scorecardresearch

বড় খবর
এক ফ্রেমে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী ও কয়লা মাফিয়া, বিজেপিকে বিঁধলেন অভিষেক

ভোট পরবর্তী হিংসা মামলা: ‘যতবার ডাকবে ততবার আসব’, সিজিও থেকে বেরিয়ে বললেন পরেশ পাল

ভোট পরবর্তী হিংসায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পরেশের বিরুদ্ধে।

ভোট পরবর্তী হিংসা মামলা: ‘যতবার ডাকবে ততবার আসব’, সিজিও থেকে বেরিয়ে বললেন পরেশ পাল
তৃণমূল বিধায়ক পরেশ পাল।

বেলেঘাটায় বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকারের খুনের ঘটনায় বিধায়ক পরেশ পালকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করল সিবিআই। এই নিয়ে দ্বিতীয়বার তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হল। প্রায় তিন ঘন্টা ধরে চলে জিজ্যাসাবাদ। সিজিও কমপ্লেক্স ছাড়র সময় পরেশ পাল বলেন, ‘যতবার ডাকবে ততবার আসব।’ ভোট পরবর্তী হিংসায় বিজেপি তাঁকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ বেলেঘাটার বিধায়কের। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বেলেঘাটায় আমরা তৃণমূল করি। আমি সেখানকার বিধায়ক ও কাউন্সিলর। তাই ওদের তো কাউকে নিশানা করতে হবে। সেটা আমাকে করা হচ্ছে।’ তাঁর উস্কানিতেই বেলেঘাটার বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকারকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। যদিও পরেশ পালের বক্তব্য, ‘যে জায়গায় ঘটনা ঘটেছিল সেখানে তো আমি থাকি না।’

ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় আজ, মঙ্গলবার দ্বিতীয়বার সিবিআই জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন পরেশ পাল। বেলেঘাটার বিধায়ককে এদিন সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দিতে দেখা যায়। একুশের নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর বিজেপি কর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত করছে সিবিআই। সেই মামলায় এদিন ফের হাজিরা দেন বেলেঘাটার বিধায়ক।

এদিন সকালে নিজের আইনজীবীকে নিয়ে সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দেন পরেশ। সিবিআই সূত্রে খবর, ভোট পরবর্তী হিংসায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পরেশের বিরুদ্ধে। গত বছর ২ মে ফল ঘোষণার পর বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকারকে পিটিয়ে, শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ ওঠে। প্রতিবাদে গর্জে ওঠে বঙ্গ বিজেপি। দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। মামলা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। পরে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট।

আরও পড়ুন- ‘বাতেলা দিচ্ছি, অথচ পদ আঁকড়ে রয়েছি’, বিস্ফোরক তাপস, কাদের নিশানা তৃণমুল বিধায়কের?

প্রসঙ্গত, গত মাসে নারকেলডাঙায় প্রোমোটিং বিবাদে এক অন্তঃসত্ত্বার পেটে লাথি মারার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। কাঠগড়ায় তৃণমূল বিধায়ক পরেশ পাল, স্থানীয় কাউন্সিলর স্বপন সমাদ্দার ও তাঁদের অনুগামীরা। তৃণমূলের বিধায়ক ও কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে এমন গুরুতর অভিযোগ ওঠায় সোচ্চার বিজেপি। ইতিমধ্যেই বিজেপি নেতৃত্ব আক্রান্ত পরিবারটির সঙ্গে দেখা করেছেন।

আরও পড়ুন ‘তৃণমূলের মুখ চুন হবে ঠিকই’, তবে বঙ্গে BJP-র সম্ভাবনা নিয়ে বোমা ফাটালেন তথাগত

অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন পরেশ পাল এবং স্বপন সমাদ্দার। কাউন্সিলর আবার পাল্টা পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা কেস দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগে সরব হন। রীতিমতো থানার সামনে মাইকিং করে পুলিশকে হুমকি দেন। সেই ঘটনার রেশ কাটতেই আবার ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনায় সিবিআই তলবে হাজিরা দিলেন পরেশ পাল।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bjp worker murder case tmc mla paresh pal summoned by cbi again