বড় খবর

বাংলার বড় খবর: আমফান বিপর্যয়ে কেন্দ্রকে ১ লক্ষ কোটির ক্ষতির হিসেব দিল মমতা সরকার

তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, “আসলে দু-আড়াই লক্ষের বেশি বাড়িতে টাকা যায়নি। যাঁরা টাকা পেয়েছেন তাঁরা সব তৃণমূলের দলের লোক।”

সুপার সাইক্লোন আমফানে আমফান বিধ্বস্ত বাংলায় ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১ লক্ষ কোটিরও বেশি, শনিবার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের দলকে সেই হিসেবই দিল তৃণমূল সরকার। তাঁরা জানিয়েছে মোট প্রায় ১ লক্ষ ২৪৪২ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে। এদিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের যুগ্মসচিব অনুজ শর্মার নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। এছাড়াও এই বৈঠকে উপস্থত ছিলেন অন্যান্য দফতরের সচিব ও আধিকারিকরাও।

রাজ্যের সব গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়ুন এই প্রতিবেদনে…

‘কেন্দ্রের দেওয়া টাকা নিয়ে দুর্নীতি করেছে তৃণমূল’

আমফান বিপর্যয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া এক হাজার কোটি টাকার ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের দলের কাছে অভিযোগ করল বিজেপি। শুক্রবার আমফান বিধ্বস্ত দক্ষিণবঙ্গ পরিদর্শনের পর শনিবার কলকাতার এক পাঁচতারা হোটেলে কেন্দ্রীয় পরিদর্শনকারী দলের সঙ্গে বৈঠকে স্মারকলিপি দেয় বঙ্গ বিজেপি।

শনিবার কলকাতার এক পাঁচতারা হোটেলে কেন্দ্রীয় পরিদর্শনকারী দলের সঙ্গে বৈঠকে স্মারকলিপি দেয় বঙ্গ বিজেপি।

প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “আমফানে কেন্দ্র প্রাথমিক ভাবে এক হাজার কোটি টাকা দিয়েছে। সেই টাকা থেকে ৫ লক্ষ পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছে। আসলে দু-আড়াই লক্ষের বেশি বাড়িতে টাকা যায়নি। যাঁরা টাকা পেয়েছে তারা সব তৃণমূলের দলের লোক।” এমনকী তৃণমূলের বিরুদ্ধে কাটমানির অভিযোগও তোলেন দিলীপ ঘোষ।এদিন কংগ্রেস এবং সিপিআইএম দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গেও কথা বলে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের দলটি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

‘সাইক্লোন, কোভিড নিয়ে শুধু রাজনীতি করে যাচ্ছে’, দোষারোপে তৃণমূল-বিজেপি

প্রতিদিনই প্রায় করোনা সংক্রমণে রেকর্ড গড়ছে বাংলা। অন্যদিকে এখনও শহর ও শহরতলিতে রয়ে গিয়েছে আমফান ক্ষত। কিন্তু এই জোড়া সমস্যা নিয়ে এখনও বাগযুদ্ধ বজায় রয়েছে তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে। ত্রাণ দেওয়া ও ত্রাণের অর্থ নিয়ে দোষরোপ জারি রেখেছে শাসক-বিরোধী দু’পক্ষই।

* রাজ্যের এই দ্বৈত সঙ্কটে রাজনীতি করা নিয়ে বিজেপিকে তোপ দেগেছেন তৃণমূলের সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং পুরপ্রশাসক ফিরহাদ হাকিম

* ‘এই প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের মধ্যেও রাজনীতি করে যাচ্ছে বিজেপি। রাজনীতি ছাড়া আর কিছুই জানে না ওরা।” গেরুয়া শিবিরকে তোপ দাগেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

* অন্যদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েই বিজেপি জানান যে রাজনীতি করছে তৃণমূলই। তাই আমফান বিধ্বস্ত এলাকায় বিজেপি নেতাদের যেতে দেওয়া হচ্ছে না।

* বিজেপির জাতীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা বলেন, “আমাদের সহায়তা নেওয়ার পরিবর্তে, রাজ্য সরকার আমাদের নেতাদের ঘূর্ণিঝড় ক্ষতিগ্রস্থ লোকদের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা থেকে বিরত করেছিল।”

* রাহুল সিনহা আরও বলেন, “তারা চায় না যে আমরা মানুষের কাছে পৌঁছে যাই।”

* বিজেপি নেতার অভিযোগ, সিপিআইএম এবং কংগ্রেস নেতাদের সাইক্লোন ধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনের অনুমতি দিয়েছে রাজ্য প্রশাসন।

 

লকডাউন বাংলায় বাড়ছে নারী পাচার-বাল্যবিবাহ

ears rise of trafficking of girls
এক্সপ্রেস ফোটো- পার্থ পাল

লকডাউন বাংলায় বিভিন্ন জেলায় জেলায় অনেক জায়গা থেকেই উঠে আসছে নারীপাচার এবং বাল্যবিবাহের মতো ঘটনা। লকডাউন-আমফানে তছনছ অর্থনৈতিক জীবন ফের মহিলাদের জীবনে ডেকে আনছে ভয়াবহতা। তাৎপর্যপূর্ণভাবে লকডাউনের প্রথম মাস থেকেই নাবালিকা মেয়েদের জোর করে বিয়ের দেওয়ার মতো ঘটনা প্রায় আড়াই গুণ বেড়ে গিয়েছে। তবে এই বৃদ্ধি আশঙ্কার মেঘ জমাচ্ছে সমাজের সব মহলেই।

* মার্চের ২৩ তারিখ থেকে এপ্রিলের ২৩ তারিখ পর্যন্ত রাজ্য শিশু অধিকার সংরক্ষণ কমিশন (এসসিপিসিআর)-এ জমা পড়েছে ১৩৬টি অভিযোগ।

* বাল্যবিবাহ নিয়ে দিনে গড়ে প্রায় চারটি করে অভিযোগ এসেছে কমিশনে।

* সবচেয়ে বেশি এই দৃশ্য দেখা গিয়েছে মুর্শিদাবাদ, দুই ২৪ পরগণা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, মালদা, উত্তর এবং দক্ষিণ দিনাজপুরে।

* আগে যেখানে মাসে ৫০টি অভিযোগ আসত সেখানে এই মাসে সেই সংখ্যা দ্বিগূণেরও বেশি।

* কেন্দ্রীয় মহিলা ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রকের নোডাল অফিসের প্রধান সন্দীপ মিত্রের কথায়, “অর্থনৈতিক কারণেই এই মানসিকতা এসে গিয়েছে।”

* এসসিপিসিআর-এর চেয়ারপার্সন অন্যন্যা চক্রবর্তী বলেন, “এর মতো দুঃখজনক আর কিছুই হতে পারে না। আমরা নজর রাখছি সবরকমভাবে।”

বিস্তারিত পড়ুন এই প্রতিবেদনে, ‘দয়া করে আমাকে বাঁচান’! লকডাউন বাংলায় বাড়ছে নারী পাচার-বাল্যবিবাহ

দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়তে থাকুন

বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে দলের নেতাদের সতর্ক করলেন মমতা

mamata banerjee ration shop
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ফাইল ছবি

আগামী বিধানসভা নির্বাচনের জন্য কীভাবে এখন থেকেই কাজ শুরু করবেন সেই বিষয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় দলের মন্ত্রী, বিধায়ক, জেলা সভাপতিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গেরুয়া দলের ‘মিথ্যা প্রচারের’ বিরুদ্ধে কীভাবে মোকাবিলা করা উচিত এবং দলের সব স্তরের কর্মীদের স্বচ্ছতা বজায় রেখে কাজ করার নির্দেশ দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এমনটাই খবর।

* “ঘূর্ণিঝড় এবং লকডাউনের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ সকলের কাছে ত্রাণ পৌঁছানো উচিত। রাজনৈতিক যোগসূত্রের দিকে তাকাবেন না।”

* “ভুলে যাবেন না যে পরের বছর আপনাকে বিধানসভা নির্বাচনের মুখোমুখি হতে হবে।”

* “যারা এই নিয়ম মানবেন না তাঁদেরকে বাদ দিয়ে দলের তরুণ নেতাদের সুযোগ করে দেবেন তিনি”, জানালেন তৃণমূল বিধায়ক।

* দলীয় সূত্রে খবর, ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের ব্লু-প্রিন্ট তৈরি করার জন্যই এই বৈঠক।

সবিস্তারে পড়ুন এই প্রতিবেদনে, ‘ভুলে যাবেন না পরের বছর বিধানসভা নির্বাচনের মুখোমুখি হতে হবে’

রাজ্যের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়তে থাকুন,

 

‘পুলিশি বাধার’ মুখে সায়ন্তন

সায়ন্তন বসুর গাড়ি আটকানোর অভিযোগ

দলীয় কর্মীদের পাশে থাকতে গিয়ে বারবার পুলিশি বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে বিজেপির রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসুকে, শনিবারও ফের এমন অভিযোগ তুলল বিজেপি। এদিন পশ্চিম মেদিনীপুর ঢোকার মুখে আশারিতে সায়ন্তন বসুর গাড়ি আটকে দেয় পুলিশ, এমনটাই খবর বিজেপি সূত্রে।

* পশ্চিম মেদিনীপুর ঢোকার মুখে আশারিতে সায়ন্তন বসুর গাড়ি আটকে দেয় পুলিশ, এমনটাই খবর বিজেপি সূত্রে।
* শুক্রবার বিজেপি কর্মীদের গ্রেফতার করার প্রতিবাদে পুলিশের সঙ্গে বাগযুদ্ধে জড়ান সায়ন্তন বসু।
* দলের কর্মীদের পাশে থাকার বার্তা দিতে ভদ্রেশ্বরে যান, কিন্তু থানায় যাওয়ার আগেই তাঁকে আটকে দেয় পুলিশ, এমনটাই অভিযোগ উঠেছে গেরুয়া শিবিরের তরফে।
* পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে ভদ্রেশ্বর থানার সামনে একটি সমাবেশ চলছে। বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সেখানে গেলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হওয়ার আশঙ্কা ছিল।
* পুলিশের এই অভিযোগ মানতে নারাজ সায়ন্তন বসু, এমনটাই খবর বিজেপি সূত্রে।

রাজ্যের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়তে থাকুন,

রাজ্যের বিরোধী দলের সঙ্গে বৈঠক কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলের

আমফান বিধ্বস্ত উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিস্তীর্ণ এলাকা শুক্রবার পরিদর্শন করেছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। ৭ সদস্যের কেন্দ্রীয় দল হেলিকপ্টারের পাশাপাশি লঞ্চে করে বিপর্যস্ত এলাকায় গিয়েছিলেন। তাঁরা স্থানীয় প্রশাসনের কর্তাদের পাশাপাশি কথা বলেছেন সাইক্লোন দুর্গতদের সঙ্গেও। প্রত্যক্ষ করেছেন ঝড়-জলের তান্ডবের চিত্র। দুই জেলা পরিদর্শনের পর শনিবার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল শহরের এক পাঁচ তারা হোটেলে রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বর সঙ্গে বৈঠক করবেন এমনটাই জানা গিয়েছে। সূত্র মারফত খবর,  কংগ্রেস, সিপিআইএম-এর শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গেও আলোচনা করবে কেন্দ্রীয় দল।

আজকের দিনের রাজ্যের সব গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়ুন এই প্রতিবেদনে

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Top news of west bengal kolkata 6 june 2020 politics chief mamata banerjee central team bjp tmc dilip ghosh kolkata police

Next Story
বঙ্গোপসাগরে ফের নিম্নচাপের সম্ভাবনা, আবার কি ধেয়ে আসবে ঘূর্ণিঝড়?cyclone, ঘূর্ণিঝড়, বঙ্গোপসগেরে ঘূর্ণিঝড়, নিম্নচাপ, cyclone storm, বঙ্গোপসাগর, bay of bengal, west bengal, weather update, rain, storm, cyclone alert, kolkata, weather news, weather upadate, আবহাওয়ার খবর, পশ্চিমবঙ্গে ঘূর্ণিঝড়, কলকাতা, আবহাওয়ার পূর্বাভাস, বৃষ্টির পূর্বাভাস, ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস, সাইক্লোন, ঘূর্ণিঝড় আপডেট, সাইক্লোন আপডেট, বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com