scorecardresearch

বড় খবর

‘নাগরিকত্ব পাওয়ার অধিকার নেই বহিরাগতদের’, এনআরসি বিতর্কে ঘি ঢাললেন সুরেশ যোশী

নাগরিকপঞ্জিকে কেন্দ্র করে ওঠা বিতর্ক প্রসঙ্গে সুরেশ ভাইয়াজি যোশীর বক্তব্য, “শুধুমাত্র আসাম নয়, সরকারকে অবশ্যই পুরো দেশের জন্য একটি এনআরসি পরিকল্পনা করতে হবে।”

‘নাগরিকত্ব পাওয়ার অধিকার নেই বহিরাগতদের’, এনআরসি বিতর্কে ঘি ঢাললেন সুরেশ যোশী
আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক সুরেশ যোশী

‘সরকারের উচিত সারা দেশের জন্য নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) প্রস্তুত করা। এনআরসি দিয়েই ভারতে প্রবেশ করা অনুপ্রবেশকারীদের বিদেশি হিসেবে চিহ্নিত করতে হবে এবং তাঁদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে’, শুক্রবার এমন মন্তব্যেই নাগরিকপঞ্জি বিতর্কে ঘি ঢাললেন আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক সুরেশ ভাইয়াজি যোশী। ভুবনেশ্বরে অনুষ্ঠিত অখিল ভারতীয় কার্যকরী মণ্ডলের বৈঠক থেকে সংবাদ মাধ্যমের উদ্দেশ্যে আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “এনআরসি প্রস্তুত করা প্রতিটি সরকারের কাজ। অনেক ধরনের অনুপ্রবেশ ঘটেছে দেশে। সুতরাং একবার এনআরসি চালু করে যারা ভারতীয় নাগরিক নন তাঁদের চিহ্নিত করা উচিত। পরবর্তীতে তাঁদের কী করা উচিত সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য একটি খসড়া প্রস্তুত করাও প্রয়োজন।”

আরও পড়ুন- বাংলাদেশের ‘গুলির’ পাল্টা জবাব দেয়নি ভারত, মন্তব্য বিএসএফের

নাগরিকপঞ্জিকে কেন্দ্র করে ওঠা বিতর্ক প্রসঙ্গে সুরেশ ভাইয়াজি যোশীর বক্তব্য, “শুধুমাত্র আসাম নয়, সরকারকে অবশ্যই পুরো দেশের জন্য একটি এনআরসি পরিকল্পনা করতে হবে।” তবে কী একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়কে লক্ষ্য করেই এই এনআরসি পরিচালিত হবে? এ প্রশ্নের জবাবে আরএসএস নেতা বলেন, “এটি কোনও সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে গিয়ে করা হবে এমন ভাবার কোনও কারণ নেই।” তাঁর মতে, আরএসএসের অবস্থান সবসময়ই অনুপ্রবেশকারীদের ভারতীয় নাগরিক বলে স্বীকার করার বিপক্ষে ছিল। যোশী বলেন, “সরকার অবশ্যই অনুপ্রবেশকারীদের বিদেশী নাগরিক হিসাবে চিহ্নিত করবে এবং তারপরে তাঁদের কী করা হবে সে সিদ্ধান্ত নেবে সরকার। কী ধরনের সিদ্ধান্ত নেবে তাঁরা তা সরকারের নীতির উপর নির্ভর করবে।”

আরও পড়ুন- ‘দ্বিতীয় স্ত্রী বিদেশি হলেই নোবেল মিলছে’, অভিজিৎ প্রসঙ্গে বেলাগাম রাহুল সিনহা

সম্প্রতি জাতীয়তাবাদ নিয়ে সোচ্চার হয়েছিলেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) প্রধান মোহন ভাগবত। ভুবনেশ্বরে বিশিষ্ট নাগরিক সম্মিলনী নামক অনুষ্ঠানে যোগদান করে জাতীয়তাবাদ, তার মূলনীতি এবং হিন্দুত্ব সম্পর্কে বক্তব্য রাখেন আরএসএস প্রধান। তিনি বলেন, “জাতীয়তাবাদের নামে মানুষ ভয় পায় কারণ জাতীয়তাবাদ বলতেই তাঁরা ভাবেন হিটলার আর মুসোলিনির কথা। তবে ভারতে এই জাতীয়তাবাদের অর্থ আলাদা। কারণ ভারত তার নিজস্ব সংস্কৃতি নিয়ে গড়ে উঠেছে।”

আরও পড়ুন- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির কিছুই বোঝেন না, প্রচারসভায় সোচ্চার রাহুল

এবার সেই একই সুরে আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “জাতীয়তাবিরোধী ও অসামাজিক কার্যকলাপ তদন্ত করা এবং তাঁদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া যে কোনও সরকারের দায়িত্ব। আমরা এই সরকার এবং পূর্ববর্তী সরকারকেও অনুরোধ করেছি দেশে নিরাপদ পরিবেশ তৈরি করার জন্য।” এমনকি ভুবনেশ্বরের অনুষ্ঠান থেকে অযোধ্যা মামলা নিয়েও মুখ খোলেন আরএসএস নেতা। তিনি বলেন, “আমরা আশা করছি অযোধ্যাতে রাম মন্দির তৈরির রায় হিন্দুদের পক্ষেই থাকবে। “আমরা বহু বছর ধরেই বলে আসছি যে রাম মন্দির নির্মাণের ক্ষেত্রে যে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হচ্ছে তা দূর করা উচিত। আমরা আশা করছি রায়টি হিন্দুদের পক্ষেই যাবে।”

 

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: No citizen rights for outsiders prepare nrc for whole country rss general secretory