scorecardresearch

বড় খবর

‘চারটে বোমা মেরে এলেই সব ফাঁকা হয়ে যাবে’, নাম না করে শুভেন্দুকে বেনজির হুমকি মদনের

অভিষেক, কুণালের পর এবার নাম না করে রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে বেনজির আক্রমণ মদন মিত্রের।

‘চারটে বোমা মেরে এলেই সব ফাঁকা হয়ে যাবে’, নাম না করে শুভেন্দুকে বেনজির হুমকি মদনের
এবার মদন মিত্রের নিশানায় শুভেন্দু অধিকারী।

এবার মদনের নিশানায় শুভেন্দু। নাম না করে রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে বেনজির আক্রমণ কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্রের। তিনি বলেন, ”এখনই একটা ছেলেকে নিয়ে দুটি বাইকে করে চারটে বোমা মেরে এলে সব ফাঁকা হয়ে যাবে। তবে এতে কৃতিত্বের কিছু নেই।”

গত মঙ্গলবার নবান্ন অভিযানকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয় শহর কলকাতার বিভিন্ন এলাকা। একাধিক জায়গায় পুলিশের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধে জড়াতে দেখা যায় বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের। পরিস্থিতি সামাল দিতে টিয়ার গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিশ। কোনও কোনও এলাকায় জলকামান ব্যবহার করে এবং লাঠিচার্জ করেও পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা হয়। পুলিশ নির্বিচারে বিজেপি কর্মীদের উপর অত্যাচার চালিয়েছে বলে অভিযোগ পদ্ম শিবিরের। নবান্ন অভিযানে বহু বিজেপি কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছেন।

অন্যদিকে, নবান্ন অভিযান শুরুর আগেই বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে সাঁতরাগাছি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শুভেন্দুর সঙ্গেই গ্রেফতার হন লকেট চট্টোপাধ্যায়, রাহুল সিনহারাও। শুভেন্দুর অভিযোগ ছিল, মহিলা পুলিশ দিয়ে তাঁকে গ্রেফতার করানোর পিছনে অভিসন্ধি ছিল রাজ্য সরকারের। এমনকী উত্তেজিত হয়ে তাঁকে মহিলা পুলিশকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলতে শোনা যায়, ”ডোন্ট টাচ মাই বডি। ইউ আর লেডি, আই অ্যাম মেল।” পুরুষ পুলিশ অফিসারের বদলে মহিলা পুলিশ অফিসারদের এগিয়ে দিয়ে তাঁকে ফাঁসানোর ষড়যন্ত্র করেছিল রাজ্য সরকার, এমনই অভিযোগ ছিল বিরোধী দলনেতার।

আরও পড়ুন- টিটাগড়ে স্কুলে বোমাবাজি, ধৃত ৪ জনের একজন বিদ্যালয়েরই প্রাক্তন ছাত্র

শুভেন্দুর এই মন্তব্য নিয়ে তাঁকে এর আগেও বেনজির আক্রমণ শানিয়েছিলেন সর্বভারতীয তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ এই ইস্যুতে শুভেন্দুকে ব্যক্তিগত আক্রমণ পর্যন্ত করে ফেলেছেন বলে অভিযোগ। এরই পাশাপাশি রাজ্য বিধানসভাতেও শুভেন্দুর মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় পড়ে গিযেছিল। তৃণনূলের মহিলা বিধায়করা শুভেন্দুর মন্তব্যের প্রতিবাদে প্ল্যাকার্ড হাতে তুমুল বিক্ষোভ জুড়ে দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন- বাংলার মফস্বলের পথকুকুর গবেষক শিক্ষক বিশ্বে সমাদৃত, অনাদর দেশের মাটিতে  

এবার আসরে মদন মিত্র। নাম না করে নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ককে বোমা-হুমকি কামারহাটির তৃণমূল বিধায়কের। মদন মিত্র বলেন, ”দলের নির্দেশ এলে ১০ মিনিটও সময় লাগবে না। ঘটি-বাটি মুড়িয়ে অন্য জায়গায় ফেরত পাঠাব। তবে দল বলেছে হিংসা নয়, সৃষ্টি চাই। গুণ্ডামিতো করাই যায়। এখনই একটা ছেলেকে বাইক নিয়ে পাঠিয়ে চারটে বোমা মারলেই সব ফাঁকা। তবে তাতে তো কৃতিত্বের কিছু নেই।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Madan mitra attacks suvendu adhikari regarding nabanna abhijan