নির্বাচন বিধি নিয়ে কমিশনে চিঠি তৃণমূলের-এবার “আমাদের দিলীপদা”-তৃণমূল নেতানেত্রীকে তলব ইডির-বিজেপি সাংসদকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ তৃণমূল নেতার-যাদবপুরে বন্ধ সব বিভাগ

West Bengal, Kolkata Today Latest News Update: আজ বাংলার গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়ুন এক এক করে...

By:
Edited By: Pallabi Dey Kolkata  Updated: July 7, 2020, 07:58:52 AM

West Bengal Today News Update: পোস্টাল ব্যালটে ভোটের সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করল তৃণমূল কংগ্রেস। এ বিষয়ে সোমবার দিল্লিতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে চিঠি দিয়েছে ঘাসফুল শিবির। ‘দিদিকে বলো’, ‘বাপ কে বলো’-র পর এবার দিলীপদাকে বলো, অর্থাৎ “আমাদের দিলীপদা”। লকডাউনে ত্রাণ নিয়ে তলব করা হয়েছে শামস ও সাবা ইকবালকে। বিজেপি সাংসদকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ তৃণমূল নেতার। স্বাস্থ্য নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বন্ধ করা হল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কাজ। আজ বাংলার গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়ুন এক এক করে…

নির্বাচন বিধি সংশোধন নিয়ে তীব্র বিরোধিতা তৃণমূলের, চিঠি কমিশনে

mamata banerjee মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল চিত্র

৬৫ বছরের বেশি ভোটারদের জন্য পোস্টাল ব্যালটে ভোটের সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করল তৃণমূল কংগ্রেস। এ বিষয়ে সোমবার দিল্লিতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে চিঠি দিয়েছে ঘাসফুল শিবির। চিঠিতে বলা হয়েছে, তৃণমূল মনে করে এই ধরনের পদ্ধতি অসাংবিধানিক, খামখেয়ালি ও দুরভিসন্ধিমূলক। প্রধানমন্ত্রী ছাড়া এদেশের একাধিক মুখ্যমন্ত্রীর বয়স ৬৫ বছরের ওপর। তাঁরা প্রচার করবেন অথচ বুথে গিয়ে ভোট দিতে পারবেন না তা-ও হাস্যকর।

সোমবার নির্বাচন বিধি সংস্কারের ইস্যুতে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারাণ সম্পদক সুব্রত বক্সী দিল্লিতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে চিঠি দিয়েছেন। তৃণমূল চিঠিতে উল্লেখ করেছে, কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা না করেই নির্বাচন বিধি সংশোধনের কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে দল।

৬৫ বছরের বেশি বয়সের ভোটাদের জন্য কমিশন যে পোস্টাল ব্যালটের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা মানা যায় না। এর ফলে স্বচ্ছ ও অবাধ ভোটদান প্রক্রিয়া ব্যাহত হবে। এমনকী গোপনীয়তা ক্ষুন্ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই সিদ্ধান্ত বাতিল করার দাবি জানিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূলের বক্তব্য়, ৬৫ বছর বা তার বেশি বয়সের ভোটারের সংখ্যা ৬ শতাংশ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও ১৩ জন মুখ্যমন্ত্রীর বয়স ৬৫ বা তার বেশি। তাঁরা প্রচার করবেন অথচ ভোট দিতে পারবেন না এটা একেবারে দুর্বোধ্য বিষয়।

রাজ্যের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়তে থাকুন নীচে,

‘দিদিকে বলো’, ‘বাপ কে বলো’- এবার “আমাদের দিলীপদা”

dilip ghosh, দিলীপ ছবি: ফেসবুক।

‘দিদিকে বলো’, ‘বাপ কে বলো’-র পর এবার দিলীপদাকে বলো, অর্থাৎ “আমাদের দিলীপদা”। আমফান ঝড়ে ক্ষতিপূরণ না পেয়ে নানা দিকে ক্ষোভ-বিক্ষোভ চলছে। সেই ক্ষোভের মাঝেই ফেসবুক পোষ্ট। বঙ্গ বিজেপির রাজ্য সভপতি দিলীপ ঘোষ নিজের ফেসবুকে পোষ্ট করে বলেছেন, “আপনি যদি আমফান ঝড়ের ক্ষতিপূরণ না পেয়ে থাকেন, তাহলে নিম্নলিখিত লিংকের মাধ্যমে আমাদের জানান। লিংটি হল- www.amaderdilidda.in/cyclone-amphan।” সোমবার দুপুরে এই পোস্টটি করা হয়েছে।

আমফানের ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণের টাকা নিয়ে নানা জায়গায় স্বজনপোষণ ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। অনেকে টাকা ফেরতও দিচ্ছেন। আমফান ত্রাণের বিলিবণ্টন নিয়ে ল্যাজে-গোবরে অবস্থা তৃণমূল কংগ্রেসের। রাজনৈতিক মহলের মতে, পরিস্থিতির সুযোগ বুঝে এবার আসরে হাজির ”আমাদের দিলীপদা”। যোগাযোগের কথা বলা হলেও কীভাবে বিজেপি তাঁদের সাহায্য করবে সেকথা ওই পোস্টে উল্লেখ করা হয়নি।

রাজ্যের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়তে থাকুন নীচে,

ত্রাণে গন্ডগোলের জের, তৃণমূল নেতা-নেত্রীকে তলব ইডির

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

লকডাউনে ত্রাণ নিয়ে গার্ডেনরিচে তৃণমূল কংগ্রেসের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ ঘটেছিল। অভিযোগ উঠেছিল, সেই সংঘর্ষে চলেছিল গুলি-বোমা। উত্তপ্ত হয়েছিল পুরো এলাকা।ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার জেরে তলব করা হয়েছে শামস ও সাবা ইকবালকে। যদিও নোটিশের কথা অস্বীকার করেছে শামস ইকবাল।

* ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার জেরে তলব করা হয়েছে শামস ও সাবা ইকবালকে। যদিও নোটিশের কথা অস্বীকার করেছে শামস ইকবাল।

* ১৩৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আখতারী শাহজাদা এলাকার দুস্থ লোকেদেরকে ত্রাণ বিলি করছিল।

*২৯ জুন রাতের সংঘর্ষে শাসক দলের বেশ কয়েকজন জখম হয়েছিলেন। অভিযোগ ওঠে ত্রাণ দেওয়াকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় রাত ১২টা থেকে শুরু হয় দু’পক্ষের মধ্যে বোতল ছড়াছড়ি, অভিযোগ বোমাবাজিও হয়।

* ইডি সূত্রের খবর, ওই দিনের ঘটনায় শামস ও সাবাকে ইডি নোটিশ পাঠিয়ে বলেছে আগামী সপ্তাহে দফতরে হাজির হতে।

রাজ্যের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়তে থাকুন নীচে,

‘দাপুটে’ বিজেপি সাংসদকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ তৃণমূল নেতার

ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠছে উত্তর ২৪ পরগনার হালিশহর। ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং অভিযোগ করেছেন, তৃণমূল ও পুলিশ তাঁর গাড়ি সহ বেশি কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করেছে। এমনকী তাঁকে পুলিশ লাঠিপেটা করেছে এবং অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করেছে বীজপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক কৃষ্ণেন্দু বোস।

* অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুবোধ অধিকারীর অভিযোগ, নিরাপত্তা রক্ষী ও গুন্ডাবাহিনী নিয়ে হালিশহর অশান্ত করছে ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন অর্জুন সিংকে।

*হালিশহরের প্রাক্তন চেয়ারম্যান রাজা দত্তের বাড়ির ছাদে বিজেপি বৈঠক করার সময় গন্ডগোল শুরু হয়ে যায়। পরে বোমা ও গুলি চলে বলেও অভিযোগ ওঠে।

*ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের অভিযোগ, “হালিশহরের বলদেঘাটা এলাকায় প্রাক্তন পুরপ্রধান রাজা দত্তের বাড়ির ছাদে দলীয় বৈঠক চলছিল। মিটিং শুরু হতেই নীচে গিয়ে দেখি তৃণমূল নেতা সুবোধ অধিকারী ও পুলিশ দাঁড়িয়ে আমাদের গাড়ি ভাঙচুর করছে। মোটর সাইকেল পুড়িয়ে দিয়েছে। বীজপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। নির্লজ্জ ভাবে আমাকে কাঁচ কাঁচা খিস্তি করেছে। আমাদের কর্মীদের বাড়িতে আক্রমন করেছে।”

রাজ্যের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি পড়তে থাকুন নীচে,

যাদবপুরে করোনা আক্রান্ত কর্মী, বন্ধ হল সমস্ত বিভাগ

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা বিভাগে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত কর্মী। স্বাস্থ্য নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বন্ধ করা হল প্রশাসনিক কাজ।

* জানা যাচ্ছে,  গবেষণা বিভাগের ওই কর্মী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কোথায় কখন কার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন সে বিষয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

* যত দ্রুত সম্ভব কলকাতা পুরসভার তত্ত্বাবধানে গোটা অরবিন্দ ভবন স্যানিটাইজ করার আশ্বাস দিয়েছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

* জরুরি পরিষেবা ছাড়া ১২ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ থাকবে সল্টলেক ক্যাম্পাস-সহ যাদবপুরের সমস্ত বিভাগ।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the West-bengal News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

West bengal kolkata today latest news update 6 july 2020 mamata banerjee tmc bjp dilip ghosh jadavpur university eb summoned tmc letter election commission

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
MUST READ
X