বড় খবর

রাজ্যে মোট ২ হাজার শয্যার ‘সেফ হোম’, করোনা যুদ্ধে তৈরি হচ্ছে বাংলা

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, আগেরবার যেমন তুমি লড়াই করেছিলে, সেরকম করো। মানুষের জীবন বেশি না কেন্দ্র বেশি।

রাজ্যে ক্রমশ বাড়ছে করোনা। সেই আবহে আলিপুরের উত্তীর্ণ ভবনে পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের জরুরি বৈঠককে বসেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। করোনা মোকাবিলার পরিকল্পনা তৈরি করতে টাস্ক ফোর্স গঠন করা হতে পারে বলে জানান হয়েছে।

রাজ্যে আরও বেশ কিছু ‘কোয়ারেন্টিন সেন্টার’ ও ‘সেফ হোম’ তৈরি করা হবে। যে ভবনে বৈঠক, সেই উত্তীর্ণতেও ৫০০ শয্যার ‘সেফ হোম’ তৈরি করার ভাবনা চিন্তা করছে প্রশাসন। পাশাপাশি, আনন্দপুরে ৭০০ ও গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে ২০০ শয্যার ‘সেফ হোম’ তৈরির কথা ভাবছে রাজ্য সরকার, এমনটাই জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এই কাজ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন, বাংলায় এখনই লকডাউন-নাইট কার্ফু নয়, আতঙ্কের কারণ নেই : মমতা

বৈঠকে বলা হয়েছে যে, ১০ টি অ্যাম্বুল্যান্স দাঁড়িয়ে থাকবে ‘সেফ হোম’-এর বাইরে। প্রথমে আক্রান্তকে ‘সেফ হোম’-এ আনা হবে। সেখানে পরিস্থিতি খারাপ হলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হবে। সুস্থ হলে আবার ‘সেফ হোম’-এ আনা হবে, নজরদারি রাখার জন্য। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দফতরের শীর্ষ আধিকারিকরা, ছিলেন উপদেষ্টা চিকিৎসক তথা রাজ্য সভার সাংসদ শান্তনু সেন, ও চিকিৎসক অভিজিৎ চৌধুরী।

ফিরহাদ হাকিম এও বলেন, ‘থালা বাজিয়ে তো করোনা যাবে না।মুখ্যমন্ত্রী আবার কাল চিঠি দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর কর্তব্য পালন করুন। লক্ষ লক্ষ মানুষ অসহায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, আগেরবার যেমন তুমি লড়াই করেছিলে, সেরকম করো। মানুষের জীবন বেশি না কেন্দ্র বেশি।’ ফিরহাদ আরও বলেন, ‘কেন শুধু ৪৫ বছর বয়সীদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে?বাচ্চা ছেলেমেয়েদেরও তো করোনা করোনা হচ্ছে।’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: A safe home of 2000 beds in the state bengal in the corona war

Next Story
বাংলায় এখনই লকডাউন-নাইট কার্ফু নয়, আতঙ্কের কারণ নেই : মমতাmamata corona bengal lockdown
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com