বড় খবর

কেরালায় বিমান বিপর্যয়ে ক্ষতিপূরণ কেন্দ্রের।। সুশান্তকাণ্ডে বিস্ফোরক বিহারের আইপিএস।। ‘জয় শ্রী রাম’ না বলায় অটোচালককে বেধড়ক ‘মার’

আজ কী ঘটল দেশে? আপডেটেড থাকতে আপনাকে যে খবর জানতেই হবে, দিনের সব গুরুত্বপূর্ণ খবর এই প্রতিবেদনে।

India latest news, দেশের খবর, ভারতের খবর
দেশের খবর একনজরে।

কেরালার কোঝিকোড়ে বিমান দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবার ও জখমদের ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় সরকার। বিপর্যস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার করা হয়েছে। এদিন দুর্ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেন কেরালার মুখ্য়মন্ত্রী ও অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী। এদিকে, সুশান্তকাণ্ডে বিস্ফোরক মন্তব্য় করলেন বিহারের আইপিএস বিনয় তিওয়ারি। অন্য়দিকে, ‘জয় শ্রী রাম’ ও ‘মোদী জিন্দাবাদ’ না বলায় ৫২ বছর বয়সী এক অটোচালককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল দুই ব্য়ক্তির বিরুদ্ধে। দেশের এমনই সব খবর পড়ে নিন এক এক করে…

কেরালা বিমান দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ ঘোষণা কেন্দ্রের

কোঝিকোড়ে ভয়াবহ বিমান বিপর্যয়

কেরালার কোঝিকোড়ে বিমান দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় সরকার। অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী জানিয়েছেন, নিহতদের পরিবার পিছু ১০ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হবে। এছাড়া, গুরুতর জখমদের মাথাপিছু ২ লক্ষ ও যাঁদের চোট সামান্য তাঁদের ৫০ হাজার করে ক্ষতিপূরণ দেবে কেন্দ্র।

* শুক্রবার রাতে কোঝিকোড় বিমানবন্দরে অবতরণের সময় পিছলে গিয়ে দু’টুকরো হয়ে যায় দুবাই ফেরত এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের বিমান আইএক্স- ১৩৪৪। শুক্রবার সন্ধ্যায় অবতরণের সময় বিমানটি পিছলে একটি খাদে পড়ে।

*দুর্ঘটনায় বিমানের পাইলট, কো-পাইলট-সহ অন্তত ১৮ জনের মৃত্য হয়েছে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানটিতে ক্রু সদস্য-সহ মোট ১৯০ জন যাত্রী ছিলেন।

*শনিবার বিপর্যস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার করা হয়েছে। বিমানটি কেন দুর্ঘটনার কবলে পড়ল তা এই ব্ল্যাক বক্সের তথ্য যাচাই করে বলা সম্ভব। (সবিস্তারে পড়ুন)

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন 

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

কেরালা বিমান বিপর্যয়ে তদন্ত কমিটি গঠন কেন্দ্রের

দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমান

কেরালার কোঝিকোড়ে এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস বিমান দুর্ঘটনার তদন্ত হবে বলে জানালেন অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী। দুবাই থেকে কালিকটগামী বিমানটি প্রতিকূল আবহাওয়ায় রানওয়েতে অবতরণের সময় পিছলে ৩৫ ফুট খাদে পড়ে যায়। দুর্ঘটনাগ্রস্ত এয়ার এক্সপ্রেস বিমানটি দু’টুকরো হয়ে যায়। দুর্ঘটনার জেরে ওই বিমানের পাইলট, সহকারী পাইলট-সহ কমপক্ষে ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

*দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানটিতে ৩৫ জন ক্রু সদস্য-সহ মোট ১৯০ জন যাত্রী ছিলেন। অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী বলেছেন, ‘যাত্রীদের উদ্ধারে সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এয়ারক্র্যাফ্ট অ্যাকসিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো এই বিপর্যের তদন্ত করবে। তদন্তের জন্য ইতিমধ্যেই দিল্লি ও মুম্বই থেকে বিশেষজ্ঞরা দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছেন।’

*মন্ত্রী পুরীর মন্তব্যের আগে অসামরিক বিমান পরিবহনমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে যে, শুক্রবার সন্ধ্যা ৭.৪১ নাগাদ কোঝিকোড়ে পৌঁছায় করোনা অতিমারির মধ্যে বিদেশে আটকে পড়া ভারতীয়দের ফেরানোর ‘বন্দে ভারত’ অভিযানের অন্তর্ভুক্ত এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের উড়ান আইএক্স-১৩৪৪। অবতরণের সময় বিমানে আগুন লক্ষ্য করা যায়নি। ওই বিমানে ১৭৪ জন প্রাপ্তবয়স্ক যাত্রী, ১০টি শিশু, ২ জন পাইলট ও ৪ জন বিমানকর্মী ছিলেন। রানওয়েতে অবতরণের পর বিমানটি পিছলে গিয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

‘আমাকে নয়, সুশান্ত মৃত্যু তদন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছিল’

Sushant Singh Rajput
সুশান্ত সিং রাজপুত

কোয়ারেন্টিন মুক্ত হয়ে পাটনায় ফিরেছেন বিহার পুলিশে কর্মরত আইপিএস বিনয় তিওয়ারি। সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে মুম্বই পৌঁছানো পাটনা পুলিশের এসপিকে কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই কোয়ারেন্টিইন করে বৃহন্মুম্বই পুরনিগম। ঘটনায় প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন বিহার পুলিশের সর্বোচ্চ কর্তা। বিহার পুলিশের ডিজিপি গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আলাদতে যাওয়ার হুমকি পর্যন্ত দিয়েছিলেন। শুক্রবার সকালেই কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্ত করে দেওয়া হয় পাটনার এসপি বিনয় তিওয়ারিকে। তবে শর্তে বলা হয়, ৮ই অগস্টের আগেই পাটনা ফিরে যেতে হবে বিনয় তিওয়ারিকে। পাটনা পুলিশের দ্বিতীয় চিঠির প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয় বৃহন্মুম্বই পুরনিগম।

*মুম্বই ছাড়ার আগে আইপিএস বিনয় তিওয়ারি বলেন, ‘আমাকে নয়, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত মামলা কোয়েরিন্টিন করেছিল বৃহন্মুম্বই পুরনিগম।’

*বিহার পুলিশের কাছে সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কেকে সিংয়ের দায়ের করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত রবিবার মুম্বই গিয়েছিলেন আইপিএস বিনয় তিওয়ারি। কিন্তু বাণিজ্য নগরীতে পৌঁছানো মাত্র তাঁকে কোয়ারেন্টিন করা হয়। যাকে কেন্দ্র করে মুম্বই পুলিশ বনাম বিহার পুলিশের বাকযুদ্ধ নজরে আসে। (বিস্তারিত পড়ুন)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

‘জয় শ্রী রাম’-‘মোদী জিন্দাবাদ’ না বলায় অটোচালককে ‘বেধড়ক মার’ রাজস্থানে

Autorickshaw driver assaulted in Rajasthan, রাজস্থানের খবর
ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

‘জয় শ্রী রাম’ ও ‘মোদী জিন্দাবাদ’ না বলায় ৫২ বছর বয়সী এক অটোচালককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল দুই ব্য়ক্তির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের সিকার জেলায়। প্রৌঢ়কে মারধরের অভিযোগে ২ ব্য়ক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

*পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, গফ্ফর আহমেদ কাছওয়া নামে এক ব্য়ক্তির এফআইআরের ভিত্তিতে দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মারধরের পাশাপাশি তাঁর থেকে নগদ ৭০০ টাকা ও হাতঘড়ি অভিযুক্তরা লুঠ করেছে বলেও অভিযোগ করেছেন গফ্ফর আহমেদ কাছওয়া। মারধরের জেরে তাঁর দাঁত ভেঙেছে, চোখ ফুলেছে বলে দাবি করেছেন তিনি। তাঁকে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

*অভিযোগপত্রে গফ্ফর জানিয়েছেন, ”এক ব্য়ক্তি আমায় ‘মোদী জিন্দাবাদ’ স্লোগান বলতে বলেন। আমি তা অস্বীকার করি…এরপরই আমায় সপাটে চড় মারা হয়। তারপরই আমার গাড়ি নিয়ে সিকারের দিকে পালানোর চেষ্টা করি। কিন্তু তারা আমার গাড়ি অনুসরণ করে জগমালপুরার কাছে আমায় আটকায়। জোর করে আমায় গাড়ি থেকে নামিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়…এরপর তারা আমায় জোর করে ‘মোদী জিন্দাবাদ’ ও ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি দিতে বলেন”। মারধরের পর তাঁকে পাকিস্তানে পাঠানোর কথাও বলা হয় বলে অভিযোগ তাঁর। (বিস্তারিত পড়ুন)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

‘২০১৪ সালের আগে করোনা ছড়ালে লকডাউন জারি সম্ভব হত?’ প্রশ্ন মোদীর

pm modi, মোদী
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

যদি ২০১৪ সালের আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ত, তাহলে কী হত! সে সময় কি লকডাউন জারি করা সম্ভব হত? করোনা পরিস্থিতিতে শনিবার এমন বিস্ময় প্রকাশই করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

*রাষ্ট্রীয় স্বচ্ছ কেন্দ্রের উদ্বোধনে মোদী বললেন, ”ভাবুন, ২০১৪ সালের আগে যদি করোনা ছড়াত, তাহলে কী হত। গ্রাম বাংলায় শৌচাগার ছিল না, আমরা কি ভাইরাস ঠেকাতে পারতাম? যেখানে জনগোষ্ঠীর ৬০ শতাংশ খোলা আকাশে শৌচকর্ম সারে, সেখানে লকডাউন জারি করতে পারতাম কি?”

* মোদী আরও বলেছেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে স্বচ্ছতার অভিযান খুব ভাল ভাবে কাজে দিয়েছে।

* করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সকলকে মাস্ক পরতে ও দূরত্ববিধি মেনে চলার বার্তা দিয়েছেন নমো। (Read in English)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

এবার মুদির দোকানের কর্মী,-সবজি বিক্রেতাদের করোনা পরীক্ষা, নির্দেশ কেন্দ্রের

সাবধানতা অবলম্বনে এবার সব্জি বিক্রেতাদেরও নমুনা পরীক্ষা হবে।

ভারতে করোনা সংক্রমণ যেন থামতেই চাইছে না। সংক্রমণের মাত্রা দিনে দিনে বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রক রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলোকে নির্দেশ দিয়ে জানিয়েছে যে, এখন থেকে মুদির দোকানের কর্মী, সবজি বিক্রেতা ও অন্যান্য ভেন্ডারদেরও নমুনা পরীক্ষা করতে হবে। অজান্তেই এইসব লোকেদের মধ্যে যদি করোনা জীবাণু থেকে থাকে তবে তাঁদের থেকে বহু মানুষের সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসাবেই মুদির দোকানের কর্মী, সবজি বিক্রেতা ও অন্যান্য ভেন্ডারদের করোনা পরীক্ষা করানো উচিত।

স্বাস্থ্য দফতরের সচিব রাজেশ ভূষণ রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলোকে দেওয়া চিঠিতে জানিয়েছেন, অ্যাম্বুলান্সে অক্সিজেন সিলিন্ডার থাকাটা একান্ত জরুরি। কুইক রেসপন্স মেকানিজিম পোক্ত করতে হবে। করোনা রোগীদের হাসপাতালাতে নিয়ে যেতে অ্যাম্বুলান্সের প্রত্যাক্ষানের হার শূন্যে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করতে হবে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুসারে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০,৮৮,৬১১। এখনও পর্যন্ত কোভিড-১৯ সংক্রমণে দেশে মৃত্যু হয়েছে ৪২,৫১৮ জনের। সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৪,২৭,০০৫ জন। ভারতে এখন অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ৬,১৯,০৮৮। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬১,৫৩৭ জন। সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৯৩৩ জনের। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

১ লক্ষ কোটি টাকার কৃষি তহবিল, উদ্বোধনে মোদী

PM Modi Smart India hackathon 2020
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

কৃষি পরিকাঠামো উন্নয়নে এক লক্ষ কোটি টাকার তহবিল ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার প্রধানমন্ত্রীর দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী কৃষি পরিকাঠামো তহবিলের আনুষ্ঠানিক সূচনা করবেন রবিবার সকাল ১১টায়।

*একইসঙ্গে জানানো হয়েছে যে, ওই দিনই পিএম কিষান প্রকল্পে ১৭ হাজার কোটি টাকার ষষ্ঠ কিস্তির অর্থও বিতরণ শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী। এই প্রকল্পে উপকৃত হবেন প্রায় সাড়ে আট কোটি কৃষক।

*ভার্চুয়াল এই সূচনা অনুষ্ঠানের সাক্ষী থাকবেন দেশের কয়েক লাখ কৃষক ও সমবায়গুলো। অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন কেন্দ্রীয় কৃষি ও কৃষক উন্নয়ন মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর। (বিস্তারিত পড়ুন)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

দেশে করোনায় মৃত প্রায় ২০০ ডাক্তার, জানাল আইএমএ

corona
প্রতীকী ছবি।

দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে এখনও পর্যন্ত মোট ১৯৬ জন চিকিৎসকের মৃত্য়ু হয়েছে। শনিবার এমনটাই জানাল ইন্ডিয়ান মেডিক্য়াল অ্য়াসোসিয়েশন (আইএমএ)। এ ব্য়াপারে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে তারা।

* আইএমএ-র তরফে জানানো হয়েছে, ‘করোনায় ১৯৬ জন ডাক্তারের মৃত্য়ু হয়েছে। যাঁদের মধ্য়ে ১৭০ জনের বয়স পঞ্চাশের উপর”।

* করোনা চিকিৎসায় ডাক্তারদের সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আইএমএ।

* ডাক্তার ও তাঁদের পরিবারের প্রতি বিশেষ যত্ন নিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠিতে অনুরোধ করেছে আইএমএ। (Read in English)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

সাংসদদের মাঝে পলিকার্বনেটের ব্যবধান, বেনজিররূপে সাজতে পারে সংসদ

india virtual parliament
সংসদ ভবন, ফাইল ছবি

করোনা আবহে আগামী সেপ্টেম্বরে সংসদে ফের অধিবেশন বসতে চলেছে। রাজ্যসভা ও লোকসভা দুই কক্ষেই অধিবেশন চলবে- এমন পরিকল্পনা নিয়েই প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। তবে বেনজরিরূপে দেখা যাবে দুই কক্ষকে। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে, দুই কক্ষের একটির সকালে ও অন্যটি দুপুরে সভা হবে। তা সম্ভব না হলে একদিন অন্তর করে দুই কক্ষের সভা হতে পারে। লোকসভার ও রাজ্যসভার অধ্যক্ষ এবং সাংসদরা আলোচনার মাধ্যমে এই বিষয়টি চূড়ান্ত করবেন বলে জানা গিয়েছে।

৫৪২ আসন বিশিষ্ট লোকসভায় ১৬৮ জন সাংসদ বর্তমানে লোকসভার চেম্বারে বসতে পারবেন। বাকিদের নিম্নক্ষের গ্যালারি, রাজ্যসভার গ্যালারিতে বসার জায়গা দেওয়া হবে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে যে, রাজ্যসভার সাংসদদেরও একই পদ্ধতিতে বসার জায়গা চূড়ান্ত করে দেওয়া হবে। সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে রাজ্যসভার কক্ষে ৭৬ জন সাংসদ বসতে পারবেন। অবশ্য একদম সামনের সারিতে যেসব প্রবীণ সাংসদদের বসার জায়গা স্থির করা রয়েছে তাঁদের ক্ষেত্রে কিছুটা ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে। এক্ষেত্রে তাঁদের সভা এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হবে।

সামাজিক দূরত্ব বিধি বজায় রাখতে লোকসভার দুটো সারির মাঝে পলিকার্বোনেট শিট ব্যবহার করা হবে। তবে, রাজ্যসভায় সদস্য় সংখ্যা কম থাকায় এই শিট ব্যবহার করা নাও হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।

যেহেতু কয়েকজন সাংসদ গ্যালারিতে ও বাকিরা চেম্বারে বসবেন তাই বড় স্ক্রিনের টিভি লাগানো হবে। বিতর্কে অংশ নিতে প্রত্যেক সাংসদের সামনেই মাইক্রোফোন থাকবে।

লোকসভা-রাজ্যসভায় কোন রাজনৈতিক দলের কী আসন সংখ্যা তা বিচার করেই সাংসদের আসন স্থির করা হবে।

সূত্র জানাচ্ছে, বর্তমান পরিকল্পনার বিষয়ে সহমত হওয়ার আগে উভয় সভার প্রিজাইডিং অফিসাররা ভার্চুয়াল অধিবেশনের প্রস্তাব করেছিলেন। ভারত সরকারের সাইবার পরিকাঠামো সরবরাহকারী ন্যাশনাল ইনফরম্যাটিকস সেন্টারকে এমন একটি অ্যাপ তৈরি করার কথা বলা হয় যার মাধ্যমে সাংসদরা নিজেদের মতামত দিতে পারবেন।

করোনা আবহে অনেক দেশের আইনসভায় আলোচনা, বিতর্ক ভার্চুয়াল হচ্ছে। সেই উদাহরণ দিয়েই রাজ্যসভার অধ্যক্ষ ভেঙ্কাইয়া নাইডু ভার্চুয়াল সভার পক্ষে থাকলেও লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা সাংসদদের শরীরে উপস্থিত থেকেই সভার পক্ষে মত দেন।

চলতি বছর ২৩ মার্চে সংসদে শেষ অধিবেশন বসেছিল। নিয়ম আনুসারে আগামী ছয় মাসের মধ্যে অধিবেশন বসতেই হবে। সেক্ষেত্রে ২২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সংসদে অধিবেশন বসাতে হবে। Read in English

দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ খবর পড়ুন এই প্রতিবেদনে

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: India top news national today latest news update 8 august 2020 india modi bjp congress parliament corona

Next Story
‘জয় শ্রী রাম’-‘মোদী জিন্দাবাদ’ না বলায় অটোচালককে ‘বেধড়ক মার’ রাজস্থানেAutorickshaw driver assaulted in Rajasthan, রাজস্থানের খবর
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com