scorecardresearch

বড় খবর

উৎসব আবহে ফিরছে চেনা আতঙ্ক, লাফিয়ে বাড়ছে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা

রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় ৪৮ হাজার ৭৬ টি টিকার ডোজ দেওয়ার কাজ হয়েছে।

উৎসব আবহে ফিরছে চেনা আতঙ্ক, লাফিয়ে বাড়ছে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা
উৎসব আবহে ফিরছে চেনা আতঙ্ক

উৎসবের মুখে আতঙ্ক বাড়াচ্ছে করোনা। একে জেলায় জেলায় বাড়ছে ডেঙ্গুর প্রকোপ। মাঝে কিছুটা কমলেও পুজোর মুখে ফের করোনার ভ্রুকুটি।লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। কেন মাঝে বিরতির পর ফের করোনার এই বাড়বাড়ন্ত? বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন পুজোর আনন্দে অধিকাংশ মানুষের মুখে নেই মাস্ক । রাস্তায় লাগাম ছাড়া ভিড়, একেবারেই করোনার আদর্শ পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে। এর ফলেই বাড়ছে করোনা।

এমনকী এখন থেকেই সাবধানতা মেনে না চললে পুজোর পর ফের করোনার লাগামছাড়া বৃদ্ধি অস্বাভাবিক কিছুই নয় এমনটাই আশঙ্কা জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। পরিসংখ্যান কী বলছে? রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুসারে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোভিড পজিটিভ হয়েছেন ৩০৯ জন এর পাশাপাশি মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। যা আগের দিন ছিল ২৭৯।

অর্থাৎ এক ধাক্কায় অনেকটাই বেড়েছে সংক্রমণ। পরিসংখ্যান বলছে রাজ্যে এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২১,১৩,৯৭৫ জন। মোট করোনার বলি ২১,৫০৩ জন। গত ২৪ ঘন্টায় কোভিডের কবল থেকে মুক্ত হয়েছেন ২৩৬ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার ৯৮.৮৩ শতাংশ। স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান বলছে এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২০,৮৯,৩০২জন। রাজ্যে অ্যাকটিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৩হাজার ১৭০ জন এর মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ১১৫ জন।

আরও পড়ুন: [ পুজো শুরুতেই সুখবর! টালা ব্রিজে শুরু বাস-মিনিবাস চলাচল ]

গত ২৪ ঘন্টায় মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৭হাজার ৩০০’র বেশি। এর মধ্যে ৪.২১ শতাংশের রিপোর্ট পজিটিভ। এর সঙ্গে রাজ্যে অব্যাহত রয়েছে টিকাদান কর্মসূচী। রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় ৪৮ হাজার ৭৬ টি টিকার ডোজ দেওয়ার কাজ হয়েছে।
প্রসঙ্গত দিনকয়েক ধরেই করোনার দাপট অনেকটা কমেছিল। ফের লাগামছাড়া ভিড়ে বাড়তে শুরু করেছে করোনার প্রকোপ। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ পুজোয় আনন্দ করার সঙ্গে সঙ্গে অবশ্যই মাস্কটা পরুন। সামান্য জ্বর সর্দি কাশি হলেও তা উপেক্ষা না করাই ভাল। ২৪ ঘণ্টার জ্বরেই রক্ত পরীক্ষারও পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Number of covid is increasing in festive season