বড় খবর


Apple Watch 4: আগামী স্মার্টওয়াচে থাকবে একগুচ্ছ নতুন চমক

Apple Watch 4: কেজিআই সিকিউরিটির অ্যাপেল প্রোডাক্ট বিশ্লেষক মিং চিন ক্যুও দাবী করেছেন ২০১৮ সালে ওয়াচ ফোরের দৌলতে অ্যাপেল অন্ততপক্ষে ২২-২৪ মিলিয়ন ইউনিট বিক্রি করতে সক্ষম হবে।

Apple 6.1-inch LCD iPhone with single camera: price, launch date, feature and specification

সূত্রের খবর অনুযায়ী, আগামী সেপ্টেম্বর মাসে অ্যাপেল বাজারে আনবে আইফোন টেনের নতুন ভার্সন। পাশাপাশি আইফোন-খ্যাত এই কোম্পানীর আগামী স্মার্টওয়াচ Apple Watch 4 লঞ্চের সম্ভাবনাও প্রবল। ক্রেতাদের নজর কাড়তে অ্যাপেল তাদের আগামী স্মার্টওয়াচে আইফোনের মত টাচ বাটন দেবে বলে দাবী করা হচ্ছে। এর ফলে অ্যাপেলের বর্তমান ঘড়িগুলির মত এতে কোন হার্ডওয়্যার বাটন থাকবে না বলেও জানা গেছে।

একটি রিপোর্টের মতে, “অ্যাপেলের আগামী স্মার্টওয়াচে ডিজিটাল ক্রাউন থাকলেও তা হবে টাচ-সেনসিটিভ, ফলে এই বাটনটি ছুঁলেই ভাইব্রেট করবে। এরজন্য আইফোন সেভেন ইত্যাদি ফোনের মত এবার অ্যাপেল ওয়াচেও দেওয়া হবে হ্যাপটিক ফিডব্যাক নামক প্রযুক্তিটি।”

নতুন এই বাটনটি কম জায়গা নেবার দরুন অ্যাপেল ওয়াচ ফোরে আরও শক্তিশালী ব্যাটারি থাকবে বলেও আশা করা যায়। সূত্রের খবর, এর দরুন অ্যাপেল ওয়াচ ফোর জল প্রতিরোধকও হতে পারে। ফাস্ট কোম্পানির একটি রিপোর্টের মতে নতুন এই টাচ বাটনটি ছুঁলেই জানা যাবে ব্যবহারকারীর হার্ট-রেটও।

আরও পড়ুন :জিও, এয়ারটেলের হাত ধরে অ্যাপেল ওয়াচ থ্রি সেলুলার এবার ভারতের বাজারে, জেনে নিন দাম ও ফিচার

কেজিআই সিকিউরিটির অ্যাপেল প্রোডাক্ট বিশ্লেষক  মিং চিন ক্যুও জানিয়েছেন অ্যাপেল ওয়াচ ফোরের ডিসপ্লেটি ওয়াচ থ্রিয়ের থেকে ১৫ শতাংশ বড় হবে। তবে বড় ডিসপ্লে দেবার জন্য এর চারপাশের বেজেলের আয়তন কমানো হবে কিনা সে বিষয়ে এখনও কিছু জানা যায়নি। তাঁর মতে, অ্যাপেলের আগামী স্মার্টওয়াচে স্বাস্থ্য-সংক্রান্ত অনেক নতুন ফিচারের পাশাপাশি থাকবে একটি শক্তিশালী ব্যাটারিও। তিনি দাবী করেছেন ২০১৮ সালে ওয়াচ ফোরের মাধ্যমে অ্যাপেল অন্ততপক্ষে ২২-২৪ মিলিয়ন বিক্রি করতে সক্ষম হবে। ক্যানালিস নামক একটি রিসার্চ সংস্থার মতে গত বছর অ্যাপেল ওয়াচ বিক্রি হয়েছে প্রায় ১৮ মিলিয়ন ইউনিট, যা ২০১৬ সালের বিক্রির তুলনায় দ্বিগুণ।

কয়েকদিন আগে WWDC 2018 সম্মেলনে অ্যাপেল ওয়াচওএস ফাইভের নতুন ফিচারগুলি সম্পর্কে আলোচনা করে। অ্যাপেল ওয়াচে ব্যবহৃত এই অপারেটিং সিস্টেমের আগামী ভার্সনে অসংখ্য স্বাস্থ্য-সম্পর্কিত ফিচারের পাশাপাশি থাকবে নতুন ওয়াচফেস এবং নোটিফিকেশন। তবে ওয়াচওএস ফাইভের দেখা মিলবে অ্যাপেলের পরবর্তী স্মার্টওয়াচে।

আরও পড়ুন: লেনোভো HX03F, বাজারে এল ১,৯৯৯ টাকার নতুন স্মার্টওয়াচ

কিছুদিন আগে ভারতের বাজারে রিলায়েন্স জিও এবং এয়ারটেলের হাত ধরে বাজারে এসেছে অ্যাপেল ওয়াচ থ্রি সেলুলার। অ্যাপেলের এই নতুন স্মার্টওয়াচটিতে LTE সাপোর্ট থাকার দরুন এটি ব্যবহার করবার জন্য সবসময় আইফোন লাগবে না। ৩৮ মিলিমিটার স্ক্রিনের অ্যাপেল ওয়াচ নন সেলুলারের দাম ভারতের বাজারে শুরু ৩৯,০৮০ টাকা থেকে। এরই পাশাপাশি ৪২ মিলিমিটার স্ক্রিন ও জিপিএস সহ অ্যাপেল ওয়াচ সিরিজ থ্রিয়ের বাজারে দাম ৪১,১২০ টাকা। এছাড়া অ্যাপেল সিরিজ ৩ এডিশনের ৩২ মিলিমিটার স্ক্রিনের ঘড়িটির সর্বাধিক বাজারমূল্য ১,২২,০৯০ টাকা এবং ৪২ মিলিমিটার স্ক্রিনের ১,১৮,০৩০ টাকা। তবে অ্যাপেল ওয়াচ ফোরের দাম কত হতে পারে এই মুহুর্তে তা আন্দাজ করা যাচ্ছে না।

Web Title: Apple watch 4 physical button solid state button report

Next Story
Motorola One Power: আইফোন লুকে এবার মোটোরোলাmotorola_onepower_android1
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com