scorecardresearch

বড় খবর

স্বপ্ন বুনতে জারি হার না মানা লড়াই, চায়ের পর নতুন ব্যবসায়ে হাবড়ার টুকটুকি!

নতুন ব্যবসাই এখন লক্ষ্য হাবড়ার টুক্টুকি দাসের

MA English Chaiwali, MA English Chaiwali habra, habra station tea stall, post graduate tea business, girl opens tea business, tea success stories, viral news, good news, indian express
স্বপ্ন বুনতে জারি লড়াই, চায়ের পর নতুন ব্যবসায়ে হাবড়ার টুকটুকি

চায়ের দোকান ছেড়ে নুডলস ব্যবসায় নামার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন টুকটুকি দাস। হ্যাঁ নামটা সকলের পরিচিত। এম.এ পাশ করেও মেলেনি চাকরি। সংসারের হাল ধরতে অগত্যা চায়ের দোকানকেই পেশা হিসাবে বেছে নেন হাবড়ার টুকটুকি। এবার তাঁর স্বপ্ন নুডুলস ব্যবসায়ে নানা। সেই সঙ্গে একটি ক্যাফে খোলার ইচ্ছার কথাও জানিয়েছেন টুকটুকি। একচিলতে চায়ের দোকান বুকে আগলে স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে অবিচল ‘চায়েওয়ালি’ টুকটুকি এই খবর তোলপাড় ফেলেছিল সমাজে। প্রশ্ন উঠেছে চাকরি বাকরির বেহাল দশা নিয়েও।

করোনা পরিস্থিতি মানুষের জীবনে বয়ে নিয়ে এসেছে এক ভয়ঙ্কর অভিশাপ। সংসার চালাতে উচ্চ শিক্ষিত হয়েও অনেকেই বেছে নিয়েছেন এমন অনেক পেশাকে। হাবড়ার কৈপুকুরের বাসিন্দা টুকটুকি দাসের চায়ের দোকান সমাজকে এক বড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছিল।  হাবড়া শ্রীচৈতন্য কলেজ থেকে ইংরেজিতে স্নাতক পাশ করে টুকটুকি। রবীন্দ্রভারতী মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে স্নাতকোত্তর হয়েছেন। এমএ পাশ করলেও অনেক চেষ্টার পরেও মেলেনি চাকরি।

লড়াই তবে থামাননি টুকটুকি, শুরু হয় তাঁর ইউটিউব ঘাঁটা। ইউটিউব থেকেই চা বিক্রির মাথায় আসে টুকটুকির। ইউটিউবেই এক দিন খোঁজ পান মুম্বইয়ের এক চায়ের দোকানের। সেটিও তৈরি করেছেন উচ্চশিক্ষিত এক যুবক। ইংরেজিতে এমএ পাশ টুকটুকি চায়ের দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নেয়। একসময় মত না দিলেও এখন তাঁর মা বাবাও আছেন তাঁর পাশে। বিভিন্ন দামের চায়ের স্বাদ নিতে ধীরে ধীরে ভিড় জমাচ্ছেন মানুষজন তার এই চায়ের দোকানে।

আরও পড়ুন: [ হাঁটু গেড়ে প্রেম নিবেদন, বৃদ্ধের ‘প্রেমিক মনকে’ সেলাম ঠুকল নেটদুনিয়া!]

টুকটুকির স্বপ্ন ছিল একটি সরকারি চাকরি। কিন্তু সেই স্বপ্ন অধরাই থেকে গিয়েছে।  ‘এমএ ইংলিশ চায়েওয়ালি’ দোকানে নতুন ভাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার লড়াই চালিয়ে গেছেন। তবে নতুন ব্যবসা খোলার তাগিদে আপাতত সেই দোকান বন্ধ রেখেছেন। সম্প্রতি টুকটুকির লক্ষ্য ছিল নুডলস ব্যবসায় বিনিয়োগ করার।

চায়ের পর নতুন ব্যবসায়ে হাবড়ার টুকটুকি

কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে আর্থিক মন্দা এবং জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়ায় সেই সিদ্ধান্ত কিছুদিন স্থগিত রাখতে হয়েছে তাকে। এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে টুকটুকি জানিয়েছেন, তার নতুন এই ব্যবসার সম্পর্কে। হটাৎ করে চা ছেড়ে কেন নুডুলস ব্যবসায় ঝুঁকলেন টুকটুকি?  তিনি নিজেই জানিয়েছেন এর মার্কেট অনেক বড়। 

আজকাল মানুষ স্বাস্থ্য সচেতন। তাই ময়দার বদলে  জোয়ার, রাগি, বাজরা জাতীয় শস্য থেকেই নুডুলস তৈরি করার পাশাপাশি একটি ক্যাফে খোলারও পরিকল্পনা রয়েছে তার। উচ্চশিক্ষিত হয়েও চাকরি না পেয়ে জীবন সংগ্রামে টিকে থাকতে লক্ষ্যে অবিচল টুকটুকির ইচ্ছাকে কুর্ণিশ জানিয়েছেন নেটিজেনরা।  

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Viral news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ma english chaiwalis tuktuki das wants to start her new noodle business