scorecardresearch

বড় খবর

‘আবাস দুর্নীতির দায় সরকারি আধিকারিদেরও’, তোলপাড় ফেলা অভিযোগ তৃণমূল বিধায়কের

সরকারকে বিড়ম্বনায় ফেলতেই ‘ষড়যন্ত্র’।

‘আবাস দুর্নীতির দায় সরকারি আধিকারিদেরও’, তোলপাড় ফেলা অভিযোগ তৃণমূল বিধায়কের
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আবাস তালিকা কেলেঙ্কারিতে রাজ্যজুড়ে হইচই। চাপে শাসক তৃণমূল। নানা অজুহাতে ব্যস্ত জোড-ফুল শিবির। এসেবর মধ্যেই এবার দুর্নীতির দায় সরকারি আধিকারিকদের উপর ঠেললেন প্রবীণ তৃণমূল বিধায়ক। হাওড়ার শ্যামপুরের বিধায়ক কালিপদ মণ্ডলের সাফ দাবি, সরকারকে বিড়ম্বনায় ফেলতেই আবাসের তালিকায় দুর্নীতি করেছেন সরকারি কর্মচারীদের একাংশ। অর্থাৎ, আবাস দুর্নীতির জন্য সরকারি আধিকারিকদের বিরুদ্ধেই ‘ষড়যন্ত্রে’র অভিযোগ তুলেছেন কালিপদ।

তৃণমূলের ‘দিদির সুরক্ষা কবচ’ কর্মসূচি নিয়ে শনিবার সাংবাদিক বৈঠক করেন কালীপদ মণ্ডল। সেখানেই আবাস দুর্নীতি নিয়ে বলতে গিয়ে বিধায়ক বলেছেন, ‘এত বড় কাজ। এতে আবাস যোজনায় সরকারি আধিকারিকেরাও যুক্ত। এঁরাও একশো ভাগ সৎ নয়। অনেক নামকরা আধিকারিক আছেন, যাঁরা তিনতলা বাড়ির মালিকদের নাম তালিকায় ঢুকিয়ে দিয়েছে। এত বড় কর্মযজ্ঞে সরকারি স্তরে বিডিওরাও ভুল করতে পারেন। আমাদের মধ্যেও সকলে সৎ নয়। এখানেও সুযোগসন্ধানী আছে। তবে সরকারি আধিকারিকেরা সরকারকে বিড়ম্বনায় ফেলার জন্যই এ সব করছেন। যদি কৈফয়ত দিতেই হয়, বিডিও দেবেন। লিস্ট তো বিডিও তৈরি করেছেন।’

আরও পড়ুন- শুভেন্দুর এবারের ইস্যু মদ! মমতাকে কড়া চ্যালেঞ্জ

প্ধানমন্ত্রী আবাস তালিকায় ভুরি-ভুরি দুর্নীতি সামনে আসছে। ক্ষোভে ফেটে পড়ছেন গ্রামবাসীরা। প্রতিবাদে পঞ্চায়েত দফতরে গিয়ে সরব হচ্ছেন বঞ্চিতরা। নিশানা করছেন পঞ্চায়েত প্রধান, উপ-প্রধান সহ জনপ্রতিনিধিদের। বেজায় অস্বস্তিতে শাসক দলের নেতারা। বিধায়ক কালিপদ মণ্ডলের পরামর্শ, আবাস দুর্নীতি নিয়ে পঞ্চায়েত অফিসে বিক্ষোভ না দেখিয়ে বিডিও অফিসে বিক্ষোভ দেখানো উচিত।

দলীয় বিধায়কের এহেন মন্তব্য নিয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়াআসেনি তৃণমূলের তরফে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Awas scam bengal tmc mla kalipada mondal shyampur