scorecardresearch

বড় খবর

আজ রাতে বাংলায় আছড়ে পড়ছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’

শুক্রবার মাঝরাতে পশ্চিমবঙ্গে আছড়ে পড়তে পারে ভয়াল ঘূর্ণিঝড় ফণী। ঘণ্টায় ৯০-১০০ কিমি বেগে বাংলায় আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়। ঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১১৫ কিমি।

cyclone fani, ফণী, ঘূর্ণিঝড় ফণী
বাংলাতেও ধেয়ে আসছে ফণী। প্রতীকী ছবি, টুইটার।

ওড়িশার পাশাপাশি বাংলাতেও ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’। শুক্রবার মাঝরাতে পশ্চিমবঙ্গে আছড়ে পড়তে পারে ভয়াল ঘূর্ণিঝড়। ঘণ্টায় ৯০-১০০ কিমি বেগে বাংলায় আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়। ঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১১৫ কিমি। এমনটাই জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বৃহস্পতিবার আলিপুর আবহাওয়া দফতরের ডেপুটি ডিরেক্টর সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘বাংলায় ঘূর্ণিঝড় আসছে। ওড়িশার মধ্য দিয়ে বাংলায় ঢুকবে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়। আজ মাঝরাত থেকে ভোরের মধ্যে আছড়ে পড়তে পারে ফণী। ৪ তারিখ সকালে দুর্বল হবে ঘূর্ণিঝড়। এরপর সেদিন সন্ধে থেকে রাতের মধ্যে বাংলাদেশে যাবে ফণী’’। অর্থাৎ প্রায় ২৪ ঘণ্টা বাংলায় অবস্থান করবে ফণী।

বাংলায় ফণীর তাণ্ডবে কী ক্ষতি হতে পারে?

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, এ রাজ্যে ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে ভেঙে পড়তে পাড়ে গাছ, কাঁচা বাড়ি, বিদ্যুতের খুঁটি। কলকাতায় ঝড়ের দাপটে গাছ ভেঙে পড়তে পারে। তাছাড়া কলকাতায় বৃষ্টির জেরে জল জমতে পারে। ইতিমধ্যেই মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। দিঘা, মন্দারমণি, বকখালি, শঙ্করপুর, ফ্রেজারগঞ্জ এলাকায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি হাওড়া, মেদিনীপুরে ফেরি চলাচলের উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। হাওয়া অফিসের তরফে রেল ও পরিবহণ বিভাগকে ফণীর অবস্থান সম্পর্কে জানানো হয়েছে। সেইমতো পদক্ষেপ করার কথা বলা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের জেরে হাইওয়ে এলাকায় দৃশ্যমানতা কম থাকতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: ফণীর তাণ্ডবে শহর তোলপাড় হওয়ার আশঙ্কা, ছুটি থাকবে স্কুল

এদিন আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘‘সাধারণ মানুষের উদ্দেশে আমাদের বার্তা, কোনওরকম গুজবে কান দেবেন না। আবহাওয়ার আপডেট আমাদের কাছে জানুন।’’

আরও পড়ুন: ফণীর তাণ্ডবের আশঙ্কায় সতর্ক বাংলা, কী ব্যবস্থা নিল প্রশাসন?

এদিকে, আজ সকাল থেকেই কলকাতার আকাশে মেঘের আনাগোনা দেখা গিয়েছে। আগামিকাল সন্ধের পর থেকে শনিবার সন্ধে পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। শুক্রবার কলকাতা, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, দুই বর্ধমান, দুই ২৪ পরগনা, পুরুলিয়া বাঁকুড়া, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, ঝাড়গ্রামে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস। কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে। শনিবার ওই জেলায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। ৪ মে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টি হতে পারে। আজ সন্ধের পর থেকেই উপকূলবর্তী জেলায় ঘণ্টা ৪০-৫০ কিমি থেকে ৬০ কিমি বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। আগামিকাল হাওয়ার বেগ আরও বাড়বে। শুক্রবার ঘণ্টায় ৬০-৭০ কিমি থেকে বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। হাওয়ার সর্বোচ্চ বেগ হতে পারে ঘণ্টায় ৮৫ কিমি।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, ৫ তারিখের পর থেকে দুর্যোগ কাটবে বাংলায়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Cyclone fani west bengal odisha kolkata