scorecardresearch

বড় খবর

তাক লাগানো স্মৃতি শক্তি, ইন্ডিয়ান বুক অফ রেকর্ডসে নাম একরত্তির

দু’বছর বয়স থেকেই বড়দের থেকে শোনা কথা রপ্ত করে নিতে শুরু করে খুদে কন্যা। এখন তো বহু প্রশ্নের উত্তরই তার জানা।

তাক লাগানো স্মৃতি শক্তি, ইন্ডিয়ান বুক অফ রেকর্ডসে নাম একরত্তির
কোলাঘাটের 'বিস্ময়-কন্যা' সমৃদ্ধি মাইতি। ছবি: কৌশিক দাস

এক লহমায় ঝট করে সে বলে ফেলতে পারে প্রায় একশো দেশের নাম ও রাজধানী। শুধু তাই নয়। বহু প্রশ্নের উত্তরই যেন ঠোঁটে রয়েছে ‘অবাক-কন্যার’। খানিকটা বিরল এই কৃতিত্বেরই এবার পুরস্কার মিলল। ইন্ডিয়ান বুক অফ রেকর্ডসে নাম উঠল কোলাঘাটের শিশু কন্যা সমৃদ্ধি মাইতির।

পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাটের বাথানবেড়িয়া গ্রাম। এই গ্রামেই বাড়ি তিন বছরের সমৃদ্ধি মাইতির। সমৃদ্ধির বাবা পেশায় রেলকর্মী ও তার মা সর্বভারতীয় সঙ্গীত পরিষদের পরীক্ষক। ব্যস্ততার মাঝেও আর পাঁচটা অভিভাবকের মতোই নিয়ম করে ছোট্ট মেয়ের দেখভালে চেষ্টার কোনও কসুর নেই বাবা-মার। আদর-আবদার মেটানোর পাশাপাশি খুদে কন্যার বেড় ওঠাতেও সমান নজর পরিবারের বাকি সদস্যদেরও।

সমৃদ্ধির পরিবারের সদস্যরা জানালেন, পৃথিবীর যে কোনও দেশ ও তার রাজধানীর নাম ঝটপট বলে ফেলতে পারে সে। এছাড়াও বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর তার জানা। শিশু কন্যার বিরল এই কৃতিত্বের খবর পৌঁছে যায় ইন্ডিয়ান বুক অফ রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের কাছে। সংস্থার তরফেও ছোট্ট সমৃদ্ধির ব্যাপারে সবরকম খোঁজ-খবর নেওয়া হয়। অবাক করা এই কৃতিত্ব স্বরূপ ইন্ডিয়ান বুক অফ রেকর্ডসে নাম ওঠে ছোট্ট সমৃদ্ধির।

আরও পড়ুন- সংসারে নয়, ভোট ময়দানে সম্মুখ সমরে ননদ-বৌদি, কাঁথিতে লড়াই জমজমাট

জন্মের পর থেকেই বাড়ির বড়দের সহচর্যে বড় হচ্ছে সমৃদ্ধি। বাবা-মার পাশাপাশি দাদু, দিদা, ঠাকুমার সংস্পর্শ সমানতালে পাচ্ছে সে। তার অবাক করা জানার আগ্রহ দেখে তাকে দেশে-বিদেশের নানা খবরের পাঠ দেন বড়রা।

তাতেই আগ্রহ আরও বাড়ে ছোট্ট মেয়ের। দু’বছর বয়স থেকেই বড়দের থেকে শোনা কথা রপ্ত করে নিতে শুরু করে সমৃদ্ধি। এখন তো বহু প্রশ্নের উত্তরই তার জানা। ছোট্ট সমৃদ্ধির এই কৃতিত্বে তার পরিবার তো বটেই খুশি এলাকাবাসীও।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: A minor girl samridhhi maiti from kolaghat have got to enlisted her name in indian book of records