scorecardresearch

বড় খবর

‘বাপি বাড়ি যা…’, স্লোগানে মন খারাপ হয়েছিল বাপ্পি লাহিড়ির, তবে দমেননি ভোটের লড়াইয়ে

প্রয়াত বাপ্পি লাহিড়ি। মন খারাপ শ্রীরামপুরের। এই লোকসভা কেন্দ্র থেকেই ২০১৪ সালে পদ্ম প্রতীকে ভোটে লড়েছিলেন ‘ডিসকো কিং’।

bappi bari ja bappi lahiri serampore loksabha 2014
বিজেপি প্রার্থী বাপ্পি লাহিড়ির সঙ্গে ছায়াসঙ্গী ভাস্কর ভট্টাচার্য। ছবি: উত্তম দত্ত

প্রয়াত বাপ্পি লাহিড়ি। মন খারাপ শ্রীরামপুরের। এই লোকসভা কেন্দ্র থেকেই ২০১৪ সালে পদ্ম প্রতীকে ভোটে লড়েছিলেন ‘ডিসকো কিং’। ভোটে বিশ্বখ্যাত এই সঙ্গীত শিল্পীর সেনাপতি ছিলেন ভাস্কর ভট্টাচার্য। তাঁরই স্মৃতিচারণায় জানা গেল রাজনীতিবিদ বাপ্পি লাহিড়িকে।

বর্তমানে বিজেপির রাজ্য কমিটির সদস্য তথা আরামবাগের পর্যবেক্ষক ভাস্কর ভট্টাচার্য। সাত বছর আগে শ্রীরামপুরে তাঁকেই প্রার্থী হিসাবে ধরা হয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে শোনা যায় ওই লোকসভা থেকে দাঁড়াচ্ছেন ‘ডিস্কো ড্যান্সার’ খ্যাত বাপ্পি লাহিড়ি। নিজে টিকিট না পেলেও প্রার্থী বাপ্পির সেনাপতি হয়েই ভোট সামলেছিলেন ভাস্কর। সেই থেকেই তাঁর সঙ্গে শিল্পীর আলাপ, ক্রমশ ঘনিষ্ঠতা।

আরও পড়ুন- মার্কিন ব়্যাপারের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকেছিলেন বাপ্পি, জানুন ‘ডিস্কো কিং’-য়ের অজানা কাহিনী

শ্রীরামপুর ফ্ল্যাটে বসে বাপ্পি লাহিড়ির সঙ্গে তাঁর ছবির সামনে বসে সেইসব পুরোনো দিনের কথা রোমন্থন করছিলেন ভাস্কর ভট্টাচার্য। বলছিলেন, ‘প্রথমেই দক্ষিনেশ্বর মন্দিরে পুজো দিয়ে বাপ্পিদাকে নিয়ে উত্তরপাড়া যখন ঢুকলাম তখন বাজে দুপুর আড়াইটে। ওখান থেকে আমাদের ব়্যালি শুরু হয়। কথা ছিল সাড়ে তিনটার সময় শ্রীরামপুর পৌঁছাবো। কিন্তু শ্রীরামপুর পৌঁছাই রাত সাড়ে ন’টায়। কারণ রাস্তায় এত ভিড় হয়েছিল যে গাড়ি এগোচ্ছিলোই না। কল্যাণ ব্যানার্জির বিরুদ্ধে ফাইট দিয়েছিলেন ভালোই। শ্রীরামপুর লোকসভার শ্রীরামপুর এবং চাপদানি বিধানসভায় তাঁর লিড ছিল। সকাল সকাল কলকাতার পাঁচতারা হোটেল থেকে এখানে চলে আসতেন। দিল্লী রোডের রয়াল হোটেলে লাঞ্চ খেতেন। সেখানেই আমাদের অভ্যন্তরীণ মিটিং গুলো সেরে নিতাম।’

আরও পড়ুন- চালসার শালবাড়িতে এলেই জমত গানের আসর, এমনকী বালিশেও তবলা বাজাতেন বাপ্পি

জানান, ভোটের লড়াইয়ে হেরে নয়, তৃণমূলের কটাক্ষে দুঃখ পয়েছিলেন বাপ্পি লাহিড়ি। ভাস্করবাবুর কথায়, ‘বিরোধীরা ব্যাঙ্গাত্মক একটি গান রচনা করেছিল সেইসময়। বাপি তুই বাড়ি যা…। খুব দুঃখ পেয়েছিলেন সেই সময়। শুধু, বলেছিলেন এখানে ওরা আমাকে নিয়ে ব্যঙ্গ করলো! আমার সঙ্গে তো কারোর ব্যক্তিগত শত্রুতা নেই। আমি তাঁকে সান্তনা দিয়ে বলেছিলাম আসলে রাজনীতির চরিত্র পাল্টে গেছে। কিছু করার নেই।’

তবে পরের দিকে মন খারাপ আর ছিল না বিজেপির বাপ্পি লাহিড়ির। স্বপ্ন দেখতেন ভোটে জেতার। ভাস্করের কথায়, ‘যেদিন নমিনেশন সাবমিট করা হল সেদিন বিপুল লোকের সমাগম হয়েছিল। তাতেই বাপ্পি দা আপ্লুত হয়ে পড়েন। বলেছিলেন এত লোক যে আমাকে দেখতে এসেছেন? এত লোক আমায় ভালোবাসেন? এখানেই আমি জিতে গিয়েছি। আলাদা করে ভোটে না জিতলেও আমার কোন দুঃখ নেই।’

আরও পড়ুন- নভেম্বরও এসেছিলেন ‘সারেগামাপা’র মঞ্চে, জেনে নিন বাপ্পিদা’র গাওয়া শেষ গান কোনটি!

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bappi bari ja bappi lahiri serampore loksabha