বড় খবর

করোনার ভয়, তাই ওয়েটার ছাড়াই চলছে হোটেল, জানুন অর্ডার করবেন কীভাবে

রেস্তোরাঁর নিজস্ব কোভিড-নিয়ম রয়েছে। টেবিল সার্ভিস ব্যবস্থার মাধ্যমে শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। রেস্তোরাঁয় খাবার সময় বাদে সবসময় মাস্ক পড়ে থাকতেই হবে।

স্পেনের সেই রেস্তোরাঁ

সংক্রমণ প্রতিদিন বাড়ছে বিশ্বজুড়ে। ছোঁয়াচ বাঁচিয়ে চলাই এখন দস্তুর। বিশ্বের সব দেশেরই অর্থনীতি চরম ধাক্কা খেয়েছে। এমন অবস্থায় অভিনব উদ্যোগ স্পেনের এক হোটেলের। ওয়েটার ছাড়াই সেখানে চলছে হোটেল। পারস্পরিক সাহচর্য এড়াতে নতুন উপায় এই রেস্তোরাঁর।

উত্তর পূর্ব ভূমধ্যসাগরের তীরবর্তী কোস্টা ব্রাভার পালাফ্রুগেলের ফ্যাঙ্কি পিজ্জা এখন দুনিয়া জুড়ে শিরোনামে। সেই হোটেলের নিজস্ব এপ রয়েছে ‘ফ্যাঙ্কি পে’। সেই এপ নিজের মোবাইলে ইনস্টল করে সেখান থেকেই অর্ডার দিতে পারেন খাদ্যরসিকরা। রেস্তোরাঁয় বসে সেই এপের মাধ্যমে অর্ডার প্লেস করলেই সামনে চলে আসছে লোভনীয় সমস্ত পদ।

আরও পড়ুন

পরিচয়পত্র নিয়ে কলকাতার হুন্ডাই শোরুমে ‘চাকরি’ কুকুরের, প্রকাশ্যে আনলেন স্বস্তিকা

রেস্তোরাঁর মালিক কার্লোস মানিচ বলছেন, “এই সিস্টেমের মাধ্যমে গ্রাহকদের সঙ্গে আমরা শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে চাইছি। করোনার সময়ে এটাই সবাই চাইছেন।”

রেস্তোরাঁর নিজস্ব কর্মীরা অনলাইনে পুরো প্রক্রিয়াটি পরিচালনা করেন। রেস্তোরাঁর নিজস্ব কোভিড-নিয়ম রয়েছে। টেবিল সার্ভিস ব্যবস্থার মাধ্যমে শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। রেস্তোরাঁয় খাবার সময় বাদে সবসময় মাস্ক পড়ে থাকতেই হবে।

ফ্যাঙ্কি পিজ্জা রেস্তোরাঁ

এমন নিরাপদ রেস্তোরাঁয় এসে সকলেই খুশি। বছর ২৬ এর ক্লদিয়া মেদিনা যেমন বলছিলেন, “এই এপটি গ্রাহকদের সুবিধার্থেই বানানো হয়েছে। এই এপের মাধ্যমে খাবার অর্ডার দেওয়ার পর তা ট্র্যাক রাখতে সাহায্য করে। তা কিচেনে নাকি কমপ্লিট, কোন সময়ে টেবিলে আসবে তা-ও জানা যায়।”

তবে অনেকেই এই ব্যবস্থায় খুশি নন। জেভিয়ের কোমাস জানালেন, “ওয়েটারের নিজস্ব যে অনুভূতি থাকে, সেটা আমরা মিস করছি। যেমন ওয়েটারকে জিজ্ঞাসা করা যায় বিভিন্ন প্রকার এবং পরিমাণ নিয়ে। সেটা এতে হচ্ছে না।”

Read the full article in ENGLISH

Get the latest Bengali news and Viral news here. You can also read all the Viral news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Spains restaurent introduces waiter less ordering system

Next Story
মাস্ক না পড়ে প্লেনে উঠে মদ্যপান! পিটিয়ে ঠাণ্ডা করল বাকি যাত্রীরা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com