বইপাড়া খবর

সর্বজিৎ সরকারের কবিতা

সর্বজিৎ সরকারের কবিতা

বেশ কয়েকবছর ধরে লিখছেন, কয়েকটি কাব্যগ্রন্থও রয়েছে। কবিতার পাশাপাশি গল্প লেখাতেও তাঁর মুন্সিয়ানা পাঠকমহলে স্বীকৃত। এবার সেই সর্বজিৎ সরকারের কবিতা।

চারটি কবিতা: দুর্জয় আশরাফুল ইসলাম

চারটি কবিতা: দুর্জয় আশরাফুল ইসলাম

বাংলাদেশের সাহিত্যের অনন্যতা নিয়ে প্রায় সকল বাংলা পাঠকই একমত। কী কবিতায়, কী গল্পে, নিজেদের স্বাক্ষর রেখে চলেছেন সে দেশের প্রবীণ-নবীন লেখকরা। তরুণ কবি দুর্জয় আশরাফুল ইসলামের একগুচ্ছ কবিতায় ধরা পড়েছে সমকালীন বাংলা কাব্যভাষার নৈপুণ্য।

‌ছোটগল্প:  ভালবাসার রেসিপি

‌ছোটগল্প: ভালবাসার রেসিপি

প্রবীণ নন, কিন্তু বাংলা কথাসাহিত্যের জগতে পরিপক্ক কলমের প্রতিনিধিমূলক লেখালিখি তাঁর কাছ থেকেই এখন প্রত্যাশা করেন পাঠকরা, যা তিনি পূরণও করতে ভোলেন না। এবার সেই শীর্ষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প।

তিনটি কবিতা- জারিফা জাহান

তিনটি কবিতা- জারিফা জাহান

তরুণ কবি জারিফা জাহানের লেখালিখির বয়স বেশি নয়। তবু লেখনীশক্তির কারণেই তিনি অল্পদিনের মধ্যেই নজর কাড়তে শুরু করেছেন। রইল তাঁর তিনটি কবিতা।

ছোট গল্প: পিকনিক

ছোট গল্প: পিকনিক

‘‘দু’পাশে পাকা ধানের সোনালি সম্ভার। সামনে কালচে বন রেখা। বনের ওপারে সারি সারি টিলা ডুংরি পাহাড়।’’- রাঢ় বাংলার প্রকৃতি শুধু নয়, আত্মাও উঠে এসেছে নুন চা লেখক বিমল লামার ছোট গল্পে।

হারাতে বসেছে ৬০০টি ভাষা, বরাক উপত্যকার ভাষা শহিদ দিবস উপলক্ষে বিশেষ সাক্ষাৎকার

হারাতে বসেছে ৬০০টি ভাষা, বরাক উপত্যকার ভাষা শহিদ দিবস উপলক্ষে বিশেষ সাক্ষাৎকার

হিমালয়সন্নিহিত অঞ্চলে তুষারকে অন্তত ২০০ টি নামে ডাকা হয়ে থাকে, মুম্বইয়ের কাছে এক গ্রামের লোকজন পুরনো ধরনের একটি পর্তুগিজ ভাষায় কথা বলে থাকেন- শিলচরের ভাষা শহিদ দিবস উপলক্ষে গণেশ দেবীর বিশেষ সাক্ষাৎকার

গুলশন-এ-গজল

গুলশন-এ-গজল

‘‘অনভিজাত ভারতীয় শ্রোতাদের কাছে গজলকে পৌঁছে দেওয়ার কৃতিত্ব দুজন বিরাট মাপের শিল্পীর। তাঁরা হলেন কুন্দনলাল সায়গল আর বেগম অখতার।’’ গজল নিয়ে জানা-অজানা নানা তথ্য ও বিশ্লেষণে শিবাংশু দে।

কল্পবিজ্ঞানের গল্প: ঘরের মধ্যে ‘ঘর’

কল্পবিজ্ঞানের গল্প: ঘরের মধ্যে ‘ঘর’

কয়েকজন বিজ্ঞানীর অক্লান্ত প্রচেষ্টায় আমরা তৈরি করলাম এই যন্ত্রটা। যার নাম ‘গ্রিনহাউস এয়ার রিফ্রেশার’। সংক্ষেপে জি. এইচ. এ. আর বা এককথায ‘ঘর’। কল্পবিজ্ঞানের গল্প লিখলেন সুকুমার রুজ।

সাদাত হাসান মান্টোর গল্প:  লাইসেন্স

সাদাত হাসান মান্টোর গল্প: লাইসেন্স

১৯১২ সালের ১১ মে জন্মেছিলেন সাদাত হাসান মান্টো। ৩ বার ব্রিটিশ আমলে ও ৩ বার স্বাধীন পাকিস্তানে অশ্লীলতার দায়ে অভিযুক্ত হয়েছেন উর্দু ভাষার এই প্রখ্যাত লেখক। মান্টোর জন্মদিনে তাঁর একটি গল্পের অনুবাদ করলেন অনির্বাণ রায়।

এই সময়, আমরা এবং রবীন্দ্রনাথের ‘মুক্তধারা’

এই সময়, আমরা এবং রবীন্দ্রনাথের ‘মুক্তধারা’

রবি ঠাকুরের জন্মদিনে মুক্তধারা মনে পড়ে মুর্শিদাবাদবাসী নীহারুলের। কারণ তাঁর দৈনন্দিনতায় তিনি প্রত্যক্ষ করেন, তাঁর পাশের গ্রামগুলি ভেঙে পড়ে, পড়তেই থাকে।

রবীন্দ্রনাথের ‘বক-কবিতা’

রবীন্দ্রনাথের ‘বক-কবিতা’

বাঙালি জীবনে রবীন্দ্রনাথ কোনওদিনই একক ব্যক্তি নন। শরতের আকাশের মতই দুই বাংলায় তাঁর ব্যাপ্তি। বাঙালির রক্তস্রোতে বয়ে চলেছেন অবিরাম। তাঁর কথাই এখানে। উদ্বাস্তু-মননে কিবোর্ডে আঙুল দিলেন অধীর বিশ্বাস।

দুই বাংলার দুই কবির দু জোড়া কবিতা

দুই বাংলার দুই কবির দু জোড়া কবিতা

এবারে একযোগে প্রকাশিত হল দুই কবির চারটি কবিতা। দীর্ঘদিন ধরে লিখছেন সুদীপ বসু। তাঁর একটি সিরিজের দুটি কবিতা। কবি ও গীতিকার ফেরদৌস রহমান বাংলাদেশে যথেষ্ট পরিচিত নাম। রইল তাঁরও দুটি কবিতা।

প্রান্তিক মানুষের ইতিহাস ও এক বিস্মৃত বই

প্রান্তিক মানুষের ইতিহাস ও এক বিস্মৃত বই

দেশভাগ, উদ্বাস্তু মানুষ, এ রাজ্যে দীর্ঘদিন ধরেই রাজনীতির অন্যতম বিষয়। সে নিয়ে বাংলা ভাষায় চর্চা হয়নি তেমন নয়। কিন্তু অবহেলিত থেকে গেছে জরুরি কাজ। লিখছেন ইস্তাম্বুলের সাবাঞ্জে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক প্রবীরেন্দ্র চট্টোপাধ্যায়।

পাগলের পাগলামি কিংবা একটি নিখাদ প্রেমের গল্প

পাগলের পাগলামি কিংবা একটি নিখাদ প্রেমের গল্প

পরির গল্প। প্রেমে পড়ার গল্প। ব্যর্থতা আর সাফল্যের বাইরে গিয়ে আকাঙ্ক্ষার গল্প। বাংলার প্রান্তরের গল্প লিখেছেন নীহারুল ইসলাম।

জয়শীলা গুহ বাগচীর তিনটি কবিতা

জয়শীলা গুহ বাগচীর তিনটি কবিতা

শূন্য দশক বলে যে সময়কালকে চিহ্নিত করা হয়ে থাকে, তখন থেকেই লিখছেন, একাধিক কবিতার বইও আছে তাঁর। শহর কলকাতা থেকে দূরে, জলপাইগুড়িতে শিক্ষকতার সঙ্গে যুক্ত। প্রকাশিত হল জয়শীলা গুহ বাগচীর তিনটি কবিতা।

ছোট গল্প: উপনিবেশ

ছোট গল্প: উপনিবেশ

শহর ক্রমে বাড়তে থাকে দৈর্ঘ্যে, প্রস্থে, এমনকি উচ্চতায়ও। বৃদ্ধির এই কাল ঘটমান বর্তমান। রাস্তা চকচকে হয় বটে, কিন্তু বাড়বৃদ্ধির রাস্তাগুলো কেমন? সাহিত্যে ধরা পড়ে সমাজপ্রতিফলন, কখনও কখনও। গল্প লিখলেন শাক্যজিৎ ভট্টাচার্য।

নিঃসঙ্গতার একশ বছর

নিঃসঙ্গতার একশ বছর

অন্তরের দুর্বলতাকে আপ্রাণ চেষ্টা করে ঢাকা দেওয়ার আরেক নামও সম্ভবত একাকিত্ব। কখনো পরিস্থিতি এতই বিপ্রতীপ হয়ে ওঠে, নিঃসঙ্গতাকে ছাড়িয়ে জেগে ওঠে হিংস্রতা। লিখছেন ইস্তাম্বুলের সাবাঞ্জে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক প্রবীরেন্দ্র চট্টোপাধ্যায়।

Advertisement

ট্রেন্ডিং
Big News
X