scorecardresearch

বড় খবর

চিনার পার্কেও অর্পিতার ফ্ল্যাট! লোক-লস্কর নিয়ে হানা দিল ইডি

২০২০ সালের সেপ্টেম্বর থেকে এখনও পর্যন্ত আবাসনের রক্ষণাবেক্ষণের খরচ দেননি নাকি অর্পিতা। তা প্রায় ৩৮ হাজার টাকা।

ED,Enforcement Directorate,partha chatterjee,SSC,School Service Commission,SSC Scam,পার্থ চট্টোপাধ্যায়,ইডি,Partha Chatterjee summoned,Partha Chatterjee Arrest,arpita mukherjee arrest,Arpita Mukherjee summoned
ফ্ল্যাটে হানা দেন কেন্দ্রীয় এজেন্সির আধিকারিকরা। এক্সপ্রেস ফটো- পার্থ পাল

টালিগঞ্জ, বালিগঞ্জ, বেলঘরিয়ার রথতলার পর এবার বাগুইআটির চিনার পার্ক। অর্পিতার আরও একটা ফ্ল্যাটের হদিশ পেল ইডি। বৃহস্পতিবার চিনার পার্কের নোয়াপাড়ার পূর্বপাড়ার রয়্যাল রেসিডেন্সি আবাসনের চার তলার একটি ফ্ল্যাটে হানা দেন কেন্দ্রীয় এজেন্সির আধিকারিকরা। বি ব্লকের সেই ফ্ল্যাটটি অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বলে দাবি ইডি-র। এদিন বিকেলেই সেই ফ্ল্যাটটিতে হানা দেয় ইডি।

এদিন চিনার পার্কের ওই আবাসনের ট্রেজারার দাবি করেন, এখানেও একটি ফ্ল্যাট রয়েছে অর্পিতার। তাঁর আরও দাবি, ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর থেকে এখনও পর্যন্ত আবাসনের রক্ষণাবেক্ষণের খরচ দেননি নাকি অর্পিতা। তা প্রায় ৩৮ হাজার টাকা।

তাঁর দাবি, ২০১৭ সালে প্রথমবার আবাসনে আসেন অর্পিতা। সেদিন কালো একটি মার্সিডিজে করে আবাসনে এসেছিলেন অর্পিতা। সেবারই নাকি প্রথমবার অর্পিতাকে দেখেন তিনি। তবে সবটাই তাঁর দাবি। আবাসনের অন্য আবাসিকরা কিন্তু দাবি করছেন, অর্পিতাকে কোনওদিন দেখেননি তাঁরা।

অর্পিতার ফ্ল্যাট রয়েছে এই খবর পেয়েই সেখানে যান ইডির আধিকারিকরা। সেখানে গিয়ে দেখা যায় ফ্ল্যাটটি তালাবন্ধ অবস্থায় রয়েছে। ইডির আধিকারিকরা সেই তালা ভেঙে ভিতরে ঢোকেন। পরে ফ্ল্যাটটিতে তালা দেওয়া হয়। টাকা থাকতে পারে এই সন্দেহে আগে থেকে ট্রাক নিয়ে আসা হয়। সবরকম প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন ইডি আধিকারিকরা।

এদিকে, তাঁর টালিগঞ্জ ও বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে মেলা টাকার পাহাড়ের মালিক পার্থ চট্টোপাধ্যায়ই, দফায়-দফায় জেরায় ইডি-কে এই চাঞ্চল্যকর এই তথ্য জানিয়েছেন অর্পিতা, এমনই দাবি সূত্রের। সিজিও কমপ্লেক্সে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে দফায়-দফায় জেরায় আরও বিস্ফোরক তথ্য মিলবে বলে আশাবাদী ইডির আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন হাওয়ালা-সারদা থেকে নিয়োগ দুর্নীতি: তদন্তে ‘রহস্যময়’ ডায়েরির ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ, কেন?

দুই অভিযানে প্রায় ৫০ কোটি টাকা নগদ উদ্ধার করেছে ইডি। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের টালিগঞ্জ ও বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে মিলেছে এই টাকার পাহাড়। শুধু বস্তা-বস্তা টাকাই নয়, মিলেছে ঝুড়ি-ঝুড়ি সোনা-রুপো। তাল-তাল এই সোনা-রুপো ইতিমধ্যেই বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। তাঁর দুটি ফ্ল্যাটে মেলা বিপুল পরিমাণ এই টাকা-সহ সব সোনা-গয়নার মালিক নাকি পার্থ চট্টোপাধ্যায়। জেরায় এমনই দাবি করেছেন অর্পিতা, খবর সূত্রের।

সূত্রের আরও দাবি, অর্পিতা নাকি জানিয়েছেন টাকা রাখতে তাঁর ফ্ল্যাটে মাঝে-মধ্যেই পার্থ চট্টোপাধ্যায় নিজেই আসতেন। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে টাকা রাখতে প্রায়শই আরও কয়েকজন আসতেন বলেও জেরায় দাবি করেছেন অর্পিতা। অর্পিতা আরও জানিয়েছেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায় যখন তাঁর ফ্ল্যাটের ঘরে টাকা রাখতে আসতেন, তখন তিনি ওই ঘরে নাকি ঢুকতেন না।

আরও পড়ুন ‘প্রায়ই আসতেন ফ্ল্যাটে, টাকার পাহাড়ের মালিক পার্থই’, সব ‘ফাঁস’ করলেন অর্পিতা

তাঁকে সেই সময়ে ঘরে ঢুকতে বারণ করেছিলেন পার্থ, জেরায় এমনই চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি পার্থ ঘনিষ্ঠের। ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, অর্পিতার এই স্বীকারোক্তি নিয়েই এবার জেরা করা হবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। এমনকী পার্থ-অর্পিতাকে মুখোমুখি বসিয়েই জেরা করবেন ইডি আধিকারিকরা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Another flat of arpita mukherjee found in baguiati ed searches premises