বড় খবর

RR vs RCB Highlights: ‘উইনলেস’ রয়ে গেল ব্য়াঙ্গালোর, মরসুমের প্রথম জয় রাজস্থানের

IPL 2019, RR vs RCB Live Score Highlights: পরপর চার ম্য়াচ হারল বিরাট কোহলির ব্য়াঙ্গালোর, টানা তিন ম্য়াচ হারের ধাক্কা কাটিয়ে অবশেষে রাজস্থান পেল মরসুমের প্রথম জয়।  

RR vs RCB Live Score, Rajasthan Royals vs Royal Challengers Bangalore Live
RR vs RCB Live Score, Rajasthan Royals vs Royal Challengers Bangalore Live

IPL 2019, RR vs RCB Highlights: পরপর চার ম্য়াচ হারল বিরাট কোহলির ব্য়াঙ্গালোর, টানা তিন ম্য়াচ হারের ধাক্কা কাটিয়ে অবশেষে রাজস্থান পেল মরসুমের প্রথম জয়।  

আজ জয়পুরের সাওয়াই মান সিং স্টেডিয়ামে রাজস্থান রয়্যালসের মুখোমুখি হয়েছিল রয়্যাল চ্য়ালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। টস হেরে প্রথমে ব্য়াট করে বিরাটরা ১৫৮ রান তোলে। জবাবে ১ বল বাকি থাকতে সাত উইকেটে জিতল রাহানের রয়্য়ালস।

চলতি আইপিএলে অত্যন্ত খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন বিরাট কোহলি। তাঁর তারকাখচিত দল শেষ তিন ম্যাচের একটিতেও জয়ের মুখ দেখেনি। আট দলীয় লড়াইয়ে এখনও পর্যন্ত খাতা খুলতে পারেনি আরসিবি। পয়েন্ট তালিকায় সবার শেষে ব্য়াঙ্গালোর।

অন্যদিকে অজিঙ্ক রাহানের রাজস্থান রয়্যালসের অবস্থাও ঠিক একই। তারাও শেষ তিন ম্যাচের একটিতেও জয় পায়নি। রাহানেরাও জয়ে ফিরতে মরিয়া। এই মুহূর্তে নেট রানরেটের ভিত্তিতে ব্যাঙ্গালোরের থেকে এগিয়ে থাকার সুবাদে রাজস্থান রয়েছে সাত নম্বরে। আজ দেখার কাদের ভাগ্যের চাকা ঘুরতে চলেছে।

আরও পড়ুন: IPL 2019: কিং কোহলি কো গুসসা কিউঁ আতা হ্যায়?

IPL 2019, RR vs RCB  Highlights:

11.29pm: ত্রিপাঠির ছয়ে সাত উইকেটে জয়ী রাজস্থান।

11.24pm:  স্মিথ আউট (৩১ বলে ৩৮), ম্য়াচের টার্নিং পয়েন্ট হতে পারে।

11.18pm: ১২ বলে প্রয়োজন ৯ রান।

11.12pm: ১৮ বলে প্রয়োজন ১৮ রান।

11.01pm: ৩০ বলে প্রয়োজন ৩৮ রান। রাজস্থানের জয়ের সম্ভাবনাই উজ্জ্বল।

10.50pm: ৪৩ বলে ৫৯ করে ফিরলেন বাটলার, চাহালেরই শিকার হলনে তিনি।

10.42pm: ৬০ বলে প্রয়োজন ৭৯ রান। ম্য়াচে রাজস্থানই অ্য়াডভান্টেজে। কোহলিদের দ্রুত উইকেট না-তোলা ছাড়া কোনও রাস্তাই খোলা নেই। স্টিভ স্মিথ আর বাটলার উইকেট দিয়ে আসার পাত্র নন। কষ্ট করেই তাঁদের উইকেট তুলতে হবে বিরাটদের বোলারদের।

10.30pm: এলবিডব্লিউ রাহানে (২০ বলে ২২), বিরাট এটাই চাইছিলেন। চাহাল আসতেই উইকেট পেল আরসিবি। অবশ্য়ই ধাক্কা রাজস্থান শিবিরে। কিন্তু এখনও রাজস্থানের ঝুলিতে তারকা ব্য়াটসম্য়ানরা রয়েছেন।

10.19pm: রাহানে-বাটলার এগিয়ে চলেছেন আপন ছন্দে। ৯.১৬-এর গড়ে প্রথম ৬ ওভারে ৫৫ রান তুলে ফেললেন তাঁরা। কোহলির বোলারদরে দেখে মনে হয়নি তাঁরা উইকেট নেওয়ার জন্য় বল করতে নেমছেন। কোনও ঝাঁঝই নেই তাঁদের বলে। রাহানে-বাটলার একেবারে খোলা মেজাজে ব্য়াট করছেন। উইকেট না-তুলতে পারলে বিরাটদের রান ডিফেন্ড করা মুশকিল।

10.00pm: অজিঙ্ক রাহানে আর জোস বাটলারের ব্য়াটে রান তাড়ার খেলায় রাজস্থান। বেশ ভাল টাচে রয়ছেন দু’জনেই। প্রথম দু’ওভারে করে ফেললেন ১৮। কিন্তু এর মাঝেই খেলা শেষ হতে পারত রাহানের। বিরাট প্রথম স্লিপে তাঁর ক্য়াচ মিস না-করলে রাহানে ক্রিজ নয়, ডাগআউটে থাকতেন। জাতীয় দলের সতীর্থের জন্য় নবজীবন পেলেন জিঙ্কস।

9.35pm: ১৫৮ তুলল আরসিবি।

9.23pm: পার্থিবের ব্য়াট থামল (৪১ বলে ৬৭)দুরন্ত ইনিংস খেলে ফিরছেন তিনি। ১৮ ওভারের খেলা চলছে ১২৬ রান উঠেছে আরসিবি-র। পার্থিব থাকলে রানটা আরও একটু বাড়ত। এ বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

9.07pm: আরসিবি-র হাতে শেষ ছ’ওভার। পার্থিব করে ফেললেন হাফ-সেঞ্চুরি। স্টোইনিসও বেশ ভাল খেলছেন। বিরাটদের দল ১০০-র গণ্ডী পেরিয়ে গেল। এবার মারতেই হবে পার্থিবদের। আর কোনও রাস্তাই খোলা নেই। তাঁদেরে রানের পুঁজি একেবারেই কম।

8.47pm: গোপালের তিন নম্বর উইকেট, কামাল করছেন আজ এই স্পিনার। কোহলি-ডিভিলিয়ার্সের পর শিমরন হেটমায়ারও তাঁরই শিকার হলেন। চেনা ছন্দে আরসিবি। কোহলির কপালে ভাঁজ। এভাবে চলতে থাকলে আরসিবি বিপাকে পড়বে। এক প্রান্তে পার্থিবের ওপর চাপ বাড়ছে। ব্য়াটসম্য়ান বলতে এখন স্টোইনিস আর মঈন আলি রয়েছেন। কিন্তু পার্থিবের সঙ্গে কোনও একজনকে থেকে র্পাটনারশিপ করতেই হবে।

8.42pm: আবার গোপাল, এবার এবিডিকে তুলে (৯ বলে ১৩) নিলেন। কট অ্য়ান্ড বোল্ড করলেন রাহানের স্পিনার। ব্য়াক-টু-ব্য়াক রাহানেদের জ্বালে দু’টো বড় শিকার। রীতিমত চাপে আরসিবি।

8.25pm: ক্লিন বোল্ড কোহলি (২৫ বলে ২৩), পাওয়ার-প্লে’র পূর্ণ সদ্ব্য়বহার করেছিলেন বিরাট-পার্থিব। ৬ ওভারে আটের গড়ে ৪৮ রান তুলেছিলেন তাঁরা। দু’জনেই দুুর্দান্ত ছন্দে ব্য়াট করছিলেন। কিন্তু শ্রেয়স গোপালকে এনেই হিসেব বদলে দিলেন রাহানে। কোহলির মিডল-স্টাম্প ছিটকে দিলেন গোপাল। এবার এবি ডিভিলিয়ার্স আসবেন। দেখার তিনি কী করেন।

8.04pm: ওপেনিং অর্ডার নিয়ে আরসিবি-র পরীক্ষা অব্য়াহত। কোনও জুটিই তাদের হয়ে ওপেন করতে নেমে সেভাবে সাফল্য় পায়নি। আজ পার্থিব প্য়াটেলের সঙ্গে বিরাট নিজেই ওপেন করতে নামলেন। প্রথম ওভারে এল ১০ রান। দেখার এই জুটি ওপেনার হিসেবে সফল হয় কি না! কোহলি আজ ক্যাপ্টেন হিসেবে শততম ম্যাচ খেলতে নেমেছেন।

7.57pm:অজিঙ্ক রাহানেকে আইপিএলে বোলার হিসেবেই ব্য়বহার করা হোক। এমনই পরামর্শ এই প্রজন্মের অন্য়তম সেরা ব্য়াটসম্য়ান স্টিভ স্মিথের। এমনটাই মনে করছেন অজি ক্রিকেটার।

7.42pm: দু’দলেই বেশ কিছু পরির্বতন রয়েছে, সনজু স্য়ামসনকে চোটের জন্য় পাচ্ছেন না রাহানে, স্টুর্য়াট বিনি এসেছেন তাঁর পরিবর্তে। জয়দাব উনাদকাটের জায়গায় বরুণ অ্য়ারন। অন্য়দিকে আজ আরসিবি-র হয়ে অভিষেক করছেন অজি বোলার র্মাকাস স্টোইনিস। শিবম দুবে, প্রয়াস রয়বর্মণ, কলিন ডে গ্রান্ডহোম খেলছেন না। বিরাট খেলাচ্ছেন আকাশদীপ নাথ ও নবদীপ সাইনিকে।

7.33pm: টস জিতে বল করবে রাজস্থান, কোহলি বলছেন টস জিতলে তিনি ব্য়াট করারই সিদ্ধান্ত নিতেন। কারণ শুষ্ক পিচে প্রথমে ব্য়াট করাটাই শ্রেয় বলে মত তাঁর। জয়পুরের পিচ সাধারণত ফাস্টবোলার সহায়ক হয়। কিন্তু পিচ দেখে ইয়ান বিশপ বলছেন, স্পিনাররাও এখানে সুবিধা পাবেন। ব্য়াটসম্য়ানদের খেলতেও কোনও সমস্য়া হবে না বল মত প্রাক্তন কিংবদন্তি ক্রিকেটারের। 

7.17pm: আজ ২ এপ্রিল, তারিখটা ভুলতে পারবেন না কোনও ভারতীয়ই। ঠিক আট বছর আগে এই দিনেই আরবসাগরের তীরে মহেন্দ্র সিং ধোনির গগনচুম্বী ছক্কায় ভারত ২৮ বছর পর ফের বিশ্বকাপের স্বাদ পেয়েছিল। বিসিসিআই সেই ঐতিহাসিক মুর্হূতের ভিডিও টুইট করেছে। শচীন তেন্ডুলকরও টুইটারে ভিডিও আপলোড করে স্মৃতিচারণা করেছে। এমনকী আইপিএলের অনান্য় ম্য়াচগুলো শুরু হওয়ার আগে পুরনো ম্য়াচের হাইলাইটস দেখায়। আজ তারাও ভারত বনাম শ্রীলঙ্কার ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্য়াচের হাইলাইটস দেখাল।

7.10pm: আজ জয়পুরে ৩৬ ডিগ্রির কাছাকাছি তাপমাত্রা থাকবে। বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতা ৯ শতাংশ। বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। ফলে ঝকঝকে আকাশই থাকবে। দেশের পিঙ্ক সিটি আজ রানের বন্য়া দেখতে পারে। জয়পুর বললেই  কিন্তু মনে পড়ে যাচ্ছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সঙ্গে রাজস্থান রয়্যালস ম্য়াচের কথা। রাজস্থানের ব্যাটসম্যান জোস বাটলারকে ‘মানকাডেড’ করে দিয়েছিলেন কিংসের অধিপতি অশ্বিন।যা নিয়ে প্রচুর বিতর্কও হয়েছিল। যা এখনও চলছে।

7.00pm: কোহলি-কথা; বিরাট কোহলি আজ ক্যাপ্টেন হিসেবে শততম ম্যাচ খেলতে নামছেন। এদিন কিং কোহলির ব্যাট থেকে আর ৪০ রান আসলেই এই টুর্নামেন্টে তাঁর ৮০০০ রান পূর্ণ করা হয়ে যাবে। আইপিএলে ন্যূনতম ৫০টি ম্যাচে নেতৃত্ব দেওয়া অধিনায়কদের তালিকায় সবথেকে খারাপ পরিসংখ্যান কোহলির। জয়ের শতাংশ মাত্র ৪৫.৪৫। এমনকি রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধেও কোহলির গড় বাকি দলের তুলনায় সবথেকে  খারাপ। জয়পুরে হাফ ডজন ইনিংসে কোহলি ৪০ পার করেননি। তাঁর স্ট্রাইকরেট ৬৪.৭৪।

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Ipl 2019 rr vs rcb live cricket score updates89497

Next Story
পুড়ে যাওয়া উয়াড়ির পাশে বঙ্গ ফুটবলের অভিভাবক, সাড়া নেই সিএবি-রUtpal Ganguly set to help his former club
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com