scorecardresearch

বড় খবর

‘ঘনঘন এখন তৃণমূলের বিপর্যয় মোকাবিলা বৈঠক হবে’, কটাক্ষ দিলীপের

‘যে পার্টির এমপি, এমএলএ ছেড়ে চলে যায়, সেই পাটির কিছু আছে নাকি! এক মাসের পরে দেখবেন পার্টি বলে কিছু থাকবে না।

‘রাজ্য সরকার প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলায় ব্যর্থ। তবে এখন ঘনঘন তৃণমূলের বিপর্যয় মোকাবিলা বৈঠক হবে। এক মাসের মধ্যে দলটাই আর থাকবে না।’ শনিবার তৃণমূলকে এই ভাবেই আক্রমণ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

শুভেন্দু অধিকারীর পদত্য়াগ, মুখ্যমন্ত্রীর বিভিন্ন প্রতিশ্রতি নিয়ে এদিন নিউ টাউনের ইকো পার্কে প্রাতঃভ্রমণের এক ফাঁকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, ‘মুখ্যমন্ত্রী এখন প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। নির্বাচনের আগে সব প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। কল্পতরু হয়ে উঠছেন। ১০ বছর আগে তা করলে আজ এই দুরবস্থা হত না। সবাই পার্টি ছেড়ে পালিয়ে যেত না।’ তাঁর দাবি, ‘যে পার্টির এমপি, এমএলএ ছেড়ে চলে যায়, সেই পাটির কিছু আছে নাকি! এক মাসের পরে দেখবেন পার্টি বলে কিছু থাকবে না। অনেকে আছেন যাঁরা আগামীতে বিজেপিতে জয়েন করবেন।’

ইকো পার্কে দিলীপ ঘোষ

এই প্রসঙ্গেই বঙ্গ বিজেপির প্রধান বলেছেন, ‘এমএলএ-এমপি অনেকেই আছেন যাঁরা তৃণমূল ছাড়বেন। মাসখানেকের মধ্যে আরও অনেক ঘটনা ঘটবে। তৃণমূল সরকার ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টে পুরো ফেল। তবে পার্টির যে ডিজাস্টার শুরু হয়েছে, তা নিয়ে দিদিমণি এখন খুব ব্যস্ত রয়েছেন। এই ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের মিটিং এখন নিয়মিত হবে। সপ্তাহে সপ্তাহে হবে। দিনে দিনে দিনেও হতে পারে। দফতরগুলো খালি হাতে রেখেছেন খালি পার্টিটা নিজের হাতে নেই।’

আরও পড়ুন- ‘মমতার কাছে প্রশাসন চালানো শিখুন মোদী’, স্বাস্থ্যসাথীর প্রশংসা করে খোঁচা অভিষেকের

গতকালই শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রিত্ব ছেড়েছেন। দল না ছাড়লেও গেরুয়া শিবিরে তাঁর যোগদান নিয়ে জোর জল্পনা। এই পরিপ্রেক্ষিতে মেদিনীপুরের সাংসদ বলেছেন, ‘আমার সঙ্গে দলে যোগ দেওয়া নিয়ে শুভেন্দুবাবুর কোনও কথা হয়নি। উনিতো এখনও তৃণমূলেই রয়েছে। তবে, যোগদান প্রতিদিন হচ্ছে, জেলায় জেলায় হচ্ছে। প্রচুর মানুষ আছেন জেলায় জেলায় যোগদান করছেন। তাই আমরা যোগদান মেলা করছি। যদি বড়সড় কোনও নেতা হন কেউ দিল্লি জয়েন করছেন কেউ কলকাতায়। যেমন যেমন লোকজন আসবেন তেমন আমরা ব্যবস্থা করব।’

আরও পড়ুন- “মারের বদলা মার”, ফের নিদান দিলীপের

শুভেন্দুর মন্ত্রিত্ব ত্যাগ, মিহির গোস্বামীর বিজেপিতে যোগদানে য়েন বাড়তি উদ্যমে গেরুয়া বাহিনী। ২১-এর ভোটের তাই খখনও নাম করে, আবার কখনও নাম না করে মমতা সরকারকে লাগাতার আক্রমণ শানাচ্ছেন বিজেপি নেতৃত্ব। এদিনের দিলীপ ঘোষের মন্তব্যেও তার আঁচ মিলল।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Dilip ghosh slams tmc sayes tmc s disaster management meeting will be held often