scorecardresearch

পাকিস্তানে কোটি কোটি টাকা গড়াপেটার অফার! হৈচৈ ফেলল ওয়ার্নের বিষ্ফোরক স্বীকারোক্তি

বড়সড় গড়াপেটার প্রস্তাব পেয়েছিলেন। এমনটাই এবার খোলসা করলেন কিংবদন্তি স্পিনার শ্যেন ওয়ার্ন। তারপরেই তোলপাড় ক্রিকেট মহল!

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ স্পিনার তিনি। তাঁকেই কিনা বড়সড় অর্থের প্রলোভন দেখিয়ে খারাপ খেলার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। এমন স্বীকারোক্তি করেই ক্রিকেট বিশ্বে চাঞ্চল্য ফেলে দিলেন শ্যেন কিথ ওয়ার্ন। ১৪৫ টেস্টে ৭০৮ উইকেট নেওয়া মহাতারকা কেরিয়ারের শুরুর দিকে অবশ্য এমন প্রস্তাব পেয়েছিলেন। তাঁকে বুকির তরফে বলা হয়েছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে করাচি টেস্টে খারাপ বল করলেই মিলবে ২ লক্ষ ৭৬ হাজার মার্কিন ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় বর্তমানে যা আড়াই কোটি টাকারও বেশি।

সেই বুকির নাম-ও জানিয়ে হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন কিংবদন্তি। তিনি তৎকালীন পাক ক্যাপ্টেন সালিম মালিক। ১৯৯৪-এ শ্যেন ওয়ার্ন এবং টিম মে-র কাছে তিনি প্রস্তাব রেখেছিলেন স্ট্যাম্পের বাইরে বাইরে বল করলেই মিলবে বিপুল অর্থ।

আরও পড়ুন: কোহলি ফিরলেই বাদ পড়ছেন এই তারকা! যোগ্যতা দেখিয়েও ফের হবেন ব্রাত্য

কিছুদিনের মধ্যেই শ্যেন ওয়ার্নের ওপর এক তথ্যচিত্র প্রকাশ পেতে চলেছে। সেই তথ্যচিত্রেই ওয়ার্ন জানিয়েছেন, “আমরা নিশ্চিত ছিলাম, পাকিস্তানকে সহজেই হারিয়ে দিতে পারব। সেই সিরিজে একবার বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনার সময়ে একবার ওর রুমের দরজা নক করি। ও জবাব দিয়েছিল। আমি বসতেই ও শুরু করে- ভাল ম্যাচ হচ্ছে। আমরা এগোচ্ছি ঠিকঠাক। আমিও বলতে থাকি- হ্যাঁ, তবে আগামীকাল আমরাই জিতব, মনে হয়।”

সেলিম মালিক তখন আরও বলতে থাকেন, “আমরা হারলে মুশকিল হবে। তোমরা বুঝবে না, দেশের মাটিতে হারলে আমাদের কী পরিণতি হয়। আমাদের বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দেওয়া হবে। আমাদের আত্মীয়রাও রেহাই পাবে না।”

আরও পড়ুন: দায়িত্বজ্ঞানহীন শটের খেসারত, পন্থের ওপর কি ক্ষুব্ধ দ্রাবিড়! প্রকাশ্যে জানালেন নিজেই

করাচি টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের জন্য একসময় প্রয়োজন ছিল মাত্র ৮ উইকেট। সেই টেস্টের ফলাফলের আগেই শ্যেন ওয়ার্নকে গড়াপেটার প্রস্তাব দেন মালিক। সেই সময় ওয়ার্নের অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে বার্ষিক চুক্তি ছিল ২৫-৩০ হাজার ডলার। তিনি সরাসরি এই প্রলোভন উপেক্ষা করে যান। “জানি না, সেই প্রস্তাব পেয়ে কী বলব। আমি স্রেফ বিমূঢ় হয়ে ওখানে বসে ছিলাম। তারপরে ওঁকে বলি- ধুস, তোমাদের আমরা হারাবোই।”

২০০০ সালের শেষের দিকে গড়াপেটায় ধরা পড়েন সেলিম মালিক। আজীবন নির্বাসন জোটে তাঁর। একদিনের ক্রিকেটে ৭১৭০ রান এবং টেস্টে ১৫ শতরান সহ ৫৭৬৮ রান করেছেন সেলিম মালিক।

ওয়ার্ন অস্ট্রেলিয়ার এক ওয়েবসাইটে জানিয়েছেন, “এখন ফিক্সিংয়ের কথা বললে, লোকে ধরেই নেয় তা হবে না। তবে ৩০ বছর আগে সেরকম কোনও আলোচনাই হত না। কোনও খেলাতেই তখন বিষয়টা এত মাথাচারা দেয়নি। আমি যখন এমন প্রস্তাব পেলাম, তখন আমার মনের অবস্থা অনেকটা- কী যে বলো, ধরনের। আমি স্রেফ ছিটকে গিয়েছিলাম। কী বলব, ভেবেই পাচ্ছিলাম না।”

আরও পড়ুন: পন্থকে বাঁশ দিয়েছেন দ্রাবিড়! তারকাকে নিয়ে ফের বিষ্ফোরক গাভাসকার

এমন বেনজির অফার পেয়ে শ্যেন ওয়ার্ন এবং টিম মে সঙ্গেসঙ্গেই দলের অধিনায়ক মার্ক টেলর এবং কোচ ববি সিম্পসনকে জানান। জানানো হয় ম্যাচ রেফারি জন রেইডকেও। ওয়ার্ন জানান, “টাকা পাওয়ার জন্য খারাপ বোলিং করতে পারব না।” সেই টেস্টে ওয়ার্ন ৮ উইকেট শিকার করে ম্যাচের সেরা হয়। তবে সাড়া জাগানো সেই ম্যাচ জিততে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। ইনজামাম উল হক এবং ১১ নম্বর ব্যাটার মুস্তাক আহমেদ শেষ উইকেটে ৫৭ রানের পার্টনারশিপ গড়ে দলকে এক উইকেটে জয় এনে দেন।

কার্যত জেতা ম্যাচ হেরে বসায় বিধ্বস্ত হয়ে পড়েন ওয়ার্ন। পাকিস্তানের জয়ের পরে সেলিম মালিককে শুনিয়ে বলে দিয়েছিলেন, “একদমই হারাটা উচিত হয়নি আমাদের।” ওয়ার্ন অবশ্য সেই হারের কারণও জানিয়েছেন পরে। বলেছেন, “ইনজামাম উল হককে বেশ কয়েকবার লেগ বিফোর করলেও আম্পায়াররা সাড়া দেননি। সেই সময় নিরপেক্ষ আম্পায়ার কার্যত ছিলই না।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Shane warne offered huge money to bowl poorly against pakistan