scorecardresearch

বড় খবর

রাষ্ট্রপতি অবমাননা: অস্বস্তি বাড়তেই অনুতাপ প্রকাশ মমতার মন্ত্রীর, বিধায়ক পদ খারিজের আর্জি সৌমিত্রর

‘প্ররোচনায় পা দিয়ে ফেলেছেন মন্ত্রী। দায় নেবে না তৃণমূল।’ সাফ দাবি দলের রাজ্য সাদারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষের

রাষ্ট্রপতি অবমাননা: অস্বস্তি বাড়তেই অনুতাপ প্রকাশ মমতার মন্ত্রীর, বিধায়ক পদ খারিজের আর্জি সৌমিত্রর
সোচ্চার বিজেপি, 'প্ররোচনায় পা'- দাবি তৃণমূলের।

মন্ত্রী অখিল গিরির রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে মন্তব্যের জেরে অস্তস্তি বাড়ছে তৃণমূলের। তেড়েফুরে সরব বিজেপি। অমিত মালব্য থেকে সুকান্ত মজুমদার- সকাল থেকেই রাষ্ট্রপতির অবমাননা নিয়ে তোপ দাগছেন তাঁরা। সমালোচনা অন্যান্য মহল থেকেও এসেছে। এই পরিস্থিতিতে নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন রাজ্যের মৎসমন্ত্রী অখিল গিরি। তবে হাতে গরম ইস্যু ছাড়তে রাজি নয় পদ্ম শিবির। বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রী অখিলের বিধায়ক পদ খারিজের আর্জি জানিয়ে জাতীয় মহিলা কমিশনে চিঠি দিয়েছেন।

কী বলেছিলেন অখিল গিরি?

রাজনৈতিক কাদা ছোঁড়াছুঁড়িতে পার পেলেন না খোদ রাষ্ট্রপতিও। এবার দেশের রাষ্ট্রপতির রূপ নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্ক জড়ালেন রাজ্যের মন্ত্রী অখিল গিরি। যা নিয়ে তুঙ্গে রাজনীতি। শনিবার বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য একটি টুইট পোস্ট করেছেন। সেই টুইটে মাত্র কয়েক সেকেন্ডের একটি ভিডিও রয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে কোনও একটি সভায় বক্তব্য রাখছেন মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা অখিল গিরি। তাঁর সামনেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। ভরা সভায় বিরোধীদের আক্রমণ করতে গিয়ে হঠাৎই মন্ত্রী অখিল গিরি বলে ওঠেন, ‘আমরা রূপের বিচার করি না। তোমার রাষ্ট্রপতির চেয়ারকে আমরা সম্মান করি। তোমার রাষ্ট্রপতিকে কেমন দেখতে বাবা?’ এই ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করেনি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা।

সোচ্চার বিজেপি

অখিল গিরির বক্তব্যেপৃর ভিডিও টুইটে পোস্ট করে বিজেপির অমিত মালব্য লিখেছেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার সদস্য অখিল গিরি রাষ্ট্রপতিকে অপমান করে বলেছেন, আমরা চেহারা নিয়ে চিন্তা করি না। কিন্তু আপনার প্রেসিডেন্ট দেখতে কেমন? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বরাবরই আদিবাসী বিরোধী ছিলেন, রাষ্ট্রপতি মুর্মুকে সমর্থন করেননি এবং এখন এই ঘটন। এই বক্তৃতা লজ্জাজনক।’ প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারও। নন্দীগ্রাম থানা এফআইআর করা হয়েছে। কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মিছিল, পথ অবরোধও করা হয়।

ক্ষমা চেয়ে কী বললেন মন্ত্রী?

বেলা গড়াতেই চাপ বাড়তে থাকে তৃণমূলের উপর। শেষমেশ অনুতাপ প্রকাশ করেন মন্ত্রীমশাই। অখিল গিরি বলেন, ‘এক মাস আগে থেকে শুভেন্দু অধিকারী বিভিন্ন জায়গায় আমার সম্পর্কে কটূক্তি করেছিলেন। আমি বয়স্ক মানুষ। আমার মনে ক্রোধ জন্মেছিল। রাষ্ট্রপতি মহোদয়াকে আমি কোনও অসম্মান করিনি। তাঁর প্রতি আমার অগাধ শ্রদ্ধা রয়েছে। যে কথা আমার মুখ থেকে বেরিয়েছে, তা ক্রোধের বশে বেরিয়ে এসেছে। আমি অনুতপ্ত।

কী দাবি সৌমিত্রের

যদিও এসেবর পরও তৃণমূলের মন্ত্রীকে রেহাই দিচ্ছে না পদ্ম ব্রিগেড। সাংসদ সৌমিত্র খাঁ বাংলার কারামন্ত্রীর বিরুদ্ধে চিঠি লিখেছেন জাতীয় মহিলা কমিশনে। অখিল গিরির বিধায়ক পদ খারিজের দাবি জানিয়েছেন বিষ্ণুপুরের সাংসদ।

কী বলেছিলেন শুভেন্দু?

সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারী পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল নেতা তথা মন্ত্রী অখিল গিরির রূপ নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন বলে অভিযোগ। তাঁকে ‘দাঁত ফোকলা’ মন্ত্রী বলে বিঁধেছিলেন বিরোদী দলনেতা। শুধু তাই নয়, অখিল গিরিকে ‘কাকের মতো দেখতে’ বলেও কটাক্ষ করেছিলেন নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক। তাই শুভেন্দু অধিকারীকে জবাব দিতে গিয়েই এবার খোদ রাষ্ট্রপতিকে টেনে আনলেন অখিল গিরি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Minister akhil giri apologizes for insulting president draupadi murmu