বড় খবর

নৈহাটি বিস্ফোরণে সরব রাজ্যপাল

‘গোটা বিষয়টিতে বিশেষজ্ঞের দ্বারা প্রকৃত তদন্তের প্রয়োজন। এই ঘটনার জন্য প্রশাসনের যেসব আধিকারিক দায়বদ্ধ, তাঁদের অবিলম্বে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।’

রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

নৈহাটির মজিদপাড়ায় বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রশাসনের জবাব চাইলেন রাজ্যপাল। শুক্রবার দুপুরে বাজি কারখানার ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল নৈহাটির বিস্তীর্ণ এলাকা। ঘটনায় ৪ জন নিহত হয়েছেন বলে খবর। সেই ঘটনার প্রেক্ষিতেই এদিন টুইট করেন জগদীপ ধনকড়।

আরও পড়ুন: টিট ফর ট্যাট’!, ধনকড় ‘আন্তরিক’ হলে একসঙ্গে কাজের বার্তা পার্থর

টুইটে রাজ্যপাল লেখেন, ‘মজিদপাড়ায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। নৈহাটির ঘটনায় আমি ব্যথিত, একই সঙ্গে হতবাক হয়েছি। অভিযোগ, ওই বেআইনি কারখানায় বোমা তৈরি করা হত। ফলে গোটা বিষয়টিতে বিশেষজ্ঞের দ্বারা প্রকৃত তদন্তের প্রয়োজন। এ বিষয়ে প্রশাসনের যেসব আধিকারিক দায়বদ্ধ, তাঁদের অবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে হবে।’

উল্লেখ্য, শুক্রবারের ঘটনার পরই মজিদপাড়ায় যান ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। বিস্ফোরণের ঘটনায় এনআইএ তদন্তের দাবি করেছেন তিনি। তাঁর মতে, পুলিশের প্রত্যক্ষ মদতেই বেআইনি বোমা তৈরির কারখানা তৈরি হয়েছে। অর্জুন বলেন, ‘ব্যারকপুরের কমিশনার মনোজ ভর্মাকে তোলার বিনিময়ে বেআইনি বাজি কারখানাগুলি দিনের পর দিন চলছে। নামেই বাজি কারখানা, আসলে ওগুলো বোমা তৈরির জায়গা। এখান থেকে বিভিন্ন এলাকায় বোমা সরবরাহ করা হয়।’ বিজেপি সাংসদ সাফ জানিয়েছেন, ‘আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে বলেছি এই ঘটনার তদন্ত করতে। খতিয়ে দেখতে হবে এটা খাগড়াগড়ের মতো ঘটনা কি না। কেন্দ্রীয় এজেন্সির তদন্ত করা উচিত। এখানকার পুলিশের উপর কোনও বিশ্বাস নেই মানুষের। খাগড়াগড়ের বেলাতেও পুলিশ বলেছিল, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়েছে। এনআইএ তদন্ত করার পর আসল ব্যাপারটা সামনে আসে। এখানেও যে তেমন হচ্ছে না তা কে বলতে পারে।’

শনিবার ভোরে আমডাঙা থেকে কারখানার মালিককে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

Web Title: Naihati blast west bengal mamata banerjee government governor jagdeep dhankhar

Next Story
বর্ষবরণের রাতে গণধর্ষণের শিকার ২, আটক ৫
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com