ট্রাম্পকার্ড দ্রৌপদী মুর্মু, গেরুয়া চালে আশঙ্কার দোলাচলে মমতা!

শুক্রবার মমতা দ্রৌপদী মুর্মুর জয়ের ইঙ্গিতই দিলেন। তাঁর ঘোষণা, আদিবাসী-দলিতরা তাঁদের সঙ্গে রয়েছে।

why mamata banerjee is worried about draupadi murmu
তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়ছে?

হুল দিবসেই জঙ্গলমহলে রাষ্ট্রপতি পদে বিজেপি প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মুর নাম নিয়ে একদফা প্রচার শুরু করে দিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এমনকী ভোটে জয়ের পর জঙ্গলমহলে দ্রৌপদী মুর্মুকে নিয়ে আসা হবে সেকথাও ঘোষণা করেন বিরোধী দলনেতা। অভিজ্ঞ মহলের মতে, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে সরাসরি জনগণের অংশগ্রহণ না থাকলেও বিজেপি যে আদিবাসীদের কাছের দল সেকথা বোঝাতেই হুল দিবসকে বেছে নিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। গেরুয়া শিবিরের মহিলা আদিবাসী প্রার্থীর ইউএসপি ভাঙতে এবার ময়দানে নেমে পড়লেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানিয়ে দিলেন বিজেপি আগে দ্রৌপদী মুর্মুর প্রার্থীপদের কথা জানালে তৃণমূল কংগ্রেস অন্য দিদ্ধান্ত নিতে পারত।

কার্যক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, এবার রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থী ঠিক করতে উদ্যোগ নিয়েছিলেন খোদ তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২২ অবিজেপি দলকে দিল্লিতে বৈঠকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন তিনি। শেষমেশ ১৭ দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী দেওয়া নিয়ে সিদ্ধান্ত নেয় বিজেপি বিরোধী দলগুলি। এমনকী তৃণমূলের সর্বভারতীয় সহসভাপতি পদে যশবন্ত সিনহা পদত্যাগ করে রাষ্ট্রপতি পদে বিরোধীদের যৌথ প্রার্থী হয়েছেন। যদিও বিজেডি, টিআরএস, ওয়াইএসআর কংগ্রেস, আপ এই জোটে সামিল হয়নি। প্রার্থীদের মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর শুক্রবার মমতা দ্রৌপদী মুর্মুর জয়ের ইঙ্গিতই দিলেন। তাঁর ঘোষণা, আদিবাসী-দলিতরা তাঁদের সঙ্গে রয়েছে। এর আগে প্রণব মুখোপাধ্যায় রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী হওয়ার সময়েও শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদল করেছিল তৃণমূল।

আরও পড়ুন- ‘এগিয়ে দ্রৌপদীই, আগে বললে ভাবতাম’, রাষ্ট্রপতি ভোট নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য মমতার

এরাজ্যের জঙ্গলমহল মূলত আদিবাসী অধ্যুষিত। এছাড়া উত্তরবঙ্গের কিছু অংশ ও রাজ্যের সর্বত্র ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষজন। উত্তরবঙ্গ সফরের সময় আদিবাসীদের গানের তালে তাঁদের সঙ্গে নৃত্য করতেও দেখা গিয়েছে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে। রাষ্ট্রপতি পদে আদিবাসী প্রার্থী দিয়ে এরাজ্যেও বাজিমাত করতে চায় বিজেপি। যার ইঙ্গিত হুল দিবসেই দিয়েছেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক। এর পাশাপাশি মহারাষ্ট্র শিবসেনা সরকারের গদি উল্টে যাওয়ার পর পরিস্থিতি আরও বদলে গিয়েছে। দ্রৌপদী মুর্মুর জয় একপ্রকার নিশ্চিত বলে ভোটের আগে মেনে নিচ্ছেন খোদ বিরোধী ঐক্যের ডাক দেওয়া তৃণমূল কংগ্রেস।

২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিমমেদিনীপুরে প্রত্যাশানুযায়ী ফল হয়নি গেরুয়া শিবিরের। বিজেপির মুখ রক্ষা করেছে উত্তরবঙ্গ। পশ্চিমের জঙ্গলমহল ও উত্তরবঙ্গই বিজেপিকে এরাজ্যে লোকসভা নির্বাচনে ২ থেকে ১৮ সাংসদ পেতে সাহায্য করেছিল। উত্তরবঙ্গে একটি মাত্র লোকসভার আসন কম পেয়েছিল, কিন্তু জঙ্গলমহলে সবকটি কেন্দ্রেই জয়ী হয়েছিল বিজেপি। সেখানে কিছু লোকসভা আসনে বিপুল ভোটে জয় এসেছিল। রাষ্ট্রপতি পদে মহিলা আদিবাসী প্রার্থী হওয়ায় ফের বিজেপি জঙ্গলমহলে সংগঠন মজবুত করতে ময়দানে নেমে পড়েছে। রাজনৈতিক মহলের মতে, বিজেপি যে আদিবাসীদের কতটা গুরুত্ব দেয় তা জানান দিতে সেখানকার সভাসমাবেশে রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থীর নাম প্রচারই বড় প্রমান। দ্রৌপদী মুর্মুর কথা তুলে ধরে এরাজ্যের আদিবাসীদের ভোট ব্যাংক ফিরে পেতে চাইছে বিজেপি। সেই অংকে অশনি সংকেত দেখছে তৃণমূল কংগ্রেস।

বিজেপি আদিবাসী ও দলিতদের ভোট পেতে এর আগেও এরাজ্যে নানা কর্মসূচি নিয়েছে। আদিবাসী ও দলিতদের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ খেয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। রাজনৈতিক মহলের মতে, রাষ্ট্রপতি পদে আদিবাসী মহিলা প্রার্থী এখন এরাজ্যে বিজেপির কাছে ট্রাম্প কার্ড। একে আদিবাসী ভোট ব্য়াংক তারওপর দ্রৌপদী মুর্মুর জয় নিশ্চিত ভেবে প্রায় সমর্থনের ইঙ্গিত দিয়েই দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Why mamata banerjee is worried about draupadi murmu

Next Story
ধর্ম যার যার, উৎসব সবার, রথযাত্রায় এগাঁয়ের হিন্দু-মুসলিম মিলে মিশে একাকার