scorecardresearch

টানা যুদ্ধে ধুঁকছে ইউক্রেন, প্রায় শেষ সামরিক শক্তি, দাবি রাশিয়ার

এক মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ। জট কাটাতে মঙ্গলবার ফের একবার তুরস্কে আলোচনা দু’পক্ষের।

টানা যুদ্ধে ধুঁকছে ইউক্রেন, প্রায় শেষ সামরিক শক্তি, দাবি রাশিয়ার
ইউক্রেনের সামরিক শক্তি প্রায় শেষ বলেই দাবি রাশিয়ার।

টানা যুদ্ধে ধুঁকছে ইউক্রেন, দেশটির সামরিক শক্তি প্রায় শেষ বলেই দাবি রাশিয়ার। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে রাশিয়ার মতো সুপারপাওয়ার একটি দেশের বিরুদ্ধে লড়তে গিয়ে ইউক্রেনের যুদ্ধবিমানও শেষ হয়ে গিয়েছে বলে দাবি করেছেন রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

এক মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে রশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ। রাশিয়ার মতো বিশাল শক্তিধর একটি দেশের সঙ্গে দাঁতে দাঁত চেপে লড়ে চলেছে ইউক্রেন। যুদ্ধ থামাতে বরাবর তৎপরতা দেখিয়ে গিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির জেলেনস্কি। পুতিনও দফায়-দফায় ইউক্রেনের প্রশাসনের সঙ্গে শান্তি বৈঠকে দূত পাঠিয়েছেন। তবে জট কাটেনি। একের পর এক বৈঠকেও মেলেনি রফাসূত্র। বরং ইউক্রেন আগ্রাসনের ঝাঁঝ বাড়িয়েই গিয়েছে রাশিয়া।

ইউক্রেনের অভিযোগ, মুখে আলোচনার কথা বলে চললেও শান্তি বৈঠক চলাকালীনও ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে আছড়ে পড়েছে রুশ গোলা। রুশ হামলায় মৃত্যু মিছিল দেখছে ইউক্রেন। রাজধানী কিভ থেকে শুরু করে খারকিভ, মারিউপোল, খেরসন-সহ একাধিক শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ধ্বংসের ছবি। রুশ গোলাবর্ষণে তছনছ দেশটির বিভিন্ন প্রান্ত।

এক মাসেরও বেশি সময় ধরে রাশিয়ার সেনার বিরুদ্ধে রক্তক্ষয়ী সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেনের সেনা। সংবাদসংস্থা রয়টার্স রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে ঊদ্ধৃত করে জানিয়েছে, ইউক্রেনের সামরিক ক্ষমতা ব্যাপকভাবে কমে আসছে। টানা যুদ্ধে দেশটির বিমান বাহিনীর ক্ষমতাও শেষ হয়ে গিয়েছে। রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর আরও দাবি, ”গত দু’সপ্তাহে ইউক্রেনে প্রায় ৬০০ বিদেশি ভাড়াটে সেনা নিহত হয়েছে।”

আরও পড়ুন- ইউহানের বিভীষিকা ফিরল সাংহাইয়ে, বাড়ির বাইরে বেরনো একদম বারণ

অন্যদিকে, মঙ্গলবারই ফের এক দফায় আলোচনার টেবিলে রাশিয়া-ইউক্রেন। করমর্দন-পর্ব ছাড়াই এবার তুরস্কে আলোচনা শুরু হয়েছে দু’পক্ষের। তবে আলোচনার টেবিলে যাওয়ার আগেও ইউক্রেনে হামলা জারি রেখেছে রুশ সেনা। ইন্টারফ্যাক্স নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, সোমবার সন্ধেতেও ক্রুজ মিসাইল দিয়ে ইউক্রেনের রিভনে অঞ্চলে একটি বড় জ্বালানি ডিপো ধ্বংস করে দিয়েছে রাশিয়া।

এদিকে, এই আবহে এবার ভারত সফরে আসছেন রাশিয়ার বিদেশমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। সম্ভবত চলতি সপ্তাহেই ভারত আসবেন রুশ বিদেশমন্ত্রী। জানা গিয়েছে, তেল এবং সামরিক সরঞ্জাম মস্কো থেকে আমদানির জন্য আর্থিক লেলেদেনের বিষয়ে আলোচনা হতে পারে দু’পক্ষের। উল্লেখ্য, ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়া যুদ্ধ ঘোষণার পর এটিই পুতিনের দেশের তরফে সর্বোচ্চ পর্যায়ের ভারত সফর।

উল্টোদিকে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রসংঘ। রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস জানিয়েছেন ইউক্রেনে যুদ্ধ থামাতে তিনি ভারত, তুরস্ক-সহ চিন, ইজরায়েলের মতো দেশগুলির সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে যোগাযোগ রেখে চলেছেন। মধ্যস্থতার মাধ্যমেই রফাসূত্র খোঁজার চেষ্টা চলছে বলেও জানিয়েছেন গুতেরেস।

Read story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest World news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ukraines military capability degraded and it no longer has an airforce says russia