়

এমন কীর্তি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করার পরেই সেই পোস্ট আপাতত ভাইরাল। কয়েক ঘন্টা পেরোতে না পেরোতেই লাইক, কমেন্ট, শেয়ারের বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

পশু প্রেম অনেকেই করেন। কিন্তু বিশ্বজিৎ দত্ত চৌধুরী সকলের থেকেই আলাদা। বন্য প্রাণী সরক্ষণ নিয়ে আলাদা কারণে শিরোনামে উঠে এসেছেন সম্প্রতি।

লকডাউন চলছিল। মুরগির মাংসের দামও অনেকটাই তলানিতে এসে ঠেকেছিল। সেই কারণেই বাজার থেকে একদম গোটা মুরগি কিনে এনেছিলেন পরিবারের সঙ্গে জমিয়ে ভুরিভোজ সারবেন বলে।

আরও পড়ুন

ল্যাপটপ চোর শুয়োর! নগ্ন হয়েই তাড়া করলেন ব্যক্তি, দেখুন ভাইরাল ছবি

তবে সেই মুরগি কয়েকদিন থাকতেই মায়া জন্মে যায় বিশ্বজিৎ বাবুর। আর সেই মুরগি কেটে খাওয়া হয়নি তাঁর। সম্প্রতি এমনই ঘটনার কথা শেয়ার করে সোশ্যাল মিডিয়ায় হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন তিনি। প্রিয় মুরগির সঙ্গে নিজের ছবি শেয়ার করেছেন তিনি।

ক্যাপশনে লিখেছেন, “লকডাউনে মুরগী সস্তা, তাই ৩০ টাকায় ছোট্ট একট মুরগী এনেছিলাম তিন মাস আগে (ব্রয়লার)। কেটে খাবো, কিন্তু হিম্মৎ হয়নি, মায়া জন্মেগেল। তাই ছেড়ে দিলাম বাড়ির উঠোনে, এখন ৫ কেজির মতো ওজন হয়েছে, ও আহ্লাদ করে কোলে ওঠে শুধু তাই নয়, অসুখ হলেও বলে যেন আমার শরীর খারাপ, তাই দুধেভাতে,আদরে ঔষধ খেয়ে এখন আমার পরিবারের অন্যতম এক সদস্য বলাই যায়।”

লকডাউনে মুরগী সস্তা, তাই ৩০ টাকায় ছোট্ট একট মুরগী এনেছিলাম তিন মাস আগে (ব্রয়লার)। কেটে খাবো, কিন্তু হিম্মৎ হয়নি, মায়া…

Posted by Biswajit Dutta Choudhury on Tuesday, 4 August 2020

এমন কীর্তি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করার পরেই সেই পোস্ট আপাতত ভাইরাল। কয়েক ঘন্টা পেরোতে না পেরোতেই লাইক, কমেন্ট, শেয়ারের বন্যা বয়ে যাচ্ছে। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সেই পোস্টে এখনো পর্যন্ত ৩৪০০ লাইক, ৬০২টি কমেন্ট এবং ১৬০০ শেয়ার হয়েছে।

পশুপ্রেমের এমন বিরল কীর্তি ঘটানোয় তাকে কুর্নিশ করছেন নেটিজেনরা।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Viral news here. You can also read all the Viral news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Bengali man raises chicken as family member which was supposed to be eaten

Next Story
স্টিক নয়, হাত দিয়েই নিমেষে বিষধর ধরেন, কারণ চমকে যাওয়ার মত
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com