scorecardresearch

বড় খবর

বিশাল চমক সময়ের অপেক্ষা? মোদী-শাহের দেখা পেতে মুখিয়ে রাউত, ভূয়সী প্রশংসা ফড়নবিশের

বুধবারই জামিনে মুক্তি পেয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে গোষ্ঠীর শিবসেনা নেতা তথা সাংসদ সঞ্জয় রাউত।

বিশাল চমক সময়ের অপেক্ষা? মোদী-শাহের দেখা পেতে মুখিয়ে রাউত, ভূয়সী প্রশংসা ফড়নবিশের
বিজেপির প্রতি রাউতের নরম মনোভাব বাড়াল জল্পনা।

জেল-মুক্তির পরের দিনই উদ্ধব ঠাকরে নেতৃত্বাধীন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন বিজেপি শাসিত মহারাষ্ট্রের উপ-মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশকে। গত কয়েক মাসে ফড়নবিশের নেওয়া একধিক সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন রাউত। বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়েছেন, শীঘ্রই ফড়নবিশের পাশাপাশি দিল্লিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গেও দেখা করবেন তিনি। গত ১০০ দিনে জেলবন্দি থাকা অবস্থায় তাঁকে কী কী সহ্য করতে হয়েছে বিশদে তাঁদের তা জানাবেন রাউত। যদিও হঠাৎ রাউতের পদ্ম-স্তুতি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে কিন্তু জল্পনা ছড়িয়েছে। সবাইকে আবাক করে দিয়ে সঞ্জয় রাউতের এই বিজেপি-প্রীতি নিয়ে আড়ালে গুঞ্জন শুরু।

পাত্র চাল পুনর্নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ রাউতকে গ্রেফতার করে ইডি। মুম্বইয়ের আর্থার রোড জেলে ছিলেন তিনি। ১ অগাস্ট মুম্বইয়ের বাড়ি থেকে শিবসেনার এই সাংসদকে গ্রেফতার করেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। তিন মাস পর অবশেষে গতকালই জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত। রাউতকে জামিন দিয়েছে মুম্বইয়ের বিশেষ আদালত। এমনকী জামিন দেওয়ার সময় বিচারক জানিয়েছেন, অবৈধভাবে সঞ্জয় রাউতকে গ্রেফতার করেছিল ইডি। তাঁকে জামিন দিতে গিয়ে বুধবার মুম্বইয়ের বিশেষ আদালতের বিচারক বলেছিলেন, ”আর্থিক জালিয়াতি, আর্থিক বেনিয়মের অভিযোগে একজন নিরপরাধ মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারির জন্য যে কারণগুলি দেখানো হয়েছে, সেগুলি পর্যাপ্ত নয়।”

এদিকে, বুধবার জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর বৃহস্পতিবারই বিজেপি নেতৃত্বাধীন মহারাষ্ট্র সরকার সম্পর্কে প্রশংসার বাণী সঞ্জয় রাউতের মুখে। শুধু তাই নয় শীঘ্রই দিল্লি গিয়ে মোদী, শাহের সঙ্গেও দেখা করবেন বলে এদিন জানিয়েছেন রাউত। তিন মাসের জেল জীবন নিয়ে তাঁর কারও বিরুদ্ধে কোনও ক্ষোভ নেই বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন এই শিবসেনা নেতা।

আরও পড়ুন- প্রবল বিতর্কের মাঝে ঢোক গিললেন কংগ্রেস নেতা, ‘হিন্দু’ নিয়ে মন্তব্য প্রত্যাহার, ক্ষমা প্রার্থনা

এদিন মুম্বইয়ে নিজের বাংলোর বাইরে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, “আমি কেন্দ্রীয় সংস্থা বা সরকার কারও বিরুদ্ধেই সমালোচনা করব না বা কথা বলব না। আমি কষ্ট পেয়েছি। শুধু বিরোধিতা করার জন্য আমরা কারও বিরোধিতা করব না। তাঁরা ভালো কাজ করলে আমরাও তাঁদের প্রশংসা করব এবং স্বাগত জানাব। বর্তমান প্রশাসনও কিছু ভালো কাজ করেছে।”

তিনি আরও বলেন, “যে সিদ্ধান্তগুলি দেশ বা রাষ্ট্রের জন্য ভালো সেগুলিকে স্বাগত জানানো উচিত। আমি উপ-মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশের নেওয়া সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। আমি খুব শীঘ্রই ফড়নবিসের সঙ্গে দেখা করব।” রাজনীতিবিদদের মধ্যে তিক্ততা শেষ হওয়া উচিত বলেই মনে করেন রাউত। তবে এখনই মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডের সঙ্গে তাঁর দেখা হওয়ার সম্ভাবনা কম বলেই জানিয়েছেন রাউত। এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ”এই সরকারের অধিকাংশ ভালো সিদ্ধান্ত ফড়নবিশই নিয়েছেন। তাঁর সঙ্গে আমার কিছু কাজও রয়েছে। সেই কারণে প্রথমে আমি তাঁর সঙ্গেই দেখা করব।”

আরও পড়ুন- ‘মনমোহনের কাছে দেশ সর্বদা ঋণী থাকবে’, জল্পনা বাড়িয়ে শোরগোল ফেললেন মোদীর মন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গেও দেখা করবেন বলে জানিয়ে রাউত বলেন, ”আমার সঙ্গে যা ঘটেছে আমি তাঁদের বলব। তবে আমি কারও সঙ্গে দেখা করছি মানে এই নয় যে নরম অবস্থান নিয়েছি।” খোদ আদালত তাঁর গ্রেফতারিকে বেআইনি বলেছে। এব্যাপারে রাউত বলেন, ”যাঁরা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছেন তাঁরা যদি খুশি হন তবে তাঁরা খুশি হোক। আমি সহ্য করেছি… ব্রিটিশ আমলেও এমন নোংরা রাজনীতি হয়নি।”

বৃহস্পতিবার বিকেলে সঞ্জয় রাউত তাঁর সিলভার ওক বাংলোয় এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার এবং মাতোশ্রীতে শিবসেনা সভাপতি উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে দেখা করবেন। এপ্রসঙ্গে রাউত বলেন, “আমি আজ পাওয়ার সাহেবের সঙ্গে দেখা করব। তিনিও ভালো নেই এবং আমার জন্যও চিন্তিত ছিলেন। অনেকে আমাকে ডেকেছেন। আমি তাঁদের সবার সঙ্গে দেখা করব।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest National news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sanjay raut soon meet fadnavis pm modi and amit shah